× প্রচ্ছদ অনলাইনপ্রথম পাতাশেষের পাতাখেলাবিনোদনএক্সক্লুসিভভারতবিশ্বজমিনবাংলারজমিনদেশ বিদেশশিক্ষাঙ্গনরকমারিপ্রবাসীদের কথাবই থেকে নেয়া তথ্য প্রযুক্তি শরীর ও মন চলতে ফিরতে ষোলো আনা ইলেকশন কর্নার
ঢাকা, ২৭ জুন ২০১৯, বৃহস্পতিবার

ম্যাচমেকার শারদ পাওয়ার

বিশ্বজমিন

মানবজমিন ডেস্ক | ২২ মে ২০১৯, বুধবার, ৩:১২

ভারতের বিরোধী দলীয় নেতারা একে অন্যের সঙ্গে ফোনে ব্যস্ত। বিভিন্ন গ্রুপের রাজনৈতিক দলের নেতাদের মধ্যে ম্যারাথন যোগাযোগ হচ্ছে। উদ্দেশ্য বিজেপি নেতৃত্বাধীন এনডিএ জোট সংখ্যাগরিষ্ঠতা না পেলে তাদের করণীয় নির্ধারণ। এর মধ্যে আলোচনায় রয়েছেন মহারাষ্ট্রের রাজনীতিক শারদ পাওয়ার। বিভিন্ন দলের নেতাদের মধ্যে ম্যাচমেকার হিসেবে ভূমিকা রাখছেন তিনি। এমন সব দলকে তিনি একসঙ্গে আলোচনায় আনছেন, যারা একপক্ষ অন্য পক্ষের ঘোর বিরোধী। শারদ পাওয়ার এরই মধ্যে যোগাযোগ করেছেন কংগ্রেস নেতা জগমোহন রেড্ডি, তেলেঙ্গনা রাষ্ট্র সমিতির নেতা ও মুখ্যমন্ত্রী কে চন্দ্রশেখর রাও, ওড়িশার মুখ্যমন্ত্রী নবীন পট্টনায়েকের সঙ্গে। এরই মধ্যে এসব নেতার সঙ্গে ফোনে কথা বলেছেন শারদ পাওয়ার।  যদি কংগ্রেস নেতৃত্বাধীন ইউনাইটেড প্রোগ্রেসিভ এলায়েন্স (ইউপিএ) স্থিতিশীল সরকার গঠন করার মতো আসন পায় তাহলে তাদেরকে সমর্থন করবেন নবীন পট্টনায়েক ও চন্দ্রশেখর রাও।
এই প্রতিশ্রুতি তিনি আদায় করতে পেরেছেন। এ ছাড়া চন্দ্রবাবু নাইডুর সঙ্গেও যোগাযোগ করেছেন বর্ষীয়ান রাজনীতিক শারদ পাওয়ার। সম্প্রতি চন্দ্রবাবু নাইডু একই লক্ষ্যে যোগাযোগ করেছেন পশ্চিমবঙ্গের মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়, উত্তর প্রদেশের জোট সঙ্গী ময়াবতী, অখিলেশ যাদব, কংগ্রেস নেতা রাহুল গান্ধী ও সোনিয়া গান্ধীর সঙ্গে। মঙ্গলবার তিনি সাক্ষাত করেছেন কর্নাটকের মুখ্যমন্ত্রী এইচডি কুমারাস্বামী ও তার পিতা সাবেক প্রধানমন্ত্রী দেবে গৌড়ার সঙ্গে।

অবশ্যই দিতে হবে *
অবশ্যই দিতে হবে *
অন্যান্য খবর