× প্রচ্ছদ অনলাইনপ্রথম পাতাশেষের পাতাখেলাবিনোদনএক্সক্লুসিভভারতবিশ্বজমিনবাংলারজমিনদেশ বিদেশশিক্ষাঙ্গনরকমারিপ্রবাসীদের কথাবই থেকে নেয়া তথ্য প্রযুক্তি শরীর ও মন চলতে ফিরতে ষোলো আনা ইলেকশন কর্নার
ঢাকা, ২৭ জুন ২০১৯, বৃহস্পতিবার

ক্ষুব্ধ মমতার মতে, বিজেপির নির্দেশে নজিরবিহীন সিদ্ধান্ত কমিশনের

ভারত

কলকাতা প্রতিনিধি | ১৬ মে ২০১৯, বৃহস্পতিবার, ৯:৫৭

পশ্চিমবঙ্গ নিয়ে ভারতের  নির্বাচন কমিশনের পর পর কঠোর সিদ্ধান্তে ক্ষুব্ধ পশ্চিমবঙ্গের মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়। তিনি বলেছেন, বিজেপির নির্দেশে নজিরবিহীন সিদ্ধান্ত নিয়েছে কমিশন। মোদী ও অমিত শাহ’র অঙ্গুলিহেলনে কমিশন কাজ করছে বলেও বিস্ফোরক অভিযোগ করেছেন তিনি। বুধবার রাতে মমতা সাংবাদিক বৈঠক করে কমিশনের এদিনের সিদ্ধান্তকে অসাংবিধানিক বলে আখ্যায়িত করেন।  তিনি আরও অভিযোগ করেন, কমিশনে সবাই আরএসএসের লোক। মমতা এদিন নির্বাচন কমিশনের বিরুদ্ধে একগুচ্ছ অভিযোগ জানিয়েছেন। বুধবার রাতে নির্বাচন কমিশন ঘোষণা করেছে, বৃহস্পতিবার রাত থেকেই পশ্চিমবঙ্গে শেষ দফার ভোটপ্রচার বন্ধ করতে হবে। নজিরবিহীন আইনশৃঙ্খলা প্রশ্নে নির্ধারিত সময়ের এক দিন আগেই শেষ দফার ভোটপ্রচার বন্ধ করে দিয়েছে নির্বাচন কমিশন। সেইসঙ্গে রাজ্যের স্বরাষ্ট্রসচিব অত্রি ভট্টাচার্যকে অপসারিত করেছে কমিশন।


তার কাজকর্ম দেখভাল করবেন রাজ্যের মুখ্যসচিব মলয় দে। অন্যদিকে বর্তমানে এডিজি সিআইডি পদে থাকা কলকাতার সাবেক পুলিশ কমিশনার রাজীব কুমারকেও রাজ্য থেকে সরিয়ে দিয়েছে নির্বাচন কমিশন। একই সঙ্গে কমিশনের নির্দেশ, আজ বৃহস্পতিবার  সকাল দশটার মধ্যে কেন্দ্রীয় স্বরাষ্ট্রমন্ত্রকে রিপোর্ট করতে হবে রাজীব কুমারকে। কমিশনের এসব সিদ্ধান্ত ঘোষণার পর মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় অভিযোগ করেছেন, এক্তিয়ার ছাড়াই বাংলায় অনৈতিকভাবে অবসরে যাওয়া ব্যক্তিদের বিশেষ পর্যবেক্ষক নিয়োগ করেছে কমিশন। অমিত শাহর রোডশোকে ঘিরে গোলমালের জন্য বিজেপিকেই দায়ী করেছেন মমতা। তার অভিযোগ, বিদ্যাসাগরের মূর্তি ভেঙ্গে বাংলাকে কলঙ্কিত করেছে বিজেপি। অথচ কমিশন ওদের পুরস্কৃত করেছে। মমতা বিস্ময় প্রকাশ করে বলেন, এ রকম নির্বাচন কমিশন আমি জীবনে দেখি নি। মুখ্যমন্ত্রী  বলেন, সকালে দেখলাম, অমিত শাহ সাংবাদিক বৈঠক করে নির্বাচন কমিশনকে হুমকি দিচ্ছেন। রাতে নির্বাচন কমিশনকে হুমকি দেওয়ারই ফল পাওয়া গিয়েছে।

অবশ্যই দিতে হবে *
অবশ্যই দিতে হবে *
অন্যান্য খবর