× প্রচ্ছদ অনলাইনপ্রথম পাতাশেষের পাতাখেলাবিনোদনএক্সক্লুসিভভারতবিশ্বজমিনবাংলারজমিনদেশ বিদেশশিক্ষাঙ্গনরকমারিপ্রবাসীদের কথাবই থেকে নেয়া তথ্য প্রযুক্তি শরীর ও মন চলতে ফিরতে ষোলো আনা ইলেকশন কর্নার
ঢাকা, ২৪ জুলাই ২০১৯, বুধবার

তবুও রশিদকে নিয়ে খুশি গুলবাদিন

ক্রিকেট বিশ্বকাপ-২০১৯

স্পোর্টস ডেস্ক | ২০ জুন ২০১৯, বৃহস্পতিবার, ১০:০০

একগাদা লজ্জার রেকর্ডে ডুবে ইংল্যান্ডের বিপক্ষে ১৫০ রানের বিশাল হার দেখেছে আফগানিস্তান। এদিন বল হাতে বিশ্বকাপে রেকর্ড খরুচে বোলারে নাম লেখান আফগান লেগ স্পিনার রশিদ খান। ৯ ওভার বল করে ১১০ রান খরচ করেন টি-টোয়েন্টির ‘নাম্বার ওয়ান’ এই লেগ স্পিনার। অবশ্য ম্যাচ শেষে রশিদের পাশে দাঁড়ালেন আফগান অধিনায়ক গুলবাদিন নায়েব। তিনি বলেন, ‘সে (রশিদ খান) সেরা স্পিনার। সে বিশ্বের তারকা ক্রিকেটার। এরকম সবার সঙ্গেই হতে পারে, শুধু রশিদের সঙ্গে নয়। সবাই জানে সে কতটা ভয়ঙ্কর বোলার।
আমার মনে হয়ে আজ দিনটি তার ছিল না। এটাই ক্রিকেট। মাঝে মধ্যে আপনি ভালো করবেন, আবার মাঝে মধ্যে আপনি এরকম পরিস্থিতিতে পড়তে পারেন। আমি রশিদকে নিয়ে খুশি। আমার মনে হয়ে এটা কোন বড় ব্যাপার না।’ এদিন ম্যাচে বিধ্বংসী ব্যাটিং করেন ইংল্যান্ডের অধিনায়ক এউইন মরগান। ব্যাট হাতে ৭১ বলে ১৪৮ রানের দুর্দান্ত এক ইনিংস খেলেন। মরগানের ঝড় ব্যাটিংয়ের সুবাদে ৩৯৮ রানের লক্ষ্য পায় আফগানরা। এ হারের কারণ মরগানের ক্যাচ মিসইকে কারণ হিসেবে দেখছেন আফগান অধিনায়ক গুলবাদিন। তিনি বলেন, ‘আমরা মরগানের ক্যাচটা মিস করেছি। এটাতেই মনে হয়ে ম্যাচটাও হাতছাড়া করেছি। ক্যাচটা ধরতে পারলে, হয়তো এতো রান হতো না। তারা (ইংল্যান্ড) আমাদেরকে ম্যাচে কোনো সুযোগই দেয়নি। এর জন্য অবশ্যই মরগানকে কৃতিত্ব দিবো। সে তার ক্লাস দেখিয়েছে। আমি কখনো এমন ব্যাটিং দেখিনি।’ বিশ্বকাপে ৫ ম্যাচে পাঁচটিতেই হেরেছে আফগানিস্তান। এবারের বিশ্বকাপে তাদের সর্বোচ্চ স্কোর ২৪৭/৮। এবং প্রথমবারের মতো ৫০ ওভার খেলতে পেরেছে আফগানরা। ম্যাচ শেষে গুলবাদিন নায়েব বলেন, ‘আমরা প্রতিদিনই উন্নতি করছি। আমরা প্রতিদিনই ভালো করার চেষ্টা করছি। এটা ভালো দিক যে আমরা ৫০ ওভার খেলতে পেরেছি। আমার মনে হয়ে এটা ইতিবাচক হিসেবে দেখা উচিত।’

অবশ্যই দিতে হবে *
অবশ্যই দিতে হবে *
অন্যান্য খবর