× প্রচ্ছদ অনলাইনপ্রথম পাতাশেষের পাতাখেলাবিনোদনএক্সক্লুসিভভারতবিশ্বজমিনবাংলারজমিনদেশ বিদেশশিক্ষাঙ্গনরকমারিপ্রবাসীদের কথাবই থেকে নেয়া তথ্য প্রযুক্তি শরীর ও মন চলতে ফিরতে ষোলো আনা ইলেকশন কর্নার মন ভালো করা খবর
ঢাকা, ১৭ অক্টোবর ২০১৯, বৃহস্পতিবার

তাহিরপুরে তিনদিন নিখোঁজের পর যুবকের লাশ উদ্ধার

বাংলারজমিন

তাহিরপুর (সুনামগঞ্জ) প্রতিনিধি | ১৩ জুন ২০১৯, বৃহস্পতিবার, ৯:১৭

সুনামগঞ্জের তাহিরপুরে তিনদিন নিখোঁজের পর এক যুবকের লাশ মিললো ডোবায়। নিহত যুবকের নাম আবুল মিয়া (২৮)। তিনি তাহিরপুর উপজেলার উত্তর বড়দল ইউনিয়নের সীমান্তবর্তী চানপুর গ্রামের নিজাম উদ্দিনের ছেলে। গতকাল সকালে তাহিরপুর উপজেলার পার্শ্ববর্তী বিশ্বম্ভরপুর উপজেলার শক্তিয়ারখলা গ্রামের একটি ডোবা থেকে তার লাশ উদ্ধার করে বিশ্বম্ভপুর থানা পুলিশ। এ ঘটনায় বিশ্বম্ভপুর থানা পুলিশ শক্তিয়ারখলা গ্রামের মিলন, কালাম, আশরাফুল নামে তিনজনকে আটক করেছে।   
নিহতের বড় ভাই আবুল কালাম জানান, তার ভাই মোটরসাইকেল ভাড়া চালাতেন। গত সোমবার সন্ধ্যার দিকে তাহিরপুর সদর বাজার থেকে যাত্রী নিয়ে বিশ্বম্ভরপুর উপজেলার শক্তিয়ারখলা বাজারে যান। পরে রাত ৯টার দিকে শক্তিয়ারখলা গ্রামের কয়েকজন অজ্ঞাত ব্যক্তি তাকে মোবাইল ফোনে জানায়, তার ভাইকে আটক করেছে তারা। কী কারণে আটক করা হয়েছে জানতে চাইলে তারা কোনো কারণ জানাতে রাজি হয়নি।
পরে রাতেই সে সহ এলাকার কয়েকজনকে নিয়ে ঘটনাস্থলে গেলে তারা জানায় তার ভাই তাদের কাছ থেকে পালিয়ে গেছে। পরে বিষয়টি স্থানীয়দের জানিয়ে সে বাড়িতে চলে এসে খোঁজাখুঁজি করে তিনদিনের ভিতরে তার ভাইয়ের কোন সন্ধান পাইনি। এরই ধারাবাহিকতায় বুধবার সকালে শক্তিয়ারখলা গ্রামের একটি ডোবায় লাশ ভাসতে দেখে স্থানীয়রা জানালে সে বিষয়টি পুলিশকে জানাই। পরে বিশ্বম্ভরপুর থানা পুলিশ এসে লাশ উদ্ধার করে। এ ব্যাপারে নিহতের বড় ভাই আবুল কালাম জানান, তার ভাই আবুলকে পরিকল্পিতভাবে খুন করে ডোবায় ফেলে রাখা হয়েছে। তিনি জানান, কিছুদিন আগে তার আরেক ভাই রাতের অন্ধকারে বারেকটিলার উপর থেকে  মোটরসাইকেল নিয়ে পড়ে নিহত হয়েছে। বিষয়টি দুর্ঘটনা না হত্যা ছিল এখন তাদের মনে সন্দেহ দেখা দিয়েছে। সুনামগঞ্জের অতিরিক্ত পুলিশ সুপার জয়নাল আবেদিন জানান, লাশ উদ্ধার করে ময়নাতদন্তের জন্য সুনামগঞ্জ মর্গে পাঠানো হয়েছে। এ বিষয়ে মামলার প্রস্তুতি চলছে।

অবশ্যই দিতে হবে *
অবশ্যই দিতে হবে *
অন্যান্য খবর