× প্রচ্ছদ অনলাইনপ্রথম পাতাশেষের পাতাখেলাবিনোদনএক্সক্লুসিভভারতবিশ্বজমিনবাংলারজমিনদেশ বিদেশশিক্ষাঙ্গনরকমারিপ্রবাসীদের কথাবই থেকে নেয়া তথ্য প্রযুক্তি শরীর ও মন চলতে ফিরতে ষোলো আনা ইলেকশন কর্নার
ঢাকা, ১৬ জুলাই ২০১৯, মঙ্গলবার

লক্ষ্মীপুরে চাঁদার দাবিতে ছাত্রলীগের হামলা

বাংলারজমিন

লক্ষ্মীপুর প্রতিনিধি | ২০ জুন ২০১৯, বৃহস্পতিবার, ৮:৫৯

লক্ষ্মীপুরের চন্দ্রগঞ্জের দেওপাড়া এলাকায় ৫ লাখ টাকা চাঁদার দাবিতে আবদুল কুদ্দুস নামের এক ব্যবসায়ীর বসত বাড়িতে হামলা ও ভাঙচুর করেছে স্থানীয় ছাত্রলীগের নেতা-কর্মীরা। গত মঙ্গলবার দিবাগত রাতে চন্দ্রগঞ্জ থানার উত্তর জয়পুর ইউনিয়নের দেওপাড়া গ্রামে এ ঘটনা ঘটে। এ সময় ব্যবসায়ী আবদুল কুদ্দুস ও তার স্ত্রী কুলছুম, ছেলে নাহিদ ও মেয়ে নাফিজাকে এলোপাতাড়ি পিটিয়ে আহত করা হয়। খবর পেয়ে চন্দ্রগঞ্জ থানা পুলিশ গিয়ে ঘটনাস্থল পরিদর্শন করেন। এদিকে চন্দ্রগঞ্জ থানা ছাত্রলীগের যুগ্ম-আহ্বায়ক মো. রিয়াজ হোসেন জয়ের ইন্ধনে এ হামলার ঘটনা ঘটে বলে অভিযোগ করেন ক্ষতিগ্রস্ত ওই ব্যবসায়ী। ব্যবসায়ীর স্ত্রী কুলসুম ও ছেলে নাহিদ জানান, মঙ্গলবার রাতে ছাত্রলীগের চন্দ্রগঞ্জ থানা ছাত্রলীগের যুগ্ম-আহ্বায়ক রিয়াজ হোসেন জয়ের ইন্ধনে ছাত্রলীগ কর্মী আজিম উদ্দিনের নেতৃত্বে ছাত্রলীগের ২৫/৩০ জনের একটি দল ঘরে ঢুকে তাদের ওপর হামলা করে। এর আগে বাড়িতে গিয়ে আজিম ব্যবসায়ী আবদুল কুদ্দুসের ছেলে নাহিদের মাথায় অস্ত্র ঠেকিয়ে ৫ লাখ টাকা চাঁদা দাবি করে। টাকা দিতে অপরাগতা প্রকাশ করায় এলোপাতাড়ি পিটিয়ে ৪ জনকে আহত করে।
এ সময় বসত বাড়িতে হামলা চালিয়ে ভাঙচুর করে তারা। এদিকে চন্দ্রগঞ্জ থানা ছাত্রলীগের যুগ্ম-আহ্বায়ক রিয়াজ হোসেন জয় জানান, গত কয়েকদিন ধরে দলীয় কাজে ঢাকায় রয়েছি। এসব ঘটনার সঙ্গে আমি বা ছাত্রলীগের কোনো নেতাকর্মী জড়িত নয় বলে দাবি করেন তিনি।
 চন্দ্রগঞ্জ থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা আবুল কালাম আজাদ জানান, বসত ঘরে হামলা ও মারধরের ঘটনায় এখনও কেউ থানায় অভিযোগ করেনি। অভিযোগ পেলে আইনগত ব্যবস্থা নেয়া হবে।

অবশ্যই দিতে হবে *
অবশ্যই দিতে হবে *
অন্যান্য খবর