× প্রচ্ছদ অনলাইনপ্রথম পাতাশেষের পাতাখেলাবিনোদনএক্সক্লুসিভভারতবিশ্বজমিনবাংলারজমিনদেশ বিদেশশিক্ষাঙ্গনরকমারিপ্রবাসীদের কথাবই থেকে নেয়া তথ্য প্রযুক্তি শরীর ও মন চলতে ফিরতে ষোলো আনা ইলেকশন কর্নার
ঢাকা, ২০ জুন ২০১৯, বৃহস্পতিবার

রিজার্ভ ডে না থাকায় বিরক্ত বাংলাদেশ কোচ

খেলা

স্পোর্টস ডেস্ক | ১২ জুন ২০১৯, বুধবার, ১২:১৬

শ্রীলঙ্কার বিপক্ষে বাংলাদেশের ম্যাচটি বৃষ্টিতে ভেস্তে গেছে। তাতে পয়েন্ট ভাগাভাগি করে নিতে হয়েছে দুদলকে। এতে বিরক্ত প্রকাশ করেছেন বাংলাদেশ কোচ স্টিভ রোডস। তিনি বলেন, ‘আমারা এখন চাঁদে মানুষ পাঠাতে পারি। আর বিশ্বকাপের মত গুরুত্বপূর্ণ ইভেন্টে কেন রিজার্ভ ডে রাখতে পারি না। যখন এটা লম্বা একটা টুর্নামেন্ট।’
এবারের বিশ্বকাপের আসরে তিনটি ম্যাচ বৃষ্টির কারণে পরিত্যক্ত হলো। যা রেকর্ড। এর আগে ১৯৯২ ও ২০০৩ বিশ্বকাপে সবচেয়ে বেশি ২টি করে ম্যাচ পরিত্যক্ত হয়েছিল এই বৃষ্টির কারণে।
কিন্তু চলতি বিশ্বকাপে এখনও দু’সপ্তাহ না যেতেই, ৩টি ম্যাচ বৃষ্টির কারণে পরিত্যক্ত ঘোষণা হলো। সোমবার দক্ষিণ আফ্রিকা-ওয়েস্ট ইন্ডিজ ম্যাচের পর টানা দ্বিতীয়দিন বৃষ্টির কারণে বাতিল ম্যাচ। পাকিস্তান ম্যাচের পর বাংলাদেশ ম্যাচেও বৃষ্টির কারণে বাতিল হলো। প্রথম ৪ ম্যাচের মধ্যে দু’টি ম্যাচেই আবহাওয়ার শিকার হলো লঙ্কানরা।
এবারের আসরে ২টি সেমিফাইনাল ও ১৪ জুলাই ফাইনালের জন্য অতিরিক্ত দিনের ব্যবস্থা থাকলেও গ্রুুপ পর্বের ম্যাচের জন্য কোনও রিজার্ভ ডে রাখা হয়নি।

ইংল্যান্ডের গ্রীষ্মের আবহাওয়ার কথা মাথায় রেখে ক্রিকেটের অভিভাবক সংস্থা আইসিসির উচিৎ ছিল গ্রুপ পর্বরে ম্যাচগুলোর জন্য রিজার্ভ ডে রাখা, এমনটাই মনে করেন টাইগার কোচ। স্টিভ রোডস বলেন, ‘আমি দায়িত্বে থাকলে অবশ্যই রিজার্ভ ডে রাখতাম। কারণ আমরা ইংল্যান্ডের এখন আবহাওয়া সম্পর্কে সবারই জানা। দুর্ভাগ্যবশত বিশ্বকাপকে এখনও অনেক বৃষ্টির মোকাবিলা করতে হবে।’
তবে আইসিসি’র প্রাক্তন সিইও বর্তমানে বিশ্বকাপ ক্রিকেটের সিইও ডেভ রিচার্ডসন বলেন, ‘বিশ্বকাপের মতো টুর্নামেন্টে রিজার্ভ ডে কোনও কাজ দেয় না। রিজার্ভ ডে পিচ প্রস্তুতিতে প্রভাব ফেলে। ভেন্যুর খেলার যোগ্যতা নিয়ে প্রশ্নও থাকে। সবচেয়ে বড় কথা রিজার্ভ ডে’তে সমর্থকরা আবার সেই ম্যাচ দেখতে আসবেন কিনা, তা নিয়ে একটা বড়সড় প্রশ্ন থাকে। পাশাপাশি রিজার্ভ ডে’ও যে বৃষ্টির কবলে পড়বে না, তার কোনও নিশ্চয়তা নেই।’

অবশ্যই দিতে হবে *
অবশ্যই দিতে হবে *
অন্যান্য খবর