× প্রচ্ছদ অনলাইনপ্রথম পাতাশেষের পাতাখেলাবিনোদনএক্সক্লুসিভভারতবিশ্বজমিনবাংলারজমিনদেশ বিদেশশিক্ষাঙ্গনরকমারিপ্রবাসীদের কথাবই থেকে নেয়া তথ্য প্রযুক্তি শরীর ও মন চলতে ফিরতে ষোলো আনা ইলেকশন কর্নার
ঢাকা, ২৩ জুলাই ২০১৯, মঙ্গলবার

জুড়ী ইউএনওকে হুমকি উপজেলা চেয়ারম্যানের দুঃখ প্রকাশ

বাংলারজমিন

স্টাফ রিপোর্টার, মৌলভীবাজার থেকে | ২৪ জুন ২০১৯, সোমবার, ৭:৫৭

 উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তাকে লাঞ্ছিত করার ঘটনায় দুঃখ প্রকাশ করলেন জুড়ী উপজেলা পরিষদ চেয়ারম্যান এম এ মোঈদ ফারুক। শনিবার রাতে উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তার কার্যালয়ে এক সমঝোতা বৈঠকে এই অনাকাঙ্ক্ষিত ঘটনার জন্য দুঃখ প্রকাশ করেন তিনি। বৈঠক সূত্রে জানা যায় জুড়ীতে ওই অনাকাঙ্ক্ষিত ঘটনাসহ সৃষ্ট বিভিন্ন ঘটনার পরিপ্রেক্ষিতে মৌলভীবাজারের অতিরিক্ত জেলা প্রশাসক (সার্বিক) মামুনুর রশীদ জুড়ী উপজেলায় এক বৈঠকে বসেন। এ সময় অতিরিক্ত পুলিশ সুপার মৌলভীবাজার (সদর সার্কেল) রাশেদুল ইসলাম, উপজেলা চেয়ারম্যান এম এ মোঈদ ফারুক, উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা অসীম চন্দ্র বণিক, জুড়ী থানার অফিসার ইনচার্জ মো. জাহাঙ্গীর হোসেন সরদার, ইউপি চেয়ারম্যান সালেহ উদ্দিন আহমদ, শ্রীকান্ত দাশ, মাছুম রেজা, পরিবহন শ্রমিক ইউনিয়ন ও ব্যবসায়ী নেতৃবৃন্দ উপস্থিত ছিলেন। সভায় উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তার সঙ্গে অসদাচরণ ও পরিবহন শ্রমিকদের সঙ্গে ঘটে যাওয়া অসৌজন্যমূলক আচরণের বিষয়ে উপজেলা চেয়ারম্যান এম এ মোঈদ ফারুক দুঃখ প্রকাশ করেন। সেই সঙ্গে ফুটপাতের দোকানপাট ভাঙচুর করার বিষয়ে পরিবহন শ্রমিকদের পক্ষে সিএনজি সমিতির সভাপতি মতিউর রহমান চুনু দুঃখ প্রকাশ করে ক্ষমা চান। অপরদিকে বাসচাপায় ফুটপাথের ফল বিক্রেতার মৃত্যুর ঘটনায় উপজেলা চেয়ারম্যান এমএ মোঈদ ফারুক জায়ফরনগর ইউনিয়নবাসীকে দায়ী করে বক্তব্য দেয়া ও তাদের হেয়প্রতিপন্ন করার বিষয়টি স্থানীয় সংসদ সদস্য, পরিবেশ, বন ও জলবায়ু পরিবর্তনমন্ত্রী মো. শাহাব উদ্দিন সমাধান করার আশ্বাস দিয়েছেন বলে ইউপি চেয়ারম্যান মাছুম রেজা জানান। উল্লেখ্য, গত মঙ্গলবার রাতে উপজেলা শহরের ভবানীগঞ্জ বাজারে বাসচাপায় ইব্রাহিম আলী (৬০) নামে ফুটপাথের এক ফল বিক্রেতার মৃত্যু হয়।
পরদিন পরিবহন শ্রমিকরা ফুটপাতের কিছু দোকান ভাঙচুর করে। এ ঘটনায় শুক্রবার সকালে উপজেলা প্রশাসনে এক জরুরি সভায় ফুটপাতের সকল দোকান স্থানান্তর ও অবৈধ গাড়ি পার্কিং সরানোর সিদ্ধান্ত হয়। উপজেলা চেয়ারম্যানের মালিকানাধীন জুড়ী নিউ মার্কেটের সামনে সরকারি জায়গায় বেশ কিছু অবৈধ দোকান রয়েছে যা থেকে মাসে লাখ টাকা ভাড়া আদায় করেন। এবং উপজেলা উন্নয়ন তহবিল (এডিপি ও রাজস্ব) ২০১৮-১৯ অর্থবছরের কাজ উপজেলা চেয়ারম্যান তার পছন্দের ঠিকাদারদের মধ্যে বণ্টন করতে না পেরে উপজেলা চেয়ারম্যান জুড়ী উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তার ওপর ক্ষিপ্ত হন। শুক্রবার রাত প্রায় ১০টায় বাসার সামনে দাঁড়িয়ে থাকা জুড়ী উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা অসীম চন্দ্র বনিককে উপজেলা চেয়ারম্যান অশ্রাব্যভাষা ব্যবহার ও লাঞ্ছিত করে দেখে নেয়ার হুমকি দেন। তাছাড়া শুক্রবার সন্ধ্যায় ভবানীগঞ্জ বাজারে এক প্রতিবাদ সভায় উপজেলা চেয়ারম্যান পরিবহন শ্রমিক ও জায়ফরনগর ইউনিয়নবাসীকে গালিগালাজ করেন বলে অভিযোগ ছিল। এ ঘটনায় শুক্রবার বিকালে পরিবহন শ্রমিকরা প্রতিবাদ মিছিল করার প্রস্তুতি নিচ্ছিল। থমথমে এই পরিস্থিতিতে আইনশৃঙ্খলা রক্ষায় সকাল থেকে জুড়ী উপজেলা শহরের বিভিন্ন স্থানে অতিরিক্ত পুলিশ মোতায়েন করা হয়। এদিকে উপজেলা চেয়ারম্যানের বিরুদ্ধে জায়ফরনগর ইউনিয়নবাসী মানববন্ধনের প্রস্তুতি নিলে স্থানীয় সংসদ সদস্যের হস্তক্ষেপে তা বাতিল করা হয়। সম্প্রতি উপজেলা চেয়ারম্যান কর্তৃক ঘটে যাওয়া এমন অনাকাঙ্ক্ষিত ঘটনাগুলির সত্যতা নিশ্চিত করেন ওই সমঝোতা বৈঠকে থাকা জনপ্রতিনিধি ও গণ্যমান্যরা। জুড়ী উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা অসীম চন্দ্র বনিক গতকাল বিকালে সমঝোতা বৈঠকের সত্যতা নিশ্চিত করে মুঠোফোনে মানবজমিনকে বলেন উপজেলা চেয়ারম্যানের সঙ্গে ঘটে যাওয়া অনাকাঙ্ক্ষিত ঘটনার নিষ্পত্তি হয়েছে জেলার ঊর্ধ্বতন কর্মকর্তাদের উপস্থিতিতে।

অবশ্যই দিতে হবে *
অবশ্যই দিতে হবে *
অন্যান্য খবর