× প্রচ্ছদ অনলাইনপ্রথম পাতাশেষের পাতাখেলাবিনোদনএক্সক্লুসিভভারতবিশ্বজমিনবাংলারজমিনদেশ বিদেশশিক্ষাঙ্গনরকমারিপ্রবাসীদের কথাবই থেকে নেয়া তথ্য প্রযুক্তি শরীর ও মন চলতে ফিরতে ষোলো আনা ইলেকশন কর্নার
ঢাকা, ১৯ জুলাই ২০১৯, শুক্রবার

সিলেটে পথচারীকে আটকে মারধরের ঘটনায় অবরোধ পুলিশ সদস্য প্রত্যাহার

বাংলারজমিন

স্টাফ রিপোর্টার, সিলেট থেকে | ১৬ জুন ২০১৯, রবিবার, ৮:৫২

এক পথচারীকে আটকে মারধরের ঘটনায় বিক্ষুব্ধ জনতা সিলেটে সড়ক অবরোধ করেছে। এ সময় ওই যাত্রী অভিযোগ করেন- তার মানিব্যাগ ছিনিয়ে নিয়েছে পুলিশ। পরে ঊর্ধ্বতন কর্মকর্তারা ঘটনাস্থলে এসে পরিস্থিতি স্বাভাবিক করেন। এ ঘটনায় অভিযুক্ত পুলিশ সদস্যকে দায়িত্ব থেকে প্রত্যাহার করে নেয়া হয়। গতকাল বিকেলে সিলেটের জিন্দাবাজার এলাকায় এ ঘটনা ঘটে। ঊর্ধ্বতন পুলিশ কর্মকর্তাদের আশ্বাসের প্রেক্ষিতে স্থানীয়রা সড়ক অবরোধ প্রত্যাহার করে নেন। এ কারণে সিলেটের কোর্ট পয়েন্ট-আম্বরখানা সড়কে প্রায় ঘণ্টাখানেক যানবাহন চলাচল বন্ধ ছিল। সিলেটের দাড়িয়াপাড়া এলাকার বাসিন্দা এসডি সুমন উপস্থিত সাংবাদিকদের জানিয়েছেন, গতকাল দুপুর ৩টার দিকে তিনি অটোরিকশাযোগে দাঁড়িয়াপাড়া থেকে জিন্দাবাজার পয়েন্টে আসেন।
এ সময় ডিউটিরত কোতোয়ালি থানার এএসআই মাসুম অটোরিকশাচালক ও তাকে উদ্দেশ্য করে অশ্লীল গালাগাল করেন। এ সময় তিনি কথায় ধরলে বাগবিতণ্ডা শুরু হয়। এক পর্যায়ে তাকে পাশের জগন্নাথ জিউর আখড়ায় (মন্দিরে) নিয়ে মারধর করেন মাসুম। এ সময় তার মানিব্যাগও নিয়ে নেয় পুলিশ। এদিকে- পুলিশের হাতে ওই যুবক লাঞ্ছিত হওয়ার খবর ছড়িয়ে পড়লে স্থানীয় বাসিন্দারা জিন্দাবাজার পয়েন্টে এসে অবরোধ করে বিক্ষোভ করেন। পরে কোতোয়ালি থানার এসি ইসমাইল হোসেনসহ পুলিশ সদস্যরা ঘটনাস্থলে এসে সুষ্ঠু বিচারের আশ্বাস দিলে তারা সড়ক অবরোধ তুলে নেন। কোতোয়ালি থানার এসি ইসমাইল হোসেন সাংবাদিকদের জানিয়েছেন- ওই যুবকের কাছ থেকে লিখিত অভিযোগ পেয়েছি। এ ব্যাপারে তদন্ত করে সত্যতা পেলে পুলিশ সদস্যের বিরুদ্ধে কঠিন ব্যবস্থা নেওয়া হবে।’ সিলেট মহানগর পুলিশের অতিরিক্ত উপ-কমিশনার জেদান আল মুসা জানিয়েছেন- জগন্নাথ জিউর আখড়ায় থাকা সিসি ক্যামেরার ফুটেজ দেখে ওই যুবকের সাথে পুলিশ সদস্য মাসুমের দুর্ব্যবহারের বিষয়টি খতিয়ে দেখা হচ্ছে। তবে অভিযোগের প্রেক্ষিতে তাকে প্রত্যাহার করা হয়েছে। ঘটনার সুষ্ঠু তদন্ত করা হবে।’

অবশ্যই দিতে হবে *
অবশ্যই দিতে হবে *
অন্যান্য খবর