× প্রচ্ছদ অনলাইনপ্রথম পাতাশেষের পাতাখেলাবিনোদনএক্সক্লুসিভভারতবিশ্বজমিনবাংলারজমিনদেশ বিদেশশিক্ষাঙ্গনরকমারিপ্রবাসীদের কথাবই থেকে নেয়া তথ্য প্রযুক্তি শরীর ও মন চলতে ফিরতে ষোলো আনা ইলেকশন কর্নার
ঢাকা, ১৯ সেপ্টেম্বর ২০১৯, বৃহস্পতিবার

৬ষ্ঠ স্ত্রীকে তালাক দিয়ে ৭ম বিয়ে করতে না দেয়ায় বাবাকে হত্যা

অনলাইন

বাসাইল (টাঙ্গাইল) প্রতিনিধি | ১১ জুন ২০১৯, মঙ্গলবার, ৮:০৫

মাসুম মিয়া টাঙ্গাইলের বাসাইল উপজেলার হাবলা ইউনিয়নের টেংগুরিয়া পাড়া গ্রামের খোরশেদ মিয়ার ৪ সন্তানের মধ্যে বড়। ছোট ২ ছেলে দির্ঘদিন দুবাই প্রবাসী। একমাত্র মেয়ে রাশদা বেগমের বিয়ে হয়েছে পাশের গ্রামে। মেঝ ছেলে সুমন চার মাস আগে বিয়ে করলেও প্রবাসে থাকার সুবাদে তার স্ত্রী শশুর বাড়িতেই থাকে। মাসুম মিয়া গত ৭/৮ বছরে ছয়টি বিয়ে করেছেন । ৬ষ্ঠ স্ত্রীকে সম্প্রতি তালাক দিয়েছে এবং ফের বিয়ে করাবার জন্য অসুস্থ মা এবং বাবা খোরশেদ মিয়াকে ক্রমাগত চাপ দিচ্ছিলেন। এ নিয়ে মা-বাবার সঙ্গে কথা কাটাকাটি এবং বাবার সাথে ঝগড়ার শুরু হয় তার। এই ঝগড়ার রেশ ধরে নির্জন বাড়িতে গতকাল সোমবার বাবা খোরশেদ মিয়াকে হত্যা করেছে বড় ছেলে মাসুম মিয়া এমন অভিযোগ করে বাসাইল থানায় একটি হত্যা মামলা দায়ের করেছে নিহতের মেয়ে রাশেদা বেগম।
 
বাসাইল থানা পুলিশ নিহতের বাড়ির দেড়’শ গজ পশ্চিম পার্শ্বের ধানক্ষেত থেকে লাশ উদ্ধার করে ময়না তদন্তের জন্য টাঙ্গাইল জেনারেল হাসপাতাল মর্গে পাঠায়। অভিযুক্ত মাসুম মিয়াকে  ঘটনার দিন সকালে বাড়িতে দেখলেও বর্তমানে সে পলাতক রয়েছে।

বাসাইল থানার অফিসার ইনচার্জ (ওসি) এসএম তুহীন আলী বলেন, নিহতের লাশ উদ্ধার করে ময়নাতদন্তের জন্য পাঠানো হয়েছে। নিহতের মেয়ে রাশেদা বাদী হয়ে একটি হত্যা মামলা দায়েরের প্রস্তুতি নিচ্ছেন।

অবশ্যই দিতে হবে *
অবশ্যই দিতে হবে *
অন্যান্য খবর