× প্রচ্ছদ অনলাইনপ্রথম পাতাশেষের পাতাখেলাবিনোদনএক্সক্লুসিভভারতবিশ্বজমিনবাংলারজমিনদেশ বিদেশশিক্ষাঙ্গনরকমারিপ্রবাসীদের কথাবই থেকে নেয়া তথ্য প্রযুক্তি শরীর ও মন চলতে ফিরতে ষোলো আনা ইলেকশন কর্নার
ঢাকা, ২৫ মে ২০১৯, শনিবার

পাকিস্তানের শীর্ষ তিন কর্মকর্তার বিরুদ্ধে যুক্তরাষ্ট্রের ভিসায় নিষেধাজ্ঞা

বিশ্বজমিন

মানবজমিন ডেস্ক | ১৫ মে ২০১৯, বুধবার, ৫:৪৯

অভিবাসী ফেরত পাঠানো নিয়ে বিরোধে পাকিস্তানের স্বরাষ্ট্র মন্ত্রণালয়ের তিনজন সিনিয়র কর্মকর্তার ভিসার ওপর নিষেধাজ্ঞা (স্যাংসন) দিয়েছে যুক্তরাষ্ট্রে। ওই তিন কর্মকর্তা হলেন দেশটির স্বরাষ্ট্র মন্ত্রণালয়ের অতিরিক্ত সচিব, একজন যুগ্ম সচিব ও পাসপোর্ট বিভাগের মহাপরিচালক। মঙ্গলবার এ বিষয়টি নিশ্চিত করেছেন পাকিস্তানের পররাষ্ট্রমন্ত্রী শাহ মেহমুদ কুরেশি। তিনি জাতীয় পরিষদের পররাষ্ট্র বিষয়ক স্ট্যান্ডিং কমিটিতে বলেন, পাকিস্তানের ওই তিনজন কর্মকর্তার বিরুদ্ধে ভিসায় নিষেধাজ্ঞা আরোপ করেছে যুক্তরাষ্ট্র। এ খবর দিয়েছে অনলাইন ডন।

কয়েক ডজন পাকিস্তানিকে দেশে ফেরত পাঠানো নিয়ে যুক্তরাষ্ট্রের সঙ্গে বিরোধ সৃষ্টি হয়েছে। ওইসব পাকিস্তানি বর্তমানে যুক্তরাষ্ট্রে বসবাস করছেন। তাদের ভিসার মেয়াদ শেষ হয়ে গেছে। এ ছাড়া আরো কিছু অভিযোগ আছে তাদের বিরুদ্ধে। শাহ মেহমুদ কুরেশি বলেছেন, কমপক্ষে ৭০ জন এমন পাকিস্তানিকে যুক্তরাষ্ট্র দেশে ফেরত পাঠাতে চায়। কিন্তু এক্ষেত্রে সরকার তাদেরকে যথাযথ আইন পদক্ষেপ অনুসরণ করার আহ্বান জানিয়েছে। এ নিয়ে সর্বশেষ ওই তিন পাকিস্তানি কর্মকর্তার বিরুদ্ধে এমন পদক্ষেপ নিয়েছে যুক্তরাষ্ট্র।

ডন লিখেছে, যুক্তরাষ্ট্র গত দেড় বছরে কমপক্ষে ১০০ পাকিস্তানিকে ফেরত পাঠিয়েছে। পাকিস্তান তাদেরকে গ্রহণ করেছে। তবে এবারই প্রথম যাদেরকে ফেরত পাঠাতে চাইছে যুক্তরাষ্ট্র তাদের ‘ক্রেডেন্সিয়ালস’ যাচাই করতে চেয়েছে পাকিস্তান। দেশটির ওই তিন কর্মকর্তার বিরুদ্ধে যুক্তরাষ্ট্র এমন ব্যবস্থা নিলেও সাধারণ নাগরিকরা এ স্বাভাবিক নিয়মের আওতায় রয়েছেন। ইসলামাবাদে অবস্থিত মার্কিন দূতাবাসের কনসুলার কর্মকান্ড অব্যাহত রয়েছে। তারা বৈধ আবেদনকারীদের ভিসা দিয়ে যাচ্ছে।

অবশ্যই দিতে হবে *
অবশ্যই দিতে হবে *
অন্যান্য খবর