× প্রচ্ছদ অনলাইনপ্রথম পাতাশেষের পাতাখেলাবিনোদনএক্সক্লুসিভভারতবিশ্বজমিনবাংলারজমিনদেশ বিদেশশিক্ষাঙ্গনরকমারিপ্রবাসীদের কথাবই থেকে নেয়া তথ্য প্রযুক্তি শরীর ও মন চলতে ফিরতে ষোলো আনা ইলেকশন কর্নার
ঢাকা, ১৭ জুন ২০১৯, সোমবার

অজিত দোভালের মেয়াদ বাড়ল, পাচ্ছেন মন্ত্রীর মর্যাদা

ভারত

কলকাতা প্রতিনিধি | ৩ জুন ২০১৯, সোমবার, ৭:২৪

ভারতের  জাতীয় নিরাপত্তা উপদেষ্টা অজিত দোভালের মেয়াদ আরও ৫ বছর বাড়ানো হয়েছে। সেই সঙ্গে দোভালকে কেবিনেট মন্ত্রীর মর্যাদা দেওযা হয়েছে। সরকারের পক্ষ থেকে বলা হয়েছে, জাতীয় নিরাপত্তার ক্ষেত্রে তাঁর অবদানের স্বীকৃতি হিসেবে তাঁকে মšী¿র মর্যাদা দেওয়া হযেছে।  আগামী পাঁচ বছর তিনি আগের মতোই জাতীয় নিরাপত্তা উপদেষ্টা হিসেবে কাজ করবেন। গত সপ্তাহে নরেন্দ্র মোদী দ্বিতীয় বারের জন্য প্রধানমন্ত্রী হিসেবে শপথ গ্রহণ করেছেন। পাশাপাশি তাঁর অমিত শাহ নতুন স্বরাষ্ট্র মন্ত্রী হয়েছেন। আর গতবারের স্বরাষ্ট্র মন্ত্রী রাজনাথ সিংহকে প্রতিরক্ষা মন্ত্রী করা হয়েছে। তখন থেকেই গুঞ্জন শোনা যাচ্ছিল অজিত ডোভালের প্রযোজনীয়তা নিয়ে। শেষপর্যন্ত সেই গুঞ্জনের অবসান হয়েছে।
জাতীয় নিরাপত্তা উপদেষ্টা অজিত ডোভালের অধীনে রয়েছে সন্ত্রাস-বিরোধী এবং বিভিন্ন গোয়েন্দা সংস্থার কার্যক্রম। দেশের সবথেকে গুরুত্বপূর্ণ আধিকারিকদের মধ্যে তিনি অন্যতম। ১৯৬৮ সালের ব্যাচের এই ইন্ডিয়ান পুলিশ সার্ভিস অফিসার ইন্টেলিজেন্স ব্যুরোর সাবেক প্রধান ছিলেন। অনেক গোপন অপরেশনে তিনি নেতৃত্বও দিযেছেন। ২০১৬ সালে উরি হামলার পর পাকিস্তানের অভ্যন্তরে সার্জিক্যাল স্ট্রাইক এবং গত বছরের পুলওয়ামার জঙ্গী হানার পর বালকোটে বিমান হানা গোট বিষয়টি তত্ত্বাবধানের দায়িত্বে ছিলেন অজিত দোভাল। ভারতের ত্রি-স্তরীয় অভ্যন্তরীণ প্রতিরক্ষা ব্যবস্থায় জাতীয় নিরাপত্তা পরিষদের নেতৃত্ব দেন প্রধানমন্ত্রী। এছাড়াও একটি কৌশল নির্ণায়ক গ্রুপ ও একটি জাতীয় নিরাপত্তা উপদেষ্টা বোর্ড রয়েছে। অজিত ডোভাল জাতীয় নিরাপত্তা পরিষদের সচিব হিসেবে কাজ করেন। ত^ার প্রধান কাজই হচ্ছে অভ্যন্তরীণ এবং বৈদেশিক ক্ষেত্রে যে সব হুমকি রয়েছে সেগুলি সম্পর্কে প্রধানমন্ত্রীকে নিয়মিত পরামর্শ দেওয়া। উল্লেখ্য, ১৯৯৮ সালে  এই জাতীয নিরাপত্তা উপদেষ্টার পদটি তৈরি করা হয়েছিল। গতবার মোদী প্রথম ক্ষমতায় ্এসে অজিত দোভ্ালকে এই পদে বসিয়েছিলেন।

ভারতের ত্রি-স্তরীয় অভ্যন্তরীণ প্রতিরক্ষা ব্যবস্থায় জাতীয় নিরাপত্তা পরিষদের নেতৃত্ব দেন প্রধানমন্ত্রী। এছাড়াও একটি কৌশল নির্ণায়ক গ্রুপ ও একটি জাতীয় নিরাপত্তা উপদেষ্টা বোর্ড রয়েছে। অজিত ডোভাল জাতীয় নিরাপত্তা পরিষদের সচিব।

অবশ্যই দিতে হবে *
অবশ্যই দিতে হবে *
অন্যান্য খবর