× প্রচ্ছদ অনলাইনপ্রথম পাতাশেষের পাতাখেলাবিনোদনএক্সক্লুসিভভারতবিশ্বজমিনবাংলারজমিনদেশ বিদেশশিক্ষাঙ্গনরকমারিপ্রবাসীদের কথাবই থেকে নেয়া তথ্য প্রযুক্তি শরীর ও মন চলতে ফিরতে ষোলো আনা ইলেকশন কর্নার মন ভালো করা খবর
ঢাকা, ২৩ সেপ্টেম্বর ২০১৯, সোমবার

শাহজাদপুরে প্রতিবন্ধী কিশোরি ধর্ষণের শিকার

বাংলারজমিন

শাহজাদপুর (সিরাজগঞ্জ) প্রতিনিধি | ১১ জুন ২০১৯, মঙ্গলবার, ৮:৩৩

শাহজাদপুর উপজেলার পল্লী অঞ্চল কৈজুরি ইউনিয়নের জয়পুরা গ্রামের রিকশা চালকের বুদ্ধি প্রতিবন্ধী মেয়েকে (১৫) একই গ্রামের আমিরুল ইসলামের কলেজ পড়ুয়া ছেলে আব্দুল মমিন মুন্না (২২) ফুসলিয়ে যমুনা নদীর ধারের কাঁশবনে নিয়ে জোরপূর্বক ধর্ষণ করেছে। এ ঘটনায় গত ৯ই জুন। এ দিন দুপুরে ধর্ষিতার বাবা বাদী হয়ে শাহজাদপুর থানায় ধর্ষক আব্দুল মমিন মুন্না (২২) কে একমাত্র আসামি করে নারী ও শিশু নির্যাতন দমন আইনে একটি দায়ের মামলা করেছেন। এ দিনই আদালতের নির্দেশে ভিকটিমের মেডিকেল পরীক্ষা সম্পন্ন করা হয়েছে। ধর্ষিতার মা জানান, গত ৭ই জুন শুক্রবার বিকেলে বাড়ির পাশের যমুনা নদীর ধারের চর থেকে ছাগল আনতে যায় তার মেয়ে। সেখানে আগে থেকে উপস্থিত মমিন তাকে ফুসলিয়ে পাশের কাঁশবনে নিয়ে জোরপূর্বক ধর্ষণ করে। বাড়ি ফিরতে দেরি দেখে রত্নার দাদি ফজিলা খাতুন ঘটনাস্থলে পৌঁছে তাকে বিবস্ত্র অবস্থায় উদ্ধার করে বাড়ি নিয়ে যান। অপরদিকে লম্পট মমিন তার আগমন টের পেয়ে বিবস্ত্র অবস্থায় দৌড়ে পালিয়ে যায়। ওই রাতেই বিষয়টি গ্রাম প্রধানদের জানালে তারা সালিশ বৈঠকের চেষ্টা করে ব্যর্থ হয়।
ফলে নিরুপায় হয়ে তারা থানায় মামলা দায়ের করে। এ ঘটনার পর থেকে মমিন ও তার বাবা মা পলাতক রয়েছে। এ ব্যাপারে শাহজাদপুর থানার অফিসার ইনচার্জ আতাউর রহমান বলেন, মামলার তদন্ত চলছে। আসামিকে গ্রেপ্তারে অভিযান অব্যহত রয়েছে।

অবশ্যই দিতে হবে *
অবশ্যই দিতে হবে *
অন্যান্য খবর