× প্রচ্ছদ অনলাইনপ্রথম পাতাশেষের পাতাখেলাবিনোদনএক্সক্লুসিভভারতবিশ্বজমিনবাংলারজমিনদেশ বিদেশশিক্ষাঙ্গনরকমারিপ্রবাসীদের কথাবই থেকে নেয়া তথ্য প্রযুক্তি শরীর ও মন চলতে ফিরতে ষোলো আনা ইলেকশন কর্নার মন ভালো করা খবর
ঢাকা, ১৭ অক্টোবর ২০১৯, বৃহস্পতিবার

সুনামগঞ্জে শিশু ধর্ষণ, অভিযুক্ত আটক

বাংলারজমিন

সুনামগঞ্জ প্রতিনিধি | ১১ জুন ২০১৯, মঙ্গলবার, ৮:৩৩

চকলেট দেয়ার কথা বলে সুনামগঞ্জ শহরের মল্লিকপুরে প্রথম শ্রেণিতে পড়ুয়া এক শিশুকে ধর্ষণ করেছে রুহুল আমিন নামে এক বখাটে। গত রোববার রাতে ওই শিশুকে ডাক্তারি পরীক্ষার জন্য সুনামগঞ্জ সদর হাসপাতালে ভর্তি করা হয়েছে। রাতেই অভিযান চালিয়ে পুলিশ বখাটে রুহুল আমিনকে আটক করেছে। গতকাল অভিযুক্তকে আদালতে সোপর্দ করে পুলিশ। এলাকাবাসী সূত্রে জানা গেছে, শনিবার রাত ৮টার দিকে নিজ বসত-বাড়ির রাস্তায় ছিল বিধবা দিনমজুর নারীর পিতৃহীন কন্যা। এ সময় প্রতিবেশী তেরাব আলীর বখাটে ছেলে রুহুল আমিন ওই শিশুকে চকলেট দেয়ার কথা বলে তার বসতঘরে ডেকে নেয়। ওই সময় বসতঘরে কেউ ছিল না। এই সুযোগে তাকে জোরপূর্বক ধর্ষণ করে বখাটে রুহুল আমিন।
আসার সময় এ ঘটনা কাউকে না বলার জন্য হুমকি দেয়। পরে ওই শিশুকন্যা নিজ বসতঘরে এসে ঘুমিয়ে পড়ে। রাতে তার জ্বর ওঠে ও প্রচণ্ড ব্যথা শুরু হয়। দিনমজুর বিধবা মা ঘটনা জানতে চাইলে সে বখাটের হুমকির বিষয়টি মনে করে চেপে যায়। রোববার বিকালে মেয়েটি তার ভাবির কাছে এ ঘটনা খুলে বললে ওই নারী তাৎক্ষণিকভাবে শিশুর মাকে বিষয়টি জানান। এ সময় তিনি মেয়েকে সুনামগঞ্জ সদর হাসপাতালে নিয়ে আসতে চাইলে রুহুল আমিনের স্বজনরা তাদেরকে হাসপাতালে আসতে বারণ করে। একপর্যায়ে তাদের অবরুদ্ধ করে রাখে। এ সময় আশপাশের মানুষ জড়ো হলে তারা অসুস্থ মেয়েকে হাসপাতালে চিকিৎসা দেয়ার কথা বলেন। এই খবর মহিলা পরিষদ ও স্থানীয় কাউন্সিলর জানতে পারায় ভিকটিমের মাকে হাসপাতালে চিকিৎসা নেয়ার কথা জানান। রোববার রাত ৮টার দিকে শিশু কন্যাকে সদর হাসপাতালে ভর্তি করিয়েছেন মা। এদিকে মেয়েকে হাসপাতালে ভর্তি করার পর বখাটের পরিবার হুমকি ধমকি দিচ্ছে বলে অভিযোগ করেছেন তিনি। ওই শিশুকন্যার মা বলেন, আমার মেয়েকে চকলেট দেয়ার কথা বলে বখাটে রুহুল আমিন ধর্ষণ করেছে। হাসপাতালে আসতে আমাকে বারণ করা হয়েছে এবং হুমকি দেয়া হয়েছে। সুনামগঞ্জ সদর মডেল থানার ওসি মোহাম্মদ শহীদুল্লাহ বলেন, খবর পেয়ে আমি হাসপাতালে পুলিশ পাঠিয়েছি। অভিযুক্তকে আটক করা হয়েছে।


অবশ্যই দিতে হবে *
অবশ্যই দিতে হবে *
অন্যান্য খবর