× প্রচ্ছদ অনলাইনপ্রথম পাতাশেষের পাতাখেলাবিনোদনএক্সক্লুসিভভারতবিশ্বজমিনবাংলারজমিনদেশ বিদেশশিক্ষাঙ্গনরকমারিপ্রবাসীদের কথাবই থেকে নেয়া তথ্য প্রযুক্তি শরীর ও মন চলতে ফিরতে ষোলো আনা ইলেকশন কর্নার
ঢাকা, ১৭ জুন ২০১৯, সোমবার

বেসরকারি কলেজ শিক্ষকদের মানবেতর জীবন

বাংলারজমিন

স্টাফ রিপোর্টার, গাজীপুর থেকে | ২৬ এপ্রিল ২০১৯, শুক্রবার, ৯:১৪

বেসরকারি কলেজ অনার্স-মাস্টার্স কোর্সে নিয়োগপ্রাপ্ত শিক্ষদের এমপিওভুক্তির দাবিতে গাজীপুরস্থ জাতীয় বিশ্ববিদ্যালয়ের ভিসির সঙ্গে মতবিনিময় ও স্মারকলিপি প্রদান করা হয়েছে। গতকাল সকালে বাংলাদেশ বেসরকারি কলেজ অনার্স-মাস্টার্স শিক্ষক ফোরামের আহ্বায়ক নেকবর হোসাইন ও সদস্য সচিব মো. মেহরাব আলীর নেতৃত্বে মতবিনিময় ও স্মারকলিপি প্রদান করা হয়। নেকবর হোসাইন জানান, ১৯৯৩ সাল থেকে জাতীয় বিশ্ববিদ্যালয় অধিভুক্ত বেসরকারি কলেজ সমূহে অনার্স-মাস্টার্স কোর্স অনুমোদিত হয়েছে। বর্তমানে সারা দেশের ২০৩টি বেসরকারি কলেজে প্রায় সাড়ে ৩ হাজার জন নন এমপিও অনার্স-মাস্টার্স শিক্ষক শিক্ষাদান করে যাচ্ছেন। শিক্ষা মন্ত্রণালয় ও মাউশিতে অনেক বার স্মারকলিপি ও আবেদন করা হলেও তাদের এমপিওভুক্ত করা হচ্ছে না। যার ফলে, কলেজগুলোতে অনার্স-মাস্টার্সে নিয়োগপ্রাপ্ত শিক্ষকরা মানবেতর জীবনযাপন করছেন। তাদের পূর্বনির্ধরিত ভিসি কার্যালয় ঘেরাও এবং অনশন কর্মসূচি থাকলেও জাতীয় বিশ্ববিদ্যালয়ের ভিসি প্রফেসর ড. হারুন-অর-রশিদ এর আশ্বাসে গতকাল সকালে জাতীয় বিশ্ববিদ্যালয় ঘেরাও এবং অনশন কর্মসূচি ১৫ দিন স্থগিত করা হয়েছে।
পরে ভিসির সঙ্গে ওইসব শিক্ষকদের এমপিও প্রদান, কলেজে শিক্ষার্থীর আসন ১০০-এর মধ্যে সীমিত রাখা, অনার্স-মাস্টার্স শিক্ষক দিয়ে শিক্ষার্থীদের উত্তরপত্র মূল্যায়ন দাবিসহ ৬ দফা দাবিতে স্মারকলিপি প্রদান করা হয়।
সভায় আলোচনার পর ভিসি জাতীয় বিশ্ববিদ্যালয়ের আওতাভুক্ত অনার্স মাস্টার্স কোর্সে নিয়োগপ্রাপ্ত শিক্ষকদের জনবল কাঠামো ও এমপিওতে অন্তর্ভুক্তির বিষয়ে কাজ করার আশ্বাস দিলে আন্দোলন কর্মসূচি ১৫ দিন স্থগিত করা হয়েছে।  ১৫ দিনের মধ্যে ওই কার্যক্রম শুরু না হলে ভিসির পদত্যাগসহ বিভিন্ন কর্মসূচি দেয়া হবে। মতবিনিময় সভায় উপস্থিত ছিলেন ফোরামের যুগ্ম আহবায়ক মো: মনিরুজ্জামান মোড়ল, আহসান উল্লাহ বিপ্লব, মো. নুরুন্নবী, সাদিকুর রহমান সাদিক, সাইফুল ইসলাম, গাজী মোফাজ্জেল হোসেন, মাহমুদ হাসান, রাসেল, মাসুম বিল্লাহ প্রমুখ।

অবশ্যই দিতে হবে *
অবশ্যই দিতে হবে *
অন্যান্য খবর