× প্রচ্ছদ অনলাইনপ্রথম পাতাশেষের পাতাখেলাবিনোদনএক্সক্লুসিভভারতবিশ্বজমিনবাংলারজমিনদেশ বিদেশশিক্ষাঙ্গনরকমারিপ্রবাসীদের কথাবই থেকে নেয়া তথ্য প্রযুক্তি শরীর ও মন চলতে ফিরতে ষোলো আনা ইলেকশন কর্নার
ঢাকা, ১৭ জুলাই ২০১৯, বুধবার

পঞ্চপাণ্ডবের ‘লাকি সেভেন’

খেলা

স্পোর্টস রিপোর্টার | ১৫ মে ২০১৯, বুধবার, ৯:৩৪

মাশরাফি-সাকিব-তামিম-মুশফিক-মাহমুদুল্লাহ। বাংলাদেশ দলের ‘পঞ্চপান্ডব’ একসঙ্গে খেলেছেন ১০৩ ম্যাচ। জিতেছেন ৫০ ম্যাচ। ৫০তম জয়টি এসেছে সোমবার ত্রিদেশীয় সিরিজে আয়ারল্যান্ডের বিপক্ষে। তবে একটা আক্ষেপ রয়েই গেল তাদের। এখন পর্যন্ত ছয়টি টুর্নামেন্টের ফাইনাল খেলেও ট্রফি জিততে পারেননি। মালাহাইডে ওয়েস্ট ইন্ডিজের বিপক্ষে আগামী ১৭ই মে ত্রিদেশীয় সিরিজের ফাইনাল খেলবে বাংলাদেশ। ‘লাকি সেভেন’-এ আক্ষেপটা কি ঘুচবে পঞ্চপাণ্ডবের?
২০০৭ টি-টোয়েন্টি বিশ্বকাপে শ্রীলঙ্কার বিপক্ষে ম্যাচে দিয়ে পঞ্চপান্ডবের যাত্রা শুরু।
ধীরে ধীরে বাংলাদেশ দলের অপরিহার্য অংশ হয়ে উঠেছেন তারা। দলের প্রতিটি জয়েই কেউ কেউ না কেউ অবদান রাখছেন। ওয়ানডে সংস্করণে একসঙ্গে বেশি ম্যাচ  খেলেছেন তারা। ৭৩ ম্যাচে পেয়েছেন ৩৭ জয়ের দেখা। টি- টোয়েন্টিতে ২৯ ম্যাচে ১২ জয়। মাশরাফি টেস্ট খেললে অনেকগুলো টেস্ট ম্যাচেও একসঙ্গে পাঁচ তারকাকে দেখা যেত। দুর্ভাগ্যক্রমে সেটি হয়নি। পঞ্চপাণ্ডব মিলে তাই এখন পর্যন্ত ম্যাচ খেলেছেন মাত্র একটি। সেটি ২০০৯ সালের ক্যারিবীয় সফরে ওয়েস্ট ইন্ডিজের বিপক্ষে সিরিজের প্রথম টেস্টে। বাংলাদেশ দলের অধিনায়ক হিসেবে ম্যাচটি ছিল মাশরাফি প্রথম পরীক্ষা। কিন্তু চোটের কারণে দুদিনের বেশি খেলতে পারেননি মাশরাফি। তৃতীয় দিন থেকে অধিনায়কের দায়িত্ব পালন করেছিলেন সাকিব। ম্যাচটা জিতেছিল বাংলাদেশ।
পঞ্চপান্ডবকে নিয়ে বাংলাদেশ যেমন ৫০ জয় পেয়েছে তেমনটি হারও ৪৯টি। তবে সবচেয়ে কষ্টদায়ক ছিল ফাইনালের পরাজয়গুলো। এশিয়া কাপ ও নিদাহাস ট্রফির ফাইনালে শেষ বলে হেরে যাওয়ার ওই দৃশ্য যেন ম্যালাহাইডে ফিরে না আসে এ প্রত্যাশা নিয়েই ফাইনালে নামবেন পঞ্চপান্ডব। বিশ্বকাপ শেষে মাশরাফির অবসরের গুঞ্জন রয়েছে। ফলে আয়ারল্যান্ডের মাটিতে হয়ত একসঙ্গে শেষ ফাইনাল খেলতে নামছেন এই পাঁচ তারকা। তার আগে আজ আয়রল্যান্ডের বিপক্ষে নিয়মরক্ষার ম্যাচে নামবে বাংলাদেশ। তিন ম্যাচে দুই হারে স্বাগতিকদের আর সম্ভাবনা নেই।
কিছুদিন আগে পাকিস্তানের সাবেক ক্রিকেটার রমিজ রাজা বলেছিলেন, ‘বাংলাদেশ অনেকগুলো ক্লোজ ফাইনাল হেরেছে। এজন্য বিশ্বকাপে তারা পাকিস্তান-ওয়েস্ট ইন্ডিজের মতো দলের চেয়ে মানসিকতায় পিছিয়ে থাকবে।’
বিশ্বকাপের আগে বাংলাদেশের সামনে সুযোগ ‘ফাইনাল’ হারার বাজে অভ্যাস থেকে বেরিয়ে আসার। আর ত্রিদেশীয় কাপ জিততে পারলে আত্মবিশ্বাসের পারদটা অনেক উপরে থাকবে মাশরাফির দলের। বাংলাদেশের বিশ্বকাপ শুরু হবে ২রা জুন দক্ষিণ আফ্রিকার বিপক্ষে ম্যাচের মধ্য দিয়ে। রাউন্ড রবিন লীগ পদ্ধতিতে টুর্নামেন্ট হওয়ায় এবার অন্তত ৯ ম্যাচ খেলার সুযোগ পাবে টাইগাররা। আর ফাইনালে উঠলে ১১ ম্যাচ।

অবশ্যই দিতে হবে *
অবশ্যই দিতে হবে *
অন্যান্য খবর