× প্রচ্ছদ অনলাইনপ্রথম পাতাশেষের পাতাখেলাবিনোদনএক্সক্লুসিভভারতবিশ্বজমিনবাংলারজমিনদেশ বিদেশশিক্ষাঙ্গনরকমারিপ্রবাসীদের কথাবই থেকে নেয়া তথ্য প্রযুক্তি শরীর ও মন চলতে ফিরতে ষোলো আনা ইলেকশন কর্নার
ঢাকা, ১৭ সেপ্টেম্বর ২০১৯, মঙ্গলবার

২৩ বছর পর মুক্ত মর্জিনা

বাংলারজমিন

বাগেরহাট প্রতিনিধি | ১২ জুন ২০১৯, বুধবার, ৯:২১

হত্যা মামলায় ২৩ বছর সাজা ভোগের পরে মুক্তি পেয়েছে মর্জিনা বেগম (৫২)। দীর্ঘ কারাভোগের পর মুক্ত হয়ে বাড়ি ফেরার সময় তাকে একটি সেলাই মেশিন প্রদান করেছে কারা কর্তৃপক্ষ। গতকাল দুপুরে জেলা কারাগার গেটে ওই নারীর হাতে সেলাই মেশিন তুলে দেন জেল সুপার গোলাম দস্তগীর। এসময় জেলার এসএম মহিউদ্দিন হায়দার, সমাজসেবা অধিদপ্তরের প্রবেশন অফিসার এসএম নাজমুস সাকিবসহ জেলা কারাগারের অন্যান্য কর্মকর্তারা উপস্থিত ছিলেন। মর্জিনা বেগম মোরেলগঞ্জ উপজেলার গুয়াবাড়িয়া গ্রামের সাহেব আলী শেখের স্ত্রী। জেলা কারাগার সূত্রে জানা যায়, ১৯৯৬ সালের ২০শে জুলাই স্বামীর বাড়িতে নিজ সতীনকে হত্যা করে মর্জিনা বেগম। ওইদিনই পুলিশ মর্জিনাকে গ্রেপ্তার করে আদালতের মাধ্যমে কারাগারে প্রেরণ করা হয়। পরে মামলার সাক্ষী-প্রমাণ শেষে আদালত মর্জিনাকে যাবজ্জীবন কারাদণ্ডাদেশ দেন। যশোর কারাগারে ১০ বছর এবং বাগেরহাট কারাগারে অবশিষ্ট ১৩ বছর কাটে মর্জিনা বেগমের। ভালো আচরণের জন্য ৭ বছর সাজা কমিয়ে গতকাল দুপুরে মর্জিনাকে মুক্তি দেয় কর্তৃপক্ষ।
মর্জিনা বলেন, জীবনের বেশির ভাগ সময় কারাগারে কাটিয়েছি। এখানে স্যারদের কথামতো চলেছি। আজ মুক্ত হয়ে বাড়ি ফিরে যাচ্ছি। আমি যে সেলাই মেশিনটা পেয়েছি সেটা দিয়ে বাড়ির সামনে একটি দোকান দেওয়ার চেষ্টা করবো।

অবশ্যই দিতে হবে *
অবশ্যই দিতে হবে *
অন্যান্য খবর