× প্রচ্ছদ অনলাইনপ্রথম পাতাশেষের পাতাখেলাবিনোদনএক্সক্লুসিভভারতবিশ্বজমিনবাংলারজমিনদেশ বিদেশশিক্ষাঙ্গনরকমারিপ্রবাসীদের কথাবই থেকে নেয়া তথ্য প্রযুক্তি শরীর ও মন চলতে ফিরতে ষোলো আনা ইলেকশন কর্নার
ঢাকা, ২৪ জুন ২০১৯, সোমবার

সরকার গঠনের দাবি জানালেন মোদি

ভারত

পরিতোষ পাল, কলকাতা থেকে | ২৫ মে ২০১৯, শনিবার, ৯:৩৩

ভারতে নতুন সরকার গঠনের আনুষ্ঠানিক দাবি জানিয়েছেন জাতীয় গণতান্ত্রিক জোটের (এনডিএ) নেতা নরেন্দ্র দামোদরদাস মোদি। আজ রাতে রাষ্ট্রপতি ভবনে ভারতের রাষ্ট্র্রপতি রামনাথ কোবিন্দের সঙ্গে দেখা করে দেশের বৃহত্তম জোটের নেতা হিসেবে সরকার গঠন করার দাবি জানিয়েছেন তিনি। তবে কবে নাগাদ প্রধানমন্ত্রী হিসেবে মোদি শপথ নেবেন তা এখনো ঘোষণা করা হয়নি। বিভিন্ন সূত্রে জানা গেছে, ২৮ কিংবা ৩০শে মে সরকার গঠিত হতে পারে। এদিন সন্ধ্যাতেই সংসদের সেন্ট্রাল হলে বিজেপিসহ এনডিএ-র সব শরিক দলের নির্বাচিত জনপ্রতিনিধিরা এনডিএ-এর সংসদীয় দলের নেতা নির্বাচিত করেছেন নরেন্দ্র মোদিকে। বিজেপি-র সর্বভারতীয় সভাপতি আমিত শাহ নরেন্দ্র মোদির নাম প্রস্তাব করেছিলেন। তারপরেই সকলে মোদিকে সমর্থন করেছেন। এবারের নির্বাচনে বিজেপির নেতৃত্বাধীন এনডিএ জোট রেকর্ড ৩৫৪টি আসন পেয়ে নিরঙ্কুশ গরিষ্ঠতা অর্জন করেছে।
জানা গেছে, মোদি রাষ্ট্রপতির সঙ্গে দেখা করার আগে এনডিএ-র শরিক দলের নেতারা আলাদাভাবে রামনাথ কোবিন্দের সঙ্গে দেখা করে মোদির প্রতি তাদের সমর্থনের কথা আনুষ্ঠানিকভাবে জানিয়েছেন। এদিকে এদিন বিকালেই নির্বাচন কমিশনের তিন কমিশনার রাষ্ট্রপতির হাতে তুলে দিয়েছেন লোকসভার ৫৪২টি আসনে নির্বাচিত জনপ্রতিনিধিদের পূর্ণাঙ্গ তালিকা। সেইসঙ্গে জনপ্রতিনিধিত্ব আইনের ধারা অনুযায়ী নির্বাচিত জনপ্রতিনিধিদের নামের যে বিজ্ঞপ্তি প্রকাশ করা হয়েছে তারও অনুলিপি তুলে দিয়েছেন।

এদিকে, সপ্তদশ লোকসভা এবং নতুন সরকার গঠনের পথ প্রশস্ত করতে ভারতের ষোড়শ লোকসভা ইতিমধ্যেই ভেঙে দেয়া হয়েছে। গতকাল রাষ্ট্রপতি ভবনের এক বিবৃতিতে বলা হয়েছে, প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদির নেতৃত্বাধীন মন্ত্রিসভার সুপারিশ অনুযায়ী ষোড়শ লোকসভা ভেঙে দেয়া হয়েছে। বলা হয়েছে, শুক্রবার ভারতের মন্ত্রিসভা লোকসভা ভেঙে দেবার যে সুপারিশ পাঠিয়েছেন তাকে রাষ্ট্রপতি গ্রহণ করেছেন। সেইসঙ্গে আরো জানানো হয়েছে, রাষ্ট্রপতি প্রধানমন্ত্রী ও তার মন্ত্রিসভার সদস্যদের পদত্যাগপত্রও গ্রহণ করেছেন। তবে তাদের সরকার গঠন না হওয়া পর্যন্ত কেয়ারটেকার হিসেবে কাজ চালিয়ে যেতে বলেছেন। অন্যদিকে জানা গেছে, প্রোটেম স্পিকার নির্বাচিত হতে চলেছেন বেরিলি থেকে নির্বাচিত প্রবীণ সংসদ সদস্য সন্তোষ কুমার গাঙ্গোয়ার। তিনিই নবনির্বাচিত সংসদ সদস্যদের শপথবাক্য পাঠ করাবেন।

অবশ্যই দিতে হবে *
অবশ্যই দিতে হবে *
অন্যান্য খবর