× প্রচ্ছদ অনলাইনপ্রথম পাতাশেষের পাতাখেলাবিনোদনএক্সক্লুসিভভারতবিশ্বজমিনবাংলারজমিনদেশ বিদেশশিক্ষাঙ্গনরকমারিপ্রবাসীদের কথাবই থেকে নেয়া তথ্য প্রযুক্তি শরীর ও মন চলতে ফিরতে ষোলো আনা ইলেকশন কর্নার মন ভালো করা খবর
ঢাকা, ১৭ অক্টোবর ২০১৯, বৃহস্পতিবার

ফুটবলারদের লক্ষ্য এবার হোম মিশন

খেলা

স্পোর্টস রিপোর্টার | ৯ জুন ২০১৯, রবিবার, ৯:৪৯

লাওস থেকে জয় নিয়ে ফিরেছেন জামাল ভূঁইয়ারা। এবার লক্ষ্য হোম মিশন। লাওসের বিপক্ষে বিশ্বকাপ বাছাই পর্বের প্রথম রাউন্ড পার হতে হলে মঙ্গলবারের ম্যাচটি জিততে হবে বাংলাদেশকে। এখন সেই জয়ের প্রত্যাশায় নিজেদের শানিত করছেন ব্রিটিশ কোচ জেমি ডে’র শিষ্যরা। শুক্রবার গভীর রাতে ঢাকায় পৌঁছেই গতকাল বিকালে বঙ্গবন্ধু জাতীয় স্টেডিয়ামে অনুশীলন করেন জামাল, মামুনুলরা। আন্তর্জাতিক ফুটবলে অ্যাওয়ে ম্যাচে জয়টা খুব গুরুত্বপূর্ণ। বিশ্বকাপ বাছাইয়ে বাংলাদেশ লাওসে গিয়ে ১-০ গোলে জিতেছে। জেতার পরেও কোচ ও খেলোয়াড়রা নির্ভার নয়।
অধিনায়ক জামাল ভূঁইয়া কাল অনুশীলন শুরুর আগে বলেন, ‘আমাদের মাত্র ত্রিশ শতাংশ কাজ শেষ হয়েছে। আরো অনেক কিছু করতে হবে।’ মঙ্গলবার ফিরতি পর্বের ম্যাচ। এই ম্যাচে লাওস ২-১ গোলে জিতলে অ্যাওয়ে গোলের সুবাদে বিশ্বকাপ বাছাইয়ে খেলবে তারাই। অন্যদিকে সেই সুযোগ পেতে হলে বাংলাদেশের প্রয়োজন ন্যূনতম ড্র। তাই ম্যাচটিকে গুরুত্বের সঙ্গেই দেখছেন অধিনায়ক জামাল। ‘সামনের ম্যাচের উপর নির্ভর করছে আমরা আগামী তিন বছর বড় টুর্নামেন্ট ও ম্যাচ খেলতে পারব কিনা। এজন্য ফুটবলাররা সবাই সবার সেরাটা দিয়ে খেলেছে এবং মঙ্গলবার খেলবে’-বলেন তিনি। লাওসের বিরুদ্ধে জয়টা বাংলাদেশ কষ্ট করেই পেয়েছে স্বীকার করলেন জামাল, ‘প্রথমার্ধে লাওস দুর্দান্ত খেলেছে। দ্বিতীয়ার্ধে কোচ দু’টি পরিবর্তন করে ম্যাচের চিত্রটাই বদলে যায়।’ কোচ জেমি ডে গোলদাতা রবিউলের প্রশংসা করলেন, ‘রবিউল ভালো গোল করেছে। এই ধারাটা বজায় রাখতে হবে তাকে।’ জিতলেও লাওসকে খাটো করে দেখছেন না বাংলাদেশের কোচ, ‘তারা (লাওস) নিঃসন্দেহে ভালো দল। ঘুরে দাঁড়ানোর সামর্থ্য রয়েছে। প্রথমার্ধে তো তারা অনেক চাপ দিয়েছিল আমাদের ওপর। আমরা এখন দ্বিতীয় লেগের জন্য নিজেদের প্রস্তুতি নিচ্ছি।’ লাওস দলের একাংশ গতকাল দুপুরে বাংলাদেশে এসে পৌঁছেছে। মধ্যরাতে বাকি দলের সদস্যদের পৌঁছানোর কথা। তবে মঙ্গলবার দ্বিতীয় লেগে ম্যাচের কৌশল নিয়ে খোলাসা করে কিছু বললেন না কোচ, ‘ফিরতি লেগের ম্যাচের পরিকল্পনা সাজাচ্ছি। এখনো অনেক কিছু ভাবার আছে।’

অবশ্যই দিতে হবে *
অবশ্যই দিতে হবে *
অন্যান্য খবর