× প্রচ্ছদ অনলাইনপ্রথম পাতাশেষের পাতাখেলাবিনোদনএক্সক্লুসিভভারতবিশ্বজমিনবাংলারজমিনদেশ বিদেশশিক্ষাঙ্গনরকমারিপ্রবাসীদের কথাবই থেকে নেয়া তথ্য প্রযুক্তি শরীর ও মন চলতে ফিরতে ষোলো আনা ইলেকশন কর্নার
ঢাকা, ২০ জুলাই ২০১৯, শনিবার

গোপালগঞ্জে স্বামী সেজে প্রতিবন্ধী নারীকে ধর্ষণ

অনলাইন

গোপালগঞ্জ প্রতিনিধি | ১৮ জুন ২০১৯, মঙ্গলবার, ২:৪২

তিন সন্তানের জননী এক প্রতিবন্ধী নারীকে ধর্ষণের শিমুল মোল্লা নামে এক রাজ-মিস্ত্রীকে গ্রেপ্তার করেছে পুলিশ। শিমুলের গোপালগঞ্জ বাড়ী সদর উপজেলার লতিফপুর ইউনিয়নের চরমানিকদাহ গ্রামে। সে ওই গ্রামের শাহাজাহান মোল্লার ছেলে। গত রোববার রাত ১০ টার পর জেলা সদরের চরমানিকদাহ গ্রামের (গুচ্ছ পল্লিতে) এ ঘটনা ঘটে। পুলিশ জানিয়েছে, থানায় দায়েরকৃত মামলার ভিত্তিতে তাকে গ্রেপ্তার করা হয়। ধর্ষিতা প্রতিবন্ধী ওই নারী বাদী হয়ে গোপালগঞ্জ সদর থানায় একটি ধর্ষন মামলা দায়ের করেছে।

প্রতিবন্ধী ও নারীর থানায় দেয়া অভিযোগের বরাত দিয়ে এ মামলার তদন্তকারী কর্মকর্তা মো. মুকুল হোসেন সাংবাদিকদের জানিয়েছে, সদর উপজেলার লতিফপুর ইউনিয়নের চরমানিকদাহ গ্রামের (গুচ্ছ পল্লিতে) দীর্ঘদিন ধরে বসবাসকারী ধর্ষিতা ৩ সন্তানের জননীর স্বামী পেশায় একজন পুরি বিক্রেতা। তার স্বামী প্রতিদিন ওই পল্লি থেকে  শহরে পুরি বিক্রী করে গভীর রাতে ঘরে ফিরে। রোববার রাতে খাওয়া-দাওয়া শেষ করে দরজা খোলা রেখে ঘুমিয়ে যায় ওই প্রতিবন্ধী নারী।
আনুমানিক রাত ১০ টার পর একই গ্রামের শিমুল মোল্লা (রাজমিস্ত্রী) ওই নারীর অন্ধকার ঘরে ঢুকে স্বামী সেজে প্রতারনার মাধ্যমে ওই নারীকে ধর্ষণ করে। কিছুক্ষন পর ওই নারী বুঝতে পারে যে ওই পুরুষ তার স্বামী নয়। রাত ১১ টার পর তার স্বামী ঘরে ফিরলে ঘটনাটি তাকে জানায়। সোমবার তার স্বামী প্রতিবন্ধী স্ত্রীকে সঙ্গে নিয়ে থানায় গিয়ে একটি লিখিত অভিযোগ করে। অভিযোগে উল্লেখ করা হয় চরমানিকদাহ গ্রামের শিমুল মোল্লা নামে এক রাজমিস্ত্রি ঘরে ঢুকে স্বামী সেজে কৌশলে প্রতিবন্ধী ওই নারীকে ধর্ষণ করেছে। প্রতিবন্ধী ওই নারীর অভিযোগের ভিত্তিতে শিমুলকে গ্রেফতার করে আদালতে পাঠানো হয়েছে। ডাক্তারী পরিক্ষার জন্য ধর্ষিতা ওই প্রতিবন্ধীকে আজ মঙ্গলবার গোপালগঞ্জ আড়াইশ বেড হাসপাতালে পাঠানো হয়েছে। এদিকে. এ ঘটনায় পুলিশের কাছে আটক রাজমিস্ত্রী শিমুলের পরিবারের লোকজন বলেছে, ষড়যন্ত্রমুলক এ ঘটনায় শিমুলকে ফাঁসানো হয়েছে। গ্রাম্য রাজনীতির স্বীকার শিমুল মোল্লা এ ঘটনার সঙ্গে জড়িত নয় বলেও দাবি তাদের।

অবশ্যই দিতে হবে *
অবশ্যই দিতে হবে *
অন্যান্য খবর