× প্রচ্ছদ অনলাইনপ্রথম পাতাশেষের পাতাখেলাবিনোদনএক্সক্লুসিভভারতবিশ্বজমিনবাংলারজমিনদেশ বিদেশশিক্ষাঙ্গনরকমারিপ্রবাসীদের কথাবই থেকে নেয়া তথ্য প্রযুক্তি শরীর ও মন চলতে ফিরতে ষোলো আনা ইলেকশন কর্নার
ঢাকা, ২৭ জুন ২০১৯, বৃহস্পতিবার

বঙ্গবন্ধু স্যাটেলাইটের বিপণন কার্যক্রম শুরু

শেষের পাতা

স্টাফ রিপোর্টার | ২০ মে ২০১৯, সোমবার, ১০:১০

দেশের প্রথম কৃত্রিম উপগ্রহ বঙ্গবন্ধু স্যাটেলাইট-১ (বিএস-১) উৎক্ষেপণের বর্ষপূর্তি ও সেবা বিপণন কার্যক্রম আনুষ্ঠানিকভাবে উদ্বোধন করা হয়েছে। প্রথম দিনেই যমুনা টিভি, সময় টিভি, দীপ্ত টিভি, বিজয় টিভি, বাংলা টিভি ও মাই টিভি এবং সোনালী ব্যাংক ও ডাচ-বাংলা ব্যাংক এর সেবা নেয়ার জন্য সমঝোতা স্মারক স্বাক্ষর করেছে। গতকাল হোটেল ইন্টারকন্টিনেন্টালে দেশের টেলিভিশন চ্যানেলগুলোর পরীক্ষামূলক সমপ্রচারের মধ্য দিয়ে বঙ্গবন্ধু স্যাটেলাইটের বাণিজ্যিক কার্যক্রমের উদ্বোধন করা হয়। এতে প্রধান অতিথি তথ্যমন্ত্রী হাছান মাহমুদ, ডাক ও টেলিযোগাযোগ মন্ত্রী মোস্তাফা জব্বার, তথ্য ও যোগাযোগ প্রযুক্তি প্রতিমন্ত্রী জুনাইদ আহমেদ পলক উপস্থিত ছিলেন। হাছান মাহমুদ বলেন, ডিজিটাল বাংলাদেশের অপূর্ণতা ছিল-আমাদের একটি স্যাটেলাইট ছিল না, সেটি আমরা পেরেছি। এখন সাশ্রয়ী মূল্যে বঙ্গবন্ধু স্যাটেলাইটের মাধ্যমে টিভি চ্যানেলগুলো সমপ্রচার এবং ব্যাংকগুলো ব্যাংকিং সেবা দিতে পারবে। মোস্তাফা জব্বার বলেন, স্যাটেলাইটের এখন পর্যন্ত বড় কোনো ধরণের সমস্যা পাওয়া যায়নি। আমাদের ছেলেরাই এটি পরিচালনা করছে।
তিনি বলেন, আমরা বঙ্গবন্ধু স্যাটেলাইট-২ নিয়ে কাজ করছি।

কারণ এটা আমাদের নির্বাচনী ইশতেহারে উল্লেখ করেছি। জুনাইদ আহমেদ পলক বলেন, বঙ্গবন্ধু স্যাটেলাইটের মাধ্যমে টেলিভিশনগুলোর খরচ কমে যাবে তেমনি দুর্গম এলাকাতে ইন্টারনেট সেবা পৌঁছে দেয়া যাবে। ২০২১ সালের মধ্যে ৭৭২টি প্রত্যন্ত দূর্গম এলাকা স্যাটেলাইট সংযোগের মধ্যে আসবে। বাংলাদেশ কমিউনিকেশন স্যাটেলাইট কোম্পানি লিমিটেডের (বিসিএসসিএল) চেয়ারম্যান ড. শাহজাহান মাহমুদ বলেন, টেলিভিশন চ্যানেলগুলো যে দামে বাইরে থেকে ব্যান্ডউইথ কেনে তার থেকে কম দামে কিনতে পারবেন। অনুষ্ঠানে উপস্থিত ছিলেন তথ্যসচিব আবদুল মালেক, আইসিটি বিভাগের সচিব এন এম জিয়াউল আলম, ডাক ও টেলিযোগাযোগ বিভাগের সচিব অশোক কুমার বিশ্বাস। টেলিভিশন চ্যানেলের আর্থ স্টেশন স্থাপন অনেক ব্যয়বহুল হওয়ায় বিএস-১-এর ভূ-কেন্দ্রের সঙ্গে অপটিক্যাল ফাইবারের মাধ্যমে সংযোগ স্থাপন করছে বিসিএসসিএল। বিএস-১ থেকে সেবা পেতে চ্যানেলগুলোর কোনো রকম আর্থ স্টেশন স্থাপনের প্রয়োজন হবে না। গত বছর ১২ই মে বিশ্বের ৫৭তম দেশ হিসেবে বাংলাদেশ স্যাটেলাইট উৎক্ষেপণ করে। গত বছরের ৪ঠা সেপ্টেম্বর থেকে সাউথ এশিয়ান ফুটবল ফেডারেশন (এসএএফএফ) চ্যাম্পিয়নশিপ ম্যাচটি পরীক্ষামূলক সমপ্রচার করে। এরপর পর্যায়ক্রমে বিভিন্ন চ্যানেলের সঙ্গে সংযোগ স্থাপনের মাধ্যমে পরীক্ষামূলকভাবে সম্প্রচার করা হয়।

অবশ্যই দিতে হবে *
অবশ্যই দিতে হবে *
অন্যান্য খবর