× প্রচ্ছদ অনলাইনপ্রথম পাতাশেষের পাতাখেলাবিনোদনএক্সক্লুসিভভারতবিশ্বজমিনবাংলারজমিনদেশ বিদেশশিক্ষাঙ্গনরকমারিপ্রবাসীদের কথাবই থেকে নেয়া তথ্য প্রযুক্তি শরীর ও মন চলতে ফিরতে ষোলো আনা ইলেকশন কর্নার
ঢাকা, ১৯ জুলাই ২০১৯, শুক্রবার

তিউনিশিয়ায় নৌকাডুবিতে নিহত সুজনের দাফন বিয়ানীবাজারে

বাংলারজমিন

বিয়ানীবাজার (সিলেট) প্রতিনিধি | ১৬ জুন ২০১৯, রবিবার, ৯:২৩

লিবিয়া হয়ে ইতালি যাওয়ার পথে তিউনিশিয়ার সমুদ্র উপকূলে নৌকা ডুবে নিহত বিয়ানীবাজারের আব্দুল হালিম সুজনের লাশ দেশে এসেছে। শনিবার ভোরে ঢাকার হযরত শাহজালাল (রহ.) আন্তর্জাতিক বিমানবন্দরে এসে পৌঁছলে নিহত সুজনের স্বজনরা লাশ গ্রহণ করেন। তার লাশ বিকাল ৫টায় বিয়ানীবাজারের বাড়িতে নিয়ে আসা হয়। পরে সন্ধ্যা ৬টায় উপজেলার মুড়িয়া ইউনিয়নের মাইজকাপন পূর্ব মাঠে তার জানাজা শেষে পারিবারিক কবরস্থানে দাফন করা হয়।
জানা যায়, বিয়ানীবাজার উপজেলার মুড়িয়া ইউনিয়নের মাইজকাপন গ্রামের মৃত মাহমদ আলীর পুত্র আব্দুল হালিম সুজন (৩২) কয়েকমাস পূর্বে দালালদের মাধ্যমে লিবিয়া যান। ইউরোপের দেশ ইতালিতে যেতে লিবিয়া থেকে নৌকাযোগে ভূমধ্যসাগর পাড়ি দেয়ার সময় তিউনিশিয়ার উপকূলে নৌকা ডুবে গেলে সুজনসহ অনেক বাংলাদেশি মারা যান। নিহত সুজন সিএনজিচালিত অটোরিকশা চালিয়ে জীবিকা নির্বাহ করতেন। মা-বাবাহীন পরিবারের চার ভাই ও এক বোনের সংসারের অভিভাবক সুজন পরিবারে সচ্ছলতা ফেরাতে ইউরোপে যাওয়ার স্বপ্নে বিভোর ছিল। কিন্তু তার সে স্বপ্ন পূরণ হয়নি।
দালালদের মাধ্যমে লিবিয়া হয়ে ইতালি যাওয়ার পথে ভূমধ্যসাগরে নৌকা ডুবলে তিনি মারা যান।
তার মৃত্যুর সংবাদ বাড়িতে পৌঁছলে পরিবারে নেমে আসে ঘোর অন্ধকার। ভাই-বোন সুজনের এমন মৃত্যু মেনে নিতে পারছেন না।

অবশ্যই দিতে হবে *
অবশ্যই দিতে হবে *
অন্যান্য খবর