× প্রচ্ছদ অনলাইনপ্রথম পাতাশেষের পাতাখেলাবিনোদনএক্সক্লুসিভভারতবিশ্বজমিনবাংলারজমিনদেশ বিদেশশিক্ষাঙ্গনরকমারিপ্রবাসীদের কথাবই থেকে নেয়া তথ্য প্রযুক্তি শরীর ও মন চলতে ফিরতে ষোলো আনা ইলেকশন কর্নার
ঢাকা, ১৬ জুলাই ২০১৯, মঙ্গলবার

ম্যাচ পণ্ড হলে স্টার স্পোর্টসের ক্ষতি ১৩৭ কোটি রুপি

খেলা

স্পোর্টস ডেস্ক | ১৬ জুন ২০১৯, রবিবার, ৯:৪৪

বিশ্বকাপে ভারত-পাকিস্তান ম্যাচেও রয়েছে বৃষ্টির শঙ্কা। আর কপালে ভাঁজ সম্প্রচার প্রতিষ্ঠান স্টার স্পোর্টস কর্তাদের। শেষ পর্যন্ত বৃষ্টির কারণে ম্যাচটি পণ্ড হলে প্রচুর আর্থিক লোকসান গুনতে হবে সমপ্রচারক চ্যানেল থেকে বীমা প্রতিষ্ঠানগুলোকে। বৃষ্টিতে এর আগে কয়েকটি ম্যাচ পণ্ড হওয়ায় বড় অঙ্কের আর্থিক ক্ষতিপূরণ দিতে হয়েছে বীমা প্রতিষ্ঠানগুলোকে।

বিশ্বকাপ শুরুর দুই সপ্তাহের মধ্যে বৃষ্টির কারণে মোট চারটি ম্যাচ পণ্ড হয়েছে। এর মধ্যে শুধু এক ম্যাচ মাঠে গড়ানোর পর পণ্ড হয়েছে। বাকি তিন ম্যাচে টসই হয়নি। কাল ভারত-পাকিস্তান দ্বৈরথেও বৃষ্টির শঙ্কা রয়েছে।
সংবাদমাধ্যম জানিয়েছে, ম্যানচেস্টারে কাল থেমে থেমে বেশ কয়েকবার বৃষ্টি নেমেছে। আর আজ বৃষ্টি নামতে পারে স্থানীয় সময় দুপুরের পরে। যেহেতু ম্যাচ গড়াবে স্থানীয় সময় সকাল সাড়ে দশটায় তাই দ্বিতীয় ইনিংসে বৃষ্টির শঙ্কা রয়েছে। অবশ্য বৃটিশ সংবাদমাধ্যম জানিয়েছে, বৃষ্টির শঙ্কা রয়েছে সকালেও। আর তাতে বিশ্বকাপ সংশ্লিষ্ট পৃষ্ঠপোষক থেকে বীমা প্রতিষ্ঠানগুলোর দুশ্চিন্তা বেড়েছে।

ভারত-পাকিস্তান দ্বৈরথ বিশ্বকাপের সেরা লড়াইগুলোর একটি। এবারের ম্যাচটি ঘিরেও ক্রিকেটপ্রেমীদের আগ্রহ তুঙ্গে। কিন্তু ম্যানচেস্টারের বেরসিক মেঘলা আকাশ সেই আগ্রহে জল ঢেলে দিলে বীমা প্রতিষ্ঠানগুলোকে আরো লোকসান গুনতে হবে। ইতিমধ্যে পণ্ড হওয়া তিন ম্যাচের (টসবিহীন) ক্ষতিপূরণ বাবদ ১৮০ কোটি ভারতীয় রুপি স্টেকহোল্ডারদের হাতে তুলে দিতে হয়েছে বীমা প্রতিষ্ঠানগুলোকে। আর ইনসাইড স্পোর্টস জানিয়েছে বিজ্ঞাপন এবং সংশ্লিষ্ট অন্যান্য খাতে প্রায় ১৪০ কোটি রুপি লোকসান দাবি করেছে স্টার স্পোর্টস। ফলে চ্যানেলটির বীমার প্রিমিয়াম বেড়ে দাঁড়িয়েছে ৩০০ শতাংশে। আর শুধু ভারত-পাকিস্তান ম্যাচ বাতিল হলেই ১৩৭.৫ কোটি রুপি (বাংলাদেশি মুদ্রায় ১৬৬.৪৭ কোটি টাকা) লোকসান গুনতে হবে স্টার স্পোর্টস এবং তাদের বিজ্ঞাপনদাতা প্রতিষ্ঠান কোকাকোলা, উবার, ওয়ানপ্লাস ও এমআরএফ টায়ারের।

বিশ্বকাপে বড় ম্যাচগুলোর টিকিট অনেক আগেই শেষ। ভারত-পাকিস্তান ম্যাচের টিকিট তো ছাড়ার কয়েক মিনিটের মধ্যে শেষ হয়ে গেছে। এই ম্যাচের কিছু টিকিট সর্বোচ্চ ৬০ হাজার রুপিতেও পুনরায় বিক্রি করেছেন ক্রিকেটমোদীরা। ভারত-পাকিস্তান ম্যাচ চলাকালীন যেসব বিজ্ঞাপন দেখানো হবে সেসব ৫০ শতাংশ বেশি দামে বিক্রিও করে ফেলেছে চ্যানেলটি। এ ম্যাচে শুধু বিজ্ঞাপন থেকেই ১৩৭.৫ কোটি রুপি আয়ের হিসেব কষেছে স্টার স্পোর্টস।
ভারত-পাকিস্তান ম্যাচে স্টার স্পোর্টসে বিজ্ঞাপনের জন্য প্রতি সেকেন্ডের দাম আড়াই লাখ রুপিও উঠেছে। তবু বিজ্ঞাপনদাতাদের ভিড় কমছে না। চ্যানেলটি বেশ আগেই বিজ্ঞাপনের বেশির ভাগ স্লট বিক্রি করে ফেলেছে। অর্থাৎ শেষ মুহূর্তে বিজ্ঞাপনের জন্য প্রতি সেকেন্ডের দাম আরো বাড়বে। বিজ্ঞাপনদাতারা যে প্রতিষ্ঠানের কাছ থেকে বিজ্ঞাপনের প্যাকেজ কিনেছেন সেই প্রতিষ্ঠান অর্থাৎ স্টার স্পোর্টসকে লোকসান টানতে হবে। বিজ্ঞাপনদাতারা চাইলে পরে অন্য কোনো ম্যাচে বিজ্ঞাপনের ফাঁকা জায়গায় নিজেদের আগের প্যাকেজটি ব্যবহার করতে পারবেন। এ নিয়ে মিডিয়া এজেন্সি কারাট ইন্ডিয়ার জ্যেষ্ঠ নির্বাহী বিনিতা পাঁচিসিয়া বলেন, পরের নির্ধারিত ম্যাচগুলোয় বিজ্ঞাপনদাতারা নিজ নিজ প্যাকেজ ব্যবহার করতে পারবেন। তবে সেটি হবে ওই ম্যাচে বিজ্ঞাপনের সময় খালি আছে কিনা, তা সাপেক্ষে।

অবশ্যই দিতে হবে *
অবশ্যই দিতে হবে *
অন্যান্য খবর