× প্রচ্ছদ অনলাইনপ্রথম পাতাশেষের পাতাখেলাবিনোদনএক্সক্লুসিভভারতবিশ্বজমিনবাংলারজমিনদেশ বিদেশশিক্ষাঙ্গনরকমারিপ্রবাসীদের কথাবই থেকে নেয়া তথ্য প্রযুক্তি শরীর ও মন চলতে ফিরতে ষোলো আনা ইলেকশন কর্নার
ঢাকা, ২০ জুন ২০১৯, বৃহস্পতিবার

বাজেট অধিবেশন শুরু হচ্ছে আজ

প্রথম পাতা

সংসদ রিপোর্টার | ১১ জুন ২০১৯, মঙ্গলবার, ৯:৪২

আর্থিক আয়-ব্যয়ের হিসাব নিয়ে আজ থেকে শুরু হচ্ছে বাজেট অধিবেশন। স্পিকার ড. শিরীন শারমিন চৌধুরীর সভাপতিত্বে বিকাল ৫টায় অধিবেশন শুরু হবে। এটা হবে চলতি সংসদের প্রথম বাজেট অধিবেশন। অর্থমন্ত্রী আ হ ম মুস্তফা কামাল ১৩ই জুন বৃহস্পতিবার ২০১৯-২০ অর্থবছরের প্রস্তাবিত বাজেট পেশ করবেন। অর্থমন্ত্রী হিসেবে এটাই হবে তার প্রথম বাজেট উপস্থাপন। সংসদ সচিবালয় জানিয়েছে, এবার বাজেটের আকার হতে পারে ৫ লাখ ২৩ হাজার ১৯০ কোটি টাকা। যা এ যাবৎকালের সর্বোচ্চ অঙ্কের বাজেট।

এবারের বাজেট হবে দেশের ৪৮তম বাজেট।
আর আওয়ামী লীগ নেতৃত্বাধীন সরকারের ১৯তম বাজেট। ৩০শে জুনের মধ্যে বাজেট পাস করার বাধ্যবাধকতা রয়েছে। আগামী ১লা জুলাই থেকে নতুন অর্থ বছর কার্যকর হবে। এদিকে অধিবেশনে কারাবন্দি বিএনপি চেয়ারপারসন বেগম খালেদা জিয়ার মুক্তিসহ কয়েকটি ইস্যুতে সাধারণ আলোচনা চাইবে বিএনপি দলীয় এমপিরা। অধিবেশন শুরুর আগে বিকাল ৪টায় স্পিকারের সভাপতিত্বে কার্য উপদেষ্টা কমিটির বৈঠক হবে। ওই বৈঠকে কমিটির সদস্য হিসেবে সংসদ নেতা প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা অংশ নেবেন। অধিবেশনের সময়সূচি ঠিক করতেই কার্য উপদেষ্টা কমিটির বৈঠক অনুষ্ঠিত হয়। সংসদ সচিবালয় জানিয়েছে, চলতি অধিবেশনে বাজেট ছাড়াও অর্থ বিলসহ বেশ কয়েকটি গুরুত্বপূর্ণ বিল পাসের সম্ভাবনা রয়েছে। আগামী ১৩ই জুন বাজেট উপস্থাপনের পর ১৪ই জুন শুক্রবার অর্থমন্ত্রী সংবাদ সম্মেলন করে বাজেট প্রতিক্রিয়া জানাবেন। এরপর শনিবার বা রোববার প্রস্তাবিত বাজেটের ওপর আলোচনা যাওয়ার আগে সংশোধিত ২০১৮-১৯ অর্থ বছরের বাজেট পাস হবে। অর্থাৎ চলতি অর্থ বছরের আয়-ব্যয়ের চূড়ান্ত বাজেট পাস হবে। পরদিন প্রস্তাবিত ২০১৯-২০ অর্থ বছরের ওপর সাধারণ আলোচনা শুরু হবে।
এদিকে, বাজেট অধিবেশনকে ঘিরে সংসদ সচিবালয়ের পাশাপাশি প্রস্তুতি শুরু করেছে সরকার ও বিরোধী দলীয় এমপিরা। আগের সংসদের মতো এবারো বাজেট নিয়ে প্রাণবন্ত আলোচনা করতে চায় বিরোধী দল জাতীয় পার্টির সংসদ সদস্যরা। তাদের সঙ্গে আবার যোগ হয়েছে বিএনপির ৬জন ও গণফোরামের দুইজন সংসদ সদস্য। বিএনপি সদস্যরা বাজেট ছাড়াও দলীয় চেয়ারপারসন ও সাবেক প্রধানমন্ত্রী খালেদা জিয়ার মুক্তির দাবিতে জাতীয় সংসদ অধিবেশনে আলোচনার দাবি জানাবে। এছাড়াও তারা বিএনপিসহ সকল বিরোধী দলের নেতা-কর্মীদের নামে দায়েরকৃত মামলা প্রত্যাহার, শেয়ারবাজার কেলেংকারি ও ব্যাংক লুটসহ নানা ইস্যুতে সাধারণ আলোচনার জন্য এরইমধ্যে সংসদ সচিবালয়ে প্রস্তাব জমা দিয়েছে। এ বিষয়ে বিএনপির সংসদীয় দলের নেতা চাঁপাইনবাবগঞ্জ-৩ আসন থেকে নির্বাচিত সংসদ সদস্য মো. হারুনুর রশীদ বলেন, দেশনেত্রী বেগম খালেদা জিয়ার মুক্তি সময়ের দাবি। তাকে রাজনৈতিক কারণে বন্দি করে রেখেছে। এজন্য আমি একটি প্রস্তাব জমা দিয়েছি। এছাড়া আরো কয়েকটি প্রস্তাব সংসদের সংশ্লিষ্ট শাখায় রাখা হয়েছে। ওই বিষয়গুলো নিয়ে আলোচনার জন্য স্পিকার সুযোগ দেবেন বলে তিনি আশা প্রকাশ করেন। এ প্রসঙ্গে স্পিকার ড. শিরীন শারমিন চৌধুরী বলেন,বাজেট অধিবেশনকে সামনে রেখে সংসদ সচিবালয় প্রয়োজনীয় প্রস্তুতি নিয়েছে। এবার একটু দেরিতে শুরু হলেও অধিবেশনে বাজেট নিয়ে আলোচনা কম হবে না। সকলেই কথা বলার সুযোগ পাবেন।

অবশ্যই দিতে হবে *
অবশ্যই দিতে হবে *
অন্যান্য খবর