× প্রচ্ছদ অনলাইনপ্রথম পাতাশেষের পাতাখেলাবিনোদনএক্সক্লুসিভভারতবিশ্বজমিনবাংলারজমিনদেশ বিদেশশিক্ষাঙ্গনরকমারিপ্রবাসীদের কথাবই থেকে নেয়া তথ্য প্রযুক্তি শরীর ও মন চলতে ফিরতে ষোলো আনা ইলেকশন কর্নার
ঢাকা, ২০ জুলাই ২০১৯, শনিবার

রাষ্ট্র ও বিচার ব্যবস্থার ওপর জনগণের আস্থা হারিয়ে গেছে

শেষের পাতা

ঠাকুরগাঁও প্রতিনিধি | ১৯ জুন ২০১৯, বুধবার, ১০:০৩

বিএনপি মহাসচিব মির্জা ফখরুল ইসলাম আলমগীর বলেছেন, দেশের মানুষ যখন দেখছে রাষ্ট্রই সবচেয়ে বড় অন্যায়টা করছে, ভোট ডাকাতি করছে, মানুষকে তার ভোটাধিকার প্রয়োগ করতে দিচ্ছে না তখন মানুষ রাষ্ট্রের ওপর থেকে সব ধরনের আস্থা হারিয়ে ফেলেছে। দেশের মানুষ বিচার ব্যবস্থার ওপরও আস্থা হারিয়ে ফেলেছে। এখন যে পার্লামেন্ট চলছে তা জনগণের ভোটে নির্বাচিত পার্লামেন্ট নয়। তাই এখন যে সরকার তারা জনগণের প্রতিনিধিত্ব করে না। গতকাল শহরের মির্জা রুহুল আমিন মিলনায়তনে সদর উপজেলা বিএনপি আয়োজিত এক কর্মীসভায় তিনি এসব কথা বলেন। বিএনপির এমপিদের সংসদে যোগ দেয়ার বিষয়টি ব্যাখ্যা করে মির্জা আলমগীর বলেন, এবারের সংসদ জনগণের ভোটে নির্বাচিত নয়। এরই প্রতিবাদ করতেই দলের নির্দেশে মহাসচিব হিসেবে আমি অবৈধ সংসদে অংশগ্রহণ করিনি। তবে এ অবস্থায়ও আমাদের সংসদ সদস্যরা কেন সংসদে গেলেন সে ব্যাপারে আমরা জনসাধারণকে জবাবদিহি করতে বাধ্য।
আর সেটা হলো- এ দেশে কোনো গণতান্ত্রিক পরিবেশ নেই। আমরা একটা জনসভা করতে পারি না। আমরা গণতান্ত্রিক উপায়ে জনগণকে সঙ্গে নিয়ে সরকারের একটা অন্যায়ের প্রতিবাদ করতে পারি না। জনগণ তার ইচ্ছেমতো লিখতে বা বলতে পারবে না বা পারছে না। তাই পার্লামেন্টে ক্ষুদ্র যে সুযোগটুকু আছে কথা বলার সেটাই আমরা কাজে লাগাতে চাইছি। দ্রুত জনগণকে সম্পৃক্ত করে খালেদা জিয়ার মুক্তি ও নিরপেক্ষ সরকারের অধীনে নির্বাচন দিতে সরকারকে বাধ্য করা হবে মন্তব্য করেন তিনি। সদর উপজেলা বিএনপি’র সভাপতি আনোয়ার হোসেন লালের সভাপতিত্বে অন্যান্যের মধ্যে বক্তব্য রাখেন জেলা বিএনপির সভাপতি তৈমুর রহমান, উপজেলা বিএনপি’র সাধারণ সম্পাদক আব্দুল হামিদ, পৌর বিএনপির সভাপতি এ্যাড. আব্দুল হালিমসহ বিএনপি ও অংগ সংগঠনের নেতৃবৃন্দ।

অবশ্যই দিতে হবে *
অবশ্যই দিতে হবে *
অন্যান্য খবর