× প্রচ্ছদ অনলাইনপ্রথম পাতাশেষের পাতাখেলাবিনোদনএক্সক্লুসিভভারতবিশ্বজমিনবাংলারজমিনদেশ বিদেশশিক্ষাঙ্গনরকমারিপ্রবাসীদের কথাবই থেকে নেয়া তথ্য প্রযুক্তি শরীর ও মন চলতে ফিরতে ষোলো আনা ইলেকশন কর্নার
ঢাকা, ২৩ জুলাই ২০১৯, মঙ্গলবার

হারে শুরু আর্জেন্টিনার

খেলা

স্পোর্টস ডেস্ক | ১৭ জুন ২০১৯, সোমবার, ১০:০৬

হার দিয়ে কোপা আমেরিকার মিশন শুরু করলো লিওনেল মেসির আর্জেন্টিনা। রোববার ব্রাজিলের সালভাদরে ফন্তে নোভা স্টেডিয়ামে ‘বি’ গ্রুপের ম্যাচে কলম্বিয়ার বিপক্ষে ২-০ গোলে হার দেখে আসরের ১৪ বারের চ্যাম্পিয়নরা। ম্যাচের প্রথমার্ধ গোলশূন্য থাকলেও দ্বিতীয়ার্ধে দুই গোল হজম করে মেসির আর্জেন্টিনা। কলম্বিয়ার হয়ে গোল করেন রজার মার্তিনেজ ও দুভান জাপাতা। ১৯৯৯’র কোপা আমেরিকার স্মৃতি ফিরিয়ে আনলো আর্জেন্টিনা। সে আসরে রর্বাতো আয়ালার নেতৃত্বে কোপা আমেরিকার গ্রুপ পর্বে কলম্বিয়ার বিপক্ষে ৩-০ গোলে হার দেখেছিল আর্জেন্টিনা। সেবার কোয়ার্টার ফাইনালে ব্রাজিলের কাছে হেরে আসর থেকে বিদায় নেয় আলবিসেলেস্তেরা। ২০০৭ কোপা আমেরিকা আসরের পর কলম্বিয়ার বিপক্ষে টানা তিন ম্যাচ জয়হীন থাকলো আর্জেন্টিনা।
সেবার ৪-২ গোলে জয় পেয়েছিল আসরের দ্বিতীয় সফল দল। এর পরে তিন ম্যাচে দুইবার গোলশূন্য ড্র হয়। ক্লাব জার্সিতে দুর্দান্ত বার্সেলোনা তারকা লিওনেল মেসি জাতীয় দলের জার্সিতে আরো একবার নিষ্প্রভ । কোপা আমেরিকা শুরুর আগে প্রস্তুতি ম্যাচে নিকারাগুয়ার বিপক্ষে ৫-০ গোলে জয় দেখেছিল  আর্জেন্টিনা। ওই ম্যাচে জোড়া গোল করেন আর্জেন্টাইন ফুটবল জাদুকর মেসি। তবে কলম্বিয়ার বিপক্ষে গোলের দেখা পাননি তিনি। ম্যাচ শেষে লিও মেসি বলেন, ‘তিক্ত অনুভূতি হচ্ছে। আমরা এমন শুরু করতে চাইনি। কিন্তু ম্যাচটা হাত থেকে বেড়িয়ে গেল।’
রোববার পুরো ম্যাচে আর্জেন্টিনা প্রতিপক্ষের গোলবারে শট নিয়েছে ১৩টি। যার ৬টি ছিল অনটার্গেটে। কলম্বিয়া শট নেয় ৮টি। আর অনটার্গেটে দুই শট থেকেই গোল আদায় করে তারা।  ম্যাচের দ্বিতীয়ার্ধে বেশ কয়েকটি সুযোগ তৈরি করেছিল আর্জেন্টিনা। নিয়ান্দ্রো পারেদেসের দূরপাল্লার শট ফিরিয়ে দেন কলম্বিয়ান গোলরক্ষক ডেভিড ওসপিনা। ম্যাচের ৫৯তম মিনিটে তার আরেকটি প্রচেষ্টা ব্যর্থ করে দেন কলম্বিয়ান গোলরক্ষক। সাত মিনিট পর মেসির হেডে বল গোলপোস্ট ঘেঁষে বাইরে যায়। ম্যাচের ৭১তম মিনিটে উল্টো গোল হজম করে আজেন্টিনা। মাঝমাঠ থেকে হামেস রদ্রিগেসের লম্বা ক্রস নিয়ন্ত্রণে নিয়ে ডি-বক্সের বাঁ দিক থেকে কোনাকুনি জোরালো শটে আর্জেন্টিনা গোলরক্ষক ফ্রাঙ্কো আরমানিকে পরাস্ত করেন কলম্বিয়ান ফরোয়ার্ড রজার মার্টিনেজ। ম্যাচের ৮৬ মিনিটে ব্যবধান দ্বিগুণ করেন দুভান জাপাতা। ডি-বক্সের বাঁ দিক থেকে মিডফিল্ডার জেফারসন লার্মার বাড়ানো পাসে পা ছুঁইয়ে আর্জেন্টিনার জাল কাঁপান ইতালিয়ান লীগে আতালান্টার হয়ে দারুণ নৈপুণ্য দেখানো এই স্ট্রাইকার। ২০১৮-১৯ মৌসুমে আতালান্তার হয়ে ২৩ গোল ও ৭টি অ্যাসিস্ট করেন জাপাতা।
দক্ষিণ আমেরিকার ফুটবলে শ্রেষ্ঠত্বের লড়াইয়ে দ্বিতীয় সর্বাধিক ১৪বার শিরোপা জিতেছে আর্জেন্টিনা। কিন্তু শেষবার তারা কোপা আমেরিকা শিরোপা জিতেছিল ১৯৯৩ সালে । এর মধ্যে তিন বার ফাইনালে উঠেও শিরোপা ঘরে তুলতে পারেনি আলবিসেলেস্তেরা। ২০০৭ সালে কোপা আমেরিকার ফাইনালে ব্রাজিলের কাছে ৩-০ গোলে হার দেখে আর্জেন্টিনা। ওই ম্যাচে আর্জেন্টিনা দলে ছিলেন মেসিও। পরে  ২০১৫ ও ২০১৬ পরপর দুই আসরের ফাইনালে টাইব্রেকারে চিলির কাছে হেরে শিরোপা বঞ্চিত থাকে লিওনেল মেসির আর্জেন্টিনা। কোপা আমেরিকার সবচেয়ে সফল দল উরুগুয়ে। ১৫ বার এই শিরোপা ঘরে তুলেছে উরুগুইয়ানরা। আগামী ২০শে জুন (বৃহস্পতিবার) গ্রুপ পর্বে নিজেদের দ্বিতীয় ম্যাচে প্যারাগুয়ের মুখোমুখি হবে আর্জেন্টিনা। বেলো হরিজেন্তোর মিনেইরো গর্ভনর মাগালায়েস পিন্টো স্টেডিয়ামে খেলা শুরু হবে বাংলাদেশ সময় সকাল সাড়ে ছয়টায়। ‘বি’ গ্রুপে আর্জেন্টিনার আরেক প্রতিপক্ষ কাতার।

অবশ্যই দিতে হবে *
অবশ্যই দিতে হবে *
অন্যান্য খবর