× প্রচ্ছদ অনলাইনপ্রথম পাতাশেষের পাতাখেলাবিনোদনএক্সক্লুসিভভারতবিশ্বজমিনবাংলারজমিনদেশ বিদেশশিক্ষাঙ্গনরকমারিপ্রবাসীদের কথাবই থেকে নেয়া তথ্য প্রযুক্তি শরীর ও মন চলতে ফিরতে ষোলো আনা ইলেকশন কর্নার
ঢাকা, ১৬ জুলাই ২০১৯, মঙ্গলবার

চার পরিবর্তন আসছে ট্যারিফ কমিশন আইনে

এক্সক্লুসিভ

বিশেষ প্রতিনিধি | ১৮ জুন ২০১৯, মঙ্গলবার, ৯:০৮

চারটি পরিবর্তন এনে ‘বাংলাদেশ ট্যারিফ কমিশন (সংশোধন) আইন, ২০১৯’ এর খসড়া চূড়ান্ত অনুমোদন দিয়েছে মন্ত্রিসভা। গতকাল প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার সভাপতিত্বে তার কার্যালয়ে অনুষ্ঠিত মন্ত্রিসভা বৈঠকে এ অনুমোদন দেয়া হয়। বৈঠক শেষে সচিবালয়ে মন্ত্রিপরিষদ সচিব মোহাম্মদ শফিউল আলম প্রেস ব্রিফিংয়ে এ অনুমোদনের কথা জানান। তিনি বলেন, ট্যারিফ কমিশনটা মূলত ১৯৭৩ সালে বঙ্গবন্ধুর আমলে শুরু হয়। প্রেসিডেন্টের আদেশ দিয়ে এটি শুরু করা হয়। আনুষ্ঠানিকভাবে ১৯৯২ সালে এটার আইন প্রণয়ন করা হয়। সেই আইনের মধ্যে কিছুটা ঘাটতি ছিল। সময়ের প্রেক্ষাপটে ব্যবসা-বাণিজ্যের ক্ষেত্রে অনেক কিছু পরিবর্তন হয়ে গেছে।
নতুন আইনে চারটি বিষয়ে পরিবর্তন আনা হয়েছে জানিয়ে মন্ত্রিপরিষদ সচিব বলেন, নতুন আইন অনুযায়ী ‘ট্যারিফ কমিশন’-এর নাম পরিবর্তন করে ‘ট্রেড অ্যান্ড ট্যারিফ কমিশন’ করা হয়েছে।

আর ১৯৯২ সালের ৭ ধারা রিপ্লেস করা হয়েছে অর্থাৎ কমিশনের কাজ বাড়ানো হয়েছে। যেমন- শুল্কনীতি পর্যালোচনা; আন্তর্জাতিক, আঞ্চলিক ও বহুপাক্ষিক বাণিজ্য চুক্তি; ট্রানজিট, ট্রান্সশিপমেন্ট, জিএসপি, শিল্প-বাণিজ্য বিনিয়োগ , শুল্কনীতি, বৈদেশিক বাণিজ্য- এ রকম অনেক বিষয় কার্যপরিধিতে আনা হয়েছে। কার্যপরিধিরও ব্যাপক পরিবর্তন হয়েছে। নতুন আইনে তথ্যের গোপনীয়তা নিশ্চিত করা সংক্রান্ত একটি ধারা যুক্ত করা হয়েছে জানিয়ে শফিউল আলম বলেন, এ প্রতিষ্ঠানটি খুবই সংবেদনশীল, এটা যদি কোনো তথ্য আগেই লিক করে দেয় তাহলে এটা ব্যবসা-বাণিজ্যের প্রতিযোগিতার ক্ষেত্রে বেশ বৈষম্য বা সঙ্কট সৃষ্টি করতে পারে। এদের ওপর একটা ম্যান্ডেট দেয়া হয়েছে তারা গোপনীয়তা রক্ষা করতে বাধ্য থাকবে। এটা আইনের ৮ ধারার ২ উপধারায় ইনসার্ট যুক্ত করা হয়েছে। মন্ত্রিপরিষদ সচিব বলেন, গবেষণা বা সমীক্ষা কাজে সহায়তা দেয়ার লক্ষ্যে কমিশন সরকারের পূর্বানুমোদনক্রমে নির্দিষ্ট মেয়াদের জন্য প্রয়োজনীয় সংখ্যক পরামর্শক ও গবেষণা সহায়তাকারী নিয়োগ করতে পারবে। মূলত এ চারটি পরিবর্তন আনা হয়েছে। এদিকে প্রখ্যাত নাট্যকার, নির্দেশক ও অভিনেতা অধ্যাপক মমতাজউদদীন আহমদের মৃত্যুতে শোক প্রকাশ করেছে মন্ত্রিসভা।

গতকাল মন্ত্রিসভা বৈঠকে এ শোক প্রস্তাব গ্রহণ করা হয়। সচিবালয়ে ফিরে মন্ত্রিপরিষদ সচিব মোহাম্মদ শফিউল আলম বলেন, বরেণ্য নাট্য নির্দেশক ও অভিনয় শিল্পী, লেখক, কলামিস্ট, চলচ্চিত্র ব্যক্তিত্ব, ভাষা সংগ্রামী, শিক্ষাবিদ অধ্যাপক মমতাজউদদীন আহমদের মৃত্যুতে মন্ত্রিসভা শোক প্রকাশ করে ও তার পরিবারের প্রতি সমবেদনা জ্ঞাপন করে। এছাড়া বাংলাদেশ জাতিসংঘের মর্যাদাপূর্ণ অর্থনৈতিক ও সামাজিক পরিষদের (ইকোসক) সদস্য নির্বাচিত হওয়ায় মন্ত্রিসভা প্রধানমন্ত্রী ও সংশ্লিষ্টদের অভিনন্দন জানিয়েছেন। শফিউল আলম বলেন, ইকোসক সদস্য নির্বাচিত হওয়ায় মন্ত্রিসভা প্রধানমন্ত্রী এবং সংশ্লিষ্টদের অভিনন্দন জ্ঞাপন করেছে। মন্ত্রিসভার আকার বৃদ্ধি বা রদবদলের গুঞ্জন সর্ম্পকে জানতে চাইলে মন্ত্রিপরিষদ সচিব মোহাম্মদ শফিউল আলম বলেন, এ বিষয়ে এখন পর্যন্ত আমার কাছে কোনো তথ্য আসেনি, আসলে  তো আপনারা টের পাবেন।

অবশ্যই দিতে হবে *
অবশ্যই দিতে হবে *
অন্যান্য খবর