× প্রচ্ছদ অনলাইনপ্রথম পাতাশেষের পাতাখেলাবিনোদনএক্সক্লুসিভভারতবিশ্বজমিনবাংলারজমিনদেশ বিদেশশিক্ষাঙ্গনরকমারিপ্রবাসীদের কথাবই থেকে নেয়া তথ্য প্রযুক্তি শরীর ও মন চলতে ফিরতে ষোলো আনা ইলেকশন কর্নার মন ভালো করা খবর
ঢাকা, ২০ অক্টোবর ২০১৯, রবিবার

প্রতিদ্বন্দ্বিতাপূর্ণ বিশ্বকাপ দেখছেন তারা

খেলা

স্পোর্টস ডেস্ক | ২৫ মে ২০১৯, শনিবার, ৯:৩৫

১০ দল, ১ ট্রফির ওয়ানডে বিশ্বকাপ লড়াইটা শুরু হবে ৩০শে মে। রাউন্ড রবিন লীগ পদ্ধতির কারণে এবারের আসর অনেক জমজমাট আর প্রতিদ্বন্দ্বিতাপূর্ণ হবে বলে মনে করছেন সুনীল গাভাস্কার, শচিন টেন্ডুলকার, কুমার সাঙ্গাকারার মতো গ্রেটরা। ১০ দলের অধিনায়কের মুখেও শোনা গেল একই কথা। তারা বলছেন, এবার প্রতিটি দলই ভারসাম্যপূর্ণ। প্রতিযোগিতটাও তাই দারুণ জমবে।
২০১৯ বিশ্বকাপে অন্যতম ফেভারিট দুবারের চ্যাম্পিয়ন ভারত। তবে দলের অধিনায়ক বিরাট কোহলি অন্যদের সমীহ করছেন। তিনি বলেন, ‘নিজেদের কন্ডিশনের কারণে এই টুর্নামেন্টে ইংল্যান্ড সবচেয়ে শক্তিশালী দল। তবে বাকি দলগুলোও শক্তিশালী এবং দারুণ ভারসাম্যপূর্ণ।
আর আমাদের সবাইকে একবার করে প্রত্যেকের সঙ্গে খেলতে হবে। আমি মনে করি, এটাই হবে সবচেয়ে প্রতিদ্বন্দ্বিতাপূর্ণ বিশ্বকাপ, যা আগে কেউ কখনো দেখেনি।’ ২০১৭ সালে ইংল্যান্ডে চ্যাম্পিয়নস ট্রফি জয়ী পাকিস্তানি অধিনায়ক সরফরাজ আহমেদও তাই বললেন, ‘সব দল সত্যিই ভারসাম্যপূর্ণ। আমার মনে হয়, দর্শকরা সেরা ক্রিকেট ম্যাচগুলো দেখতে যাচ্ছে।’
১৯৯২ সালের প্রথমবার রাউন্ড রবিন লীগ পদ্ধতি অনুসরণ করা হচ্ছে। এই ফরমেট নিয়ে রোমাঞ্চিত দক্ষিণ আফ্রিকার অধিনায়ক ফাফ ডু প্লেসি। তিনি বলেন, ‘নতুন ফরমেটের টুর্নামেন্টে ভালো কিছুর চেষ্টা করতে আমরা সবাই উন্মুখ হয়ে আছি। প্রত্যেককে একবার করে খেলা সত্যিই দারুণ।’ রোমাঞ্চিত নিউজিল্যান্ড অধিনায়ক কেন উইলিয়ামসনও। তিনি বলেন, ‘র‌্যাঙ্কিং, ফেভারিট, আন্ডারডগ নিয়ে অনেক কথা হচ্ছে কিন্তু আসল কথা হচ্ছে কতটা ভারসাম্যপূর্ণ। যে কোনও কিছু ঘটতে পারে এবার, এটাই রোমাঞ্চ জাগাচ্ছে।’ ওয়েস্ট ইন্ডিজ অধিনায়ক জেসন হোল্ডার বলছেন, ‘এটা খুবই উত্তেজনাকর ফরমেট। অতীতে আমরা পাঁচটি বা ছয়টি ম্যাচ খেলেছি। কিন্তু এবার অন্য ব্যাপার। প্রত্যেক দলের বিপক্ষে খেলা আমাদের জন্য দারুণ।’
রাউন্ড রবিন লীগের কারণে আফগানিস্তানও এবার অন্তত ৯টি ম্যাচ খেলার সুযোগ পাচ্ছে। দলীয় অধিনায়ক গুলবাদিন নাইবের যেন তর সইছে না। তিনি বলেন, এখানে এসে আমরা রোমাঞ্চিত। ক্রিকেট বিশ্বের সামনে সেরা দলগুলোকে খেলতে পারা অসাধারণ ব্যাপার। বিশ্বের সামনে আফগানিস্তানকে তুলে ধরা দারুণ এবং আমরা উন্মুখ হয়ে আছি।

অবশ্যই দিতে হবে *
অবশ্যই দিতে হবে *
অন্যান্য খবর