× প্রচ্ছদ অনলাইনপ্রথম পাতাশেষের পাতাখেলাবিনোদনএক্সক্লুসিভভারতবিশ্বজমিনবাংলারজমিনদেশ বিদেশশিক্ষাঙ্গনরকমারিপ্রবাসীদের কথাবই থেকে নেয়া তথ্য প্রযুক্তি শরীর ও মন চলতে ফিরতে ষোলো আনা ইলেকশন কর্নার
ঢাকা, ২০ জুন ২০১৯, বৃহস্পতিবার

নোয়াখালীতে শিক্ষার্থী অপহরণের ৪ দিনেও উদ্ধার হয়নি

বাংলারজমিন

স্টাফ রিপোর্টার, নোয়াখালী থেকে | ১১ জুন ২০১৯, মঙ্গলবার, ৯:০৫

নোয়াখালীতে মাদ্রাসা ছাত্রীকে অপহরণের ৪ দিনেও পুলিশ উদ্ধার করতে পারেনি। ঘটনাটি ঘটেছে  জেলার সোনাইমুড়ির ৫নং অম্বর নগর ইউপির ওয়াছেকপুর গ্রামের মজিবুল হক পাটোওয়ারী বাড়িতে গত শুক্রবার বিকেল সাড়ে ৪টায়। পুলিশ ও এলাকাবাসী জানায়,  উত্তর ওয়াছেকপুর বালিকা দাখিল মাদ্রাসা হতে চলতি বছর সুরাইয়া আক্তার স্বর্ণা পরীক্ষায় উত্তীর্ণ হয়ে কলেজে ভর্তির অপেক্ষায় বাড়িতে অবস্থান করছে। অপহৃত কন্যার মাতা শাহিন আক্তার জানায় প্রতিবেশি আবদুল হালিম মিন্টু ও সেতারা বেগমের বখাটে সন্ত্রাসী পুত্র মো. সাদ্দাম হোসেন (৩৪) দীর্ঘ দিন থেকে ভিকটিমকে বিভিন্ন সময়  মাদ্রাসা আসা যাওয়ার পথে উত্ত্যক্ত, কটূক্তি, যৌন হয়রানি, ইভটিজিং সহ অনৈতিক কর্মকাণ্ডের বিরুদ্ধে তার পরিবারের কাছে  বিচার দেয়া হয়। এতে আসামি আরো উত্তেজিত ও ক্ষিপ্ত হয়ে পরিকল্পিত ভাবে ওতপেতে থেকে ঈদেরর পরের দিন ভিকটিম আত্মীয় বাড়িতে যাওয়ার পথে সাদ্দামের নের্তৃত্বে শাহাব  উদ্দিন দুলাল, ফিরোজ ও ভাড়াটিয়া সহ ৪ সন্ত্রাসী অস্ত্রের মুখে মাইক্রোবাসে মাদ্রসা ছাত্রীকে অপহরণ করে নিয়ে যায়।  এই ব্যাপারে অপহৃত ছাত্রীর পিতা মো. শহিদ উল্ল্যাহ বাদী হয়ে সোনাইমুড়ি থানায়  নারী ও শিশু নির্যাতন দমন আইনে অপহরণ মামলা করে। তদন্তকারী ওসি মুহাম্মদ ইমদাদুল হক মানবজমিনকে বলেন, গতকাল বিকেলে ২ জনকে গ্রেপ্তার করা হয়েছে। মোবাইল প্রযুক্তির মাধ্যমে জানা গেছে বর্তমানে সন্ত্রাসী ও ভিকটিম পিরোজপুর জেলায় অবস্থান করছে। রাতের মধ্যে অভিযান পরিচালিত হবে।
এ রিপোর্ট লেখা পর্যন্ত মাদরাসা ছাত্রীকে উদ্ধার করা যায়নি।

অবশ্যই দিতে হবে *
অবশ্যই দিতে হবে *
অন্যান্য খবর