× প্রচ্ছদ অনলাইনপ্রথম পাতাশেষের পাতাখেলাবিনোদনএক্সক্লুসিভভারতবিশ্বজমিনবাংলারজমিনদেশ বিদেশশিক্ষাঙ্গনরকমারিপ্রবাসীদের কথাবই থেকে নেয়া তথ্য প্রযুক্তি শরীর ও মন চলতে ফিরতে ষোলো আনা ইলেকশন কর্নার
ঢাকা, ২৫ মে ২০১৯, শনিবার

রোমাঞ্চকর জয়ে আশা জিইয়ে রাখলো আবাহনী

খেলা

স্পোর্টস রিপোর্টার | ১৬ মে ২০১৯, বৃহস্পতিবার, ৯:৪৬

এএফসি কাপে চেন্নাইন এএফসি’র সঙ্গে প্রথম পিছিয়ে পরেও রোমাঞ্চকর এক জয় নিয়ে মাঠ ছেড়েছে ঢাকা আবাহনী। গতকাল বঙ্গবন্ধু জাতীয় স্টেডিয়ামে অনুষ্ঠিত ফিরতি লেগের এ ম্যাচে বাংলাদেশ প্রিমিয়ার লীগের বর্তমান চ্যাম্পিয়নরা জিতেছে ৩-২ গোলে। আবাহনীর হয়ে গোল তিনটি করেন বেলফোর্ট, মাসিহ ও মামুনুল। এর আগে চেন্নাইন এফসির সঙ্গে প্রথম লেগে এক গোলে হেরে ছিল আকাশি হলুদ শিবির। এই জয়ে চার ম্যাচে ঢাকা আবাহনীর পয়েন্ট সাত। হারলেও সাত পয়েন্ট নিয়ে শীর্ষে রয়েছে ভারতীয় দলটি।
গুরুত্বপূর্ণ দু’ফুটবলার তপু বর্মণ ও আতিকুর রহমান ফাহাদ নেই। ডিফেন্ডার টুটুল হোসেন বাদশাও খেলতে পারেননি। ঢাকা আবাহনীকে দেখে বুঝার উপায় ছিল না দলটি চোটজর্জর। পুরো মাঠ জুড়ে খেলেছে তারা। আক্রমণের দিক দিয়েও এগিয়ে ছিলেন নাবীব নেওয়াজ জীবনরা। কিন্তু গোল মিসের মহড়াই দিয়েছে আকাশি নীল শিবির। বার বার আক্রমণ করেও গোলের দেখা পাননি জীবন। দলকে গোল এনে দিতে পারেননি নাইজেরিয়ান ফরোয়ার্ড সানডে সিজোবা-ও। তবে সময় গড়ানোর সঙ্গে সঙ্গে ঢাকা আবাহনীর খেলার তেজও বেড়েছে। কিন্তু তুলনামূলক বল পজিশনে পেছনে থেকেও গোলের দেখা পেয়ে যায় চেন্নাইন এফসি। ম্যাচের আট মিনিটে বাঁ প্রান্ত দিয়ে কর্ণার কিক নেন ইসাক ভানমালসাওয়া। জটলা তৈরী হয় আবাহনীর গোল সীমানায়। উড়ে আসা বল ঠেকাতে ব্যস্ত হয়ে পড়েন সবাই। সেই ফাকে শট করে গোলকিপার শহিদুল আলম সোহেলকে বোকা বানিয়ে গোল আদায় করে নেন ভিনিথ (১-০)। কিন্তু বিধাতা যেন ম্যাচের সব রস লুকিয়ে রাখেন দ্বিতীয়ার্ধের জন্য। ম্যাচের ৬৪ মিনিটে প্রতিপক্ষের রক্ষণভাগের খেলোয়াড়ের সঙ্গে দৌঁড়ে এগিয়ে যান হাইতিয়ান ফরোয়ার্ড বেলফোর্ট। বক্সের ভেতরে ঢুকেই ডানপায়ে শট করে পরাস্‌স্ত করেন চেন্নাইনের গোলকিপার করনজিৎ সিংকে। লাফিয়ে পড়েও বল রুখতে পারেননি তিনি (১-১)। মিনিট চার পর এবার এগিয়ে যায় আবাহনীই। ফ্রিকিক থেকে শট নেন আফগানিস্তানের মাসিহ সাইঘানি। সেই বল বাক খেয়ে গোলকিপারের হাতের নাগালের বাইরে দিয়ে কোনাকুনিভাবে জালে জড়িয়ে যায় (২-১)। উল্লাসে মেতে উঠে বঙ্গবন্ধু জাতীয় স্টেডিয়াম। কিন্তু তাদের সেই উল্লাস স্থায়ী হয়নি বেশিক্ষণ। ৭৪ মিনিটে আরওএক গোল করে ম্যাচে সমতা আনে চেন্নাইন। জযের অপেক্ষায় থাকা আবাহনীর কাছ থেকে পয়েন্ট খুইয়ে নিল তারা। আকাশি নীল শিবিরের বিপদ সীমানায় জটলার সৃষ্টি হয়। বল ধরতে সোহেল এগিয়ে আসেন। ঠিক সেই মুহূর্তে বক্সের ভেতরে থাকা সুযোগ সন্ধানী ইসাক ভানমালসাওয়া ডান পায়ের শটে বল জালে জাড়িয়ে দেন (২-২)। ফের  এগিয়ে যায় আবাহনী। এবার নায়ক মামুনুল ইসলাম। ঘরোয়া আসরে নিস্প্রভ সেই মামুনুলই দলকে জয় এনে দিলেন। বক্সের ডান প্রান্ত দিয়ে দূরপাল্লার এক শটে জাল কাঁপান এই মিডফিল্ডার (৩-২)।
আজকের খেলা
বাংলাদেশ প্রিমিয়ার লীগ
শেখ জামাল - মুক্তিযোদ্ধা (৪টা)
চট্টগ্রাম আবাহনী-রহমতগঞ্জ (সাতটা)
বঙ্গবন্ধু জাতীয় স্টেডিয়াম
সাইফ স্পোর্টিং-টিম বিজেএমসি (চারটা)
রফিকউদ্দিন ভূইয়া স্টেডিয়াম, ময়মনসিংহ
 শেখ রাসেল -ব্রাদার্স (সাতটা)
সিলেট জেলা স্টেডিয়াম

অবশ্যই দিতে হবে *
অবশ্যই দিতে হবে *
অন্যান্য খবর