× প্রচ্ছদ অনলাইনপ্রথম পাতাশেষের পাতাখেলাবিনোদনএক্সক্লুসিভভারতবিশ্বজমিনবাংলারজমিনদেশ বিদেশশিক্ষাঙ্গনরকমারিপ্রবাসীদের কথাবই থেকে নেয়া তথ্য প্রযুক্তি শরীর ও মন চলতে ফিরতে ষোলো আনা ইলেকশন কর্নার মন ভালো করা খবর
ঢাকা, ১৪ অক্টোবর ২০১৯, সোমবার

শায়েস্তাগঞ্জে মাদকাসক্ত স্বামীর হাতে স্ত্রী খুন

বাংলারজমিন

শায়েস্তাগঞ্জ (হবিগঞ্জ) প্রতিনিধি | ১২ জুন ২০১৯, বুধবার, ৯:২০

হবিগঞ্জের শায়েস্তাগঞ্জে মাদকাসক্ত ও নেশাগ্রস্ত স্বামী, তার স্ত্রী মুক্তিরানী দাসকে (৪০) ধারালো অস্ত্র দিয়ে কুপিয়ে খুন করেছে। তারা উপজেলার পূর্ব বড়চর গ্রামের বাসিন্দা। গত সোমবার দিবাগত রাত সাড়ে ৯টার দিকে সিলেট ওসমানী মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে চিকিৎসাধীন অবস্থায় মুক্তির মৃত্যু হয়েছে। শায়েস্তাগঞ্জ থানার (ওসি) আনিছুজ্জামান বিষয়টির সত্যতা নিশ্চিত করে জানান, নিহত মুক্তিরানী দাস প্রাণ আরএফএল কোম্পানির একজন কর্মী। সে তার স্বামী কিশোর দাসসহ উপজেলার অলিপুর এলাকায় বসবাস করতো। সমপ্রতি তাদের মধ্যে পারিবারিক কিছু  বিষয় নিয়ে কলহের সৃষ্টি হয়। এরই জের ধরে ওই দিন তাদের মধ্যে বাকবিতণ্ডা হয়। এর একপর্যায়ে স্বামী কিশোর দাস তার স্ত্রীকে ধারালো অস্ত্র দিয়ে উপর্যুপরি কুপিয়ে ক্ষত-বিক্ষত করে।
লোকজন তাৎক্ষণিক তাকে উদ্ধার করে হবিগঞ্জ সদর আধুনিক হাসপাতালে নিয়ে গেলে কতর্ব্যরত চিকিৎসক তাকে আশংকাজনক অবস্থায় সিলেট ওসমানী মেডিকেল কলেজ হপাসাতালে প্রেরণ করেন। ওই দিন রাত সাড়ে ৯টার দিকে সিলেট ওসমানী মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে চিকিৎসাধীন অবস্থায় তার মৃত্যু হয়েছে। এ ব্যাপারে ওসি আনিছুজ্জামান আরো জানান, নিহত মুক্তা রানী দাসের পরিবারের দাবি তার স্বামী নেশাগ্রস্ত ছিল। ঘটনার পর থেকে সে পলাতক রয়েছে। পুলিশ তাকে আটক করতে অভিযান চালাচ্ছে।

অবশ্যই দিতে হবে *
অবশ্যই দিতে হবে *
অন্যান্য খবর