× প্রচ্ছদ অনলাইনপ্রথম পাতাশেষের পাতাখেলাবিনোদনএক্সক্লুসিভভারতবিশ্বজমিনবাংলারজমিনদেশ বিদেশশিক্ষাঙ্গনরকমারিপ্রবাসীদের কথাবই থেকে নেয়া তথ্য প্রযুক্তি শরীর ও মন চলতে ফিরতে ষোলো আনা ইলেকশন কর্নার
ঢাকা, ১৬ জুন ২০১৯, রবিবার
আলাপন

‘ইউটিউব ভিউ দিয়ে শিল্পী হওয়া যায় না’

বিনোদন

এন আই বুলবুল | ১৫ মে ২০১৯, বুধবার, ৯:২৬

আধুনিক গানের জনপ্রিয় কন্ঠশিল্পী মনির খান। ‘তোমার কোনো দোষ নাই, ‘আবার কেন পিছু ডাকো’, ‘অঞ্জনা, ‘প্রেমের তাজমহল’সহ তার অসংখ্য জনপ্রিয় গান শ্রোতাদের মুখে মুখে ফেরে। তবে মাঝে রাজনীতিতে ব্যস্ত হয়ে পড়েন এই কন্ঠশিল্পী। এছাড়া অডিও বাজারের অস্থির অবস্থার কারণে নতুন গান প্রকাশ থেকে বিরত ছিলেন। সম্প্রতি তিনি ঘোষণা দিয়েছেন আবারও নিয়মিত গান প্রকাশ করবেন। সংগীতশিল্পী হয়েই তিনি বাকি জীবনটা  পার করতে চান। মনির খান বলেন, আমি আজকে মনির খান হয়েছি গানের কল্যাণে। শ্রোতাদের ভালোবাসায়।
তাই সিদ্ধান্ত নিয়েছি নিয়মিত গান করব। রাজনীতিতে নিজেকে আর জড়াবো না। বর্তমান গান নিয়ে মনির খানের ব্যস্ততা কেমন? এই প্রসঙ্গে তিনি বলেন, রমজানের আগ পর্যন্ত নিয়মিত স্টেজ শো করেছি। পাশাপাশি টেলিভিশন চ্যানেলেও অংশ নিয়েছি। এখন রমজানের কারণে শো কম। তবে গানের সঙ্গে আছি। প্রতিদিনই আমি প্র্যাকটিস করি।

ঈদে কি শ্রোতারা নতুন গান পাবেন? তিনি বলেন, ঈদুল ফিতর উপলক্ষে নতুন একটি গানের অ্যালবাম প্রকাশ করব। অ্যালবামের নাম ‘হৃদয়ের যন্ত্রণা’। অ্যালবামে দশটি গান থাকবে। গানের কথা লিখেছেন লিটন শিকদার। সুর ও সংগীতায়োজন করেছেন শেখ সাদী খান। এরই মধ্যে কয়েকটি গানের রেকর্ডিং সম্পন্ন হয়েছে। আমি সব সময় কথাকে গুরুত্ব দিয়ে গান করি। এবারও তার ব্যতিক্রম হবে না। প্রতিটি গানের কথা হৃদয় স্পর্শ করার মতো। সুর ও সংগীতায়োজনও চমৎকার। অ্যালবামটি ঈদ উপলক্ষে ইউটিউবে আমার নিজস্ব চ্যানেলে অডিও ভার্সনে প্রকাশ করা হবে। ঈদের পর সবকটি গানের ভিডিও নির্মাণ করে প্রকাশ করার ইচ্ছে আছে। 

মিউজিক ভিডিওর সূত্র ধরে মনির খানের কাছে জানতে চাওয়া-মিউজিক ভিডিওকে কিভাবে দেখেন তিনি? এই প্রশ্নের উত্তরে শিল্পী বলেন, প্রযুক্তি এখন আমাদের সব কিছু সহজ করে দিয়েছে। তাই বলে এটির অপব্যবহার করা যাবে না। মিউজিক ভিডিও হতে পারে। তাই বলে গানের চেয়ে মিউজিক ভিডিওর দিকে গুরুত্ব বেশি দেওয়া উচিত নয়। সিডির যুগে আমাদের অনেক গান মিউজিক ভিডিও হয়েছে। কিন্তু এখন যেভাবে মিউজিক ভিডিও করা হচ্ছে সেটি ঠিক নয়। গানের কথা ও সুরের দিকে আমাদের গুরুত্ব দিতে হবে। গানকে যেন মেশিনগান বানানো না হয়। আমাদের শিল্পীদের মনে রাখতে হবে গান শোনার বিষয়। একটি ভালো গানকে শ্রোতারা নানা ভাবে চিত্রকল্প করতে পারেন। এই সময়ের গানের কথায় নানা ধরনের উদ্ভট শব্দের ব্যবহার হচ্ছে।

এটি নিয়ে মনির খানের মন্তব্য কি? তিনি বলেন, আমাদের সোনালী যুগের গানের দিকে তাকালে দেখি কতটা সমৃদ্ধ ছিল সেসময়ের গানের ভান্ডার। ২০ বছর আগের যে গানগুলো এখন শ্রোতাদের মুখে শোনা যায় সেগুলোরও কথা ও সুর সবার হৃদয় ছুয়ে যায়। ‘ভাই নাই ঘরে, তুমি আসো ফিরে’ এটাতো কোনো গান হতে পারে না। যে গান মানুষের কথা বলে, যে গানের সুর হৃদয় ছুয়ে যায় শেষ পর্যন্ত সেই গানগুলো স্থায়ী হয়। নতুন শিল্পীদের গানের কথা ও সুরের দিকে গুরুত্ব দিতে হবে। মনে রাখতে হবে ইউটিউব ভিউ দিয়ে আলোচনায় আসা যায়। কিন্তু ইউটিউব ভিউ দিয়ে শিল্পী হওয়া যায় না।

অবশ্যই দিতে হবে *
অবশ্যই দিতে হবে *
অন্যান্য খবর