× প্রচ্ছদ অনলাইনপ্রথম পাতাশেষের পাতাখেলাবিনোদনএক্সক্লুসিভভারতবিশ্বজমিনবাংলারজমিনদেশ বিদেশশিক্ষাঙ্গনরকমারিপ্রবাসীদের কথাবই থেকে নেয়া তথ্য প্রযুক্তি শরীর ও মন চলতে ফিরতে ষোলো আনা ইলেকশন কর্নার মন ভালো করা খবর
ঢাকা, ২০ অক্টোবর ২০১৯, রবিবার

ঈদে ইউটিউব বনাম টিভি চ্যানেল

বিনোদন

এন আই বুলবুল | ২২ মে ২০১৯, বুধবার, ৯:১৩

ঈদের বাকি আর বেশিদিন নেই। এরইমধ্যে সবার প্রস্তুতি শেষের দিকে। আর শেষ মুহূর্তে খুব ব্যস্ত সময় পার করছেন নাটকের শিল্পী ও নির্মাতারা। ঈদের আগের দিন পর্যন্তও এদের অনেকেই ব্যস্ত থাকবেন বলে জানা যায়। কারণ, এই সময়ে টিভি চ্যানেলের পাশাপাশি বাড়ছে ইউটিউব চ্যানেলের সংখ্যা। ঈদে এবার টেলিভিশনের বাইরে প্রায় ২০টি ইউটিউব চ্যানেলে শতাধিক নাটক ও টেলিছবি আসবে। উল্ল্যেখযোগ্য চ্যানেলগুলো হলো সাউন্ডটেক, বঙ্গবিডি, বঙ্গবুম, ডেডলাইন এন্টারটেইনমেন্ট, সিনেমাওয়ালা, সিডি চয়েস, ঈগলস, ধ্রুব টিভি, সেভেন টিউনস এন্টারটেইনমেন্ট, এফ-থ্রি ও নাটক বক্স ইত্যাদি। এই চ্যানেলগুলোতে বরাবরই থাকছে জনপ্রিয় শিল্পীদের কনটেন্ট।
বিশেষ করে অপূর্ব, আফরান নিশো, মেহজাবিন, তানজিন তিশা, আখম হাসান, সাবিলা নুরসহ বেশ কয়েকজন শিল্পীর নাটকের দিকে ইউটিউব চ্যানেলগুলোর নজর বেশি। ভিউয়ারদের কাছেও এই শিল্পীদের নাটক এগিয়ে থাকে সব সময়। তবে টিভি চ্যানেলেগুলোতেও এই শিল্পীদের চাহিদা কম নয়। এদের পাশাপাশি টিভি চ্যানেলগুলোতে থাকছে জনপ্রিয় অভিনেতা জাহিদ হাসান, চঞ্চল চৌধুরী, মোশাররফ করিম, মীর সাব্বির, নুসরাত ইমরোজ তিশা, মম, ভাবনা, ঈশানা, অহনা, জোভান, তৌসিফ, সাফা কবির, শামিম জামান ও অর্ষাসহ বেশ কিছু শিল্পীর নাটক। এখন অপেক্ষা  শুধু ঈদের। দেখার বিষয় দর্শকের কাছে ইউটিউব নাকি টিভি চ্যানেল কোন মাধ্যমের নাটকগুলো গ্রহণযোগ্যতা বেশি পাবে। এদিকে এই ঈদে আড়াল ভেঙ্গে দর্শকের সামনে আসছেন জনপ্রিয় অভিনেত্রী সারিকা। চ্যানেল আইয়ের ‘চুল তার কবে কার’ শিরোনামের একটি টেলিফিল্মে এই অভিনেত্রীকে দেখা যাবে। টেলিফিল্মটি নির্মাণ করেছেন তুহীন হোসেন। ঈদের বেশ কিছু ধারাবাহিক নাটকে থাকছেন জনপ্রিয় অভিনেত্রী নুসরাত ইমরোজ তিশা। ঈদের জন্য তিনি শেষ করেছেন মাসুদ সেজানের ‘ঈদ ধামাকা অফার’, সাগর জাহানের ‘সৌদি গোলাপ’ ও ‘তালমিছরি না হাওয়া মিঠাই’ শিরোনামের ধারাবাহিকগুলো। এছাড়া ঈদে খণ্ড নাটকেও দেখা যাবে তিশাকে। জাহিদ হাসানকে দেখা যাবে শেখ সেলিমের নাটক ‘মামুন মামা’ এবং সাগর জাহানের ‘সৌদি গোলাপ’, ‘ডায়বেটিস’ ও ‘আলাল-দুলাল’সহ বেশ কিছু নাটকে। আফরান নিশো ও তানজিন তিশা থাকছেন ‘ক্রেজি লাভার, ‘ব্রেকআপ’, ‘ফ্রেন্ডস ভার্সেস টিচার’, ‘ফিরে আসি বারবার’, ‘দেখা হবে আবারও’, ‘মাকে দেওয়া কথাটা’ শীর্ষক নাটকগুলোতে। আনিসুর রহমান মিলনের অভিনয়ে প্রচার হবে নাটক ‘আব্বা উকিল ডাকবো’ ও ‘আইজু দ্যা ভাই’। সালাহউদ্দিন লাভলুর পরিচালনায় ঈদে থাকছে দু’টি নাটক। এরমধ্যে একটি হলো সাত পর্বের অন্যটি খণ্ড নাটক। নাটক দুটি হলো ‘হানিমুন হবে কক্সবাজারে’ ও ‘আবার দেখা হলে’। জনপ্রিয় অভিনেত্রী মমকে দেখা যাবে শিহাব শাহিনের ‘বাউন্ডুলে’ ও সুমন আনোয়ারের ‘অন্ধকার ঢাকা’সহ বেশ কিছু নাটকে। মৌসুমী হামিদ শেষ করেছেন ফরিদুল হাসানের ‘বউয়ের দোয়া পরিবহন’ ও তরিকুল ইসলামের ‘আমি তো সে না’ শিরোনামের দু’টি ধারাবাহিক ও শহীদুন নবীর ‘কন্যা বিবাহ যোগ্য নহে’সহ কয়েকটি খণ্ড নাটকের শুটিং। জনপ্রিয় অভিনেত্রী ফারহানা মিলির অভিনয়ে প্রচার হবে দুটি সাত পর্বের ধারাবাহিক নাটক। এগুলোর একটি কায়সার আহমেদের নির্দেশনায় ‘প্রেমের দুষ্টুচক্র’ এবং অন্যটি অসীম গোমেজের ‘রং চা’। মেহজাবিন ঈদে থাকছেন মহিদুল মহিনের ‘আনোয়ার দ্য প্রোডাকশন বয়’, মিজানুর রহমান আরিয়ানের ‘প্রতি বৃহাস্পতিবার সন্ধ্যা সাতটা’সহ একাধিক নাটকে। জনপ্রিয় অভিনেতা সজল থাকবেন ‘তোতামিয়ার হানিমুন’, ‘দোস্ত দুশমন’, ‘কানা মাছি’, ‘আহত বেলি ফুল ও সুগন্ধী কলোনি’ এবং ‘বাম দিক থেকে চলুন’সহ একাধিক নাটকে। এদিকে এক বছর পর এবার ঈদে দু’টি নাটক নিয়ে অভিনয়ের ফিরলেন নাদিয়া মিম। নাটক দু’টি হলো ‘প্রিয়ন্তি’ ও ‘রোদেলা বৃষ্টি’। দু’টি নাটকেই এ অভিনেত্রী জুটি বেঁধেছেন এফ এস নাঈমের সঙ্গে। নাটক দু’টি নির্মাণ করেছেন সরদার রোকন।

অবশ্যই দিতে হবে *
অবশ্যই দিতে হবে *
অন্যান্য খবর