× প্রচ্ছদ অনলাইনপ্রথম পাতাশেষের পাতাখেলাবিনোদনএক্সক্লুসিভভারতবিশ্বজমিনবাংলারজমিনদেশ বিদেশশিক্ষাঙ্গনরকমারিপ্রবাসীদের কথাবই থেকে নেয়া তথ্য প্রযুক্তি শরীর ও মন চলতে ফিরতে ষোলো আনা ইলেকশন কর্নার
ঢাকা, ২০ জুলাই ২০১৯, শনিবার

মানুষ সব ধরনের নির্বাচন থেকে মুখ ফিরিয়ে নিয়েছে: আবু সাইয়িদ

বাংলারজমিন

স্টাফ রিপোর্টার, ময়মনসিংহ থেকে | ২৪ জুন ২০১৯, সোমবার, ৮:২৩

গণফোরাম কেন্দ্রীয় কমিটির নির্বাহী সভাপতি ও সাবেক তথ্যমন্ত্রী অধ্যাপক আবু সাইয়িদ বলেছেন আমরা শোষণমুক্ত সমাজ গড়তে অঙ্গীকারবদ্ধ। আমরা ৭২-এর সংবিধানের আলোকে দেশ গড়তে চাই। দেশের মালিকানা জনগণের হাতে ফিরিয়ে দিতে চাই। আইনের শাসন ও জবাবদিহিমূলক কার্যকর গণতন্ত্র ও সমাজে সুশাসন প্রতিষ্ঠায় ঐক্যবদ্ধ আন্দোলন গড়ে তুলতে হবে। তিনি বলেন, হাজার হাজার কোটি টাকার খরচ করে রাতের আধারে প্রশাসনকে ব্যবহার করে ভোটারবিহীন নির্বাচনী তামাশা করা হয়েছে। তাই মানুষ আজ সব ধরনের নির্বাচন থেকে মুখ ফিরিয়ে নিয়েছে। দেশের টাকা বিদেশে পাচার হয়ে যাচ্ছে। উৎপাদিত ফসলের ন্যায্যমূল্য না পেয়ে কৃষকের মাঝে হাহাকার বিরাজ করছে।
অসহায় কৃষকের পাশে আজ সরকার নেই। তিনি অবিলম্বে ফসলের ন্যায্যমূল্য কৃষকের হাতে তুলে দেয়ার পদ্ধতি নিশ্চিত করে কৃষিঋণ মওকুফ করার জন্য সরকারের প্রতি জোর দাবি জানান। শনিবার ২২শে জুন বিকালে স্থানীয় মুসলিম ইনস্টিটিউট মিলনায়তনে গণফোরাম ময়মনসিংহ জেলা শাখার উদ্যোগে এক কর্মিসভায় প্রধান অতিথির বক্তব্যদানকালে অধ্যাপক আবু সাইয়িদ এসব কথা বলেন। অ্যাডভোকেট এএইচএম খালেকুজ্জামানের সভাপতিত্বে অনুষ্ঠিত জেলা কর্মিসভার প্রধানবক্তা গণফোরাম কেন্দ্রীয় কমিটির সাধারণ সম্পাদক ড. রেজা কিবরিয়া বলেন, সরকার নতুন বাজেটের মাধ্যমে দেশবাসীর মাঝে আরো ঋণের বোঝা চাপিয়ে দিয়েছে। এই উচ্চাভিলাষী বাজেটে কৃষক, শ্রমিক, মেহনতি সাধারণ মানুষের জন্য কোনো বিশেষ বরাদ্দ রাখা হয়নি। ঋণখেলাপিদের জন্য বিশেষ ছাড় ঘোষণা করা হয়েছে। শিক্ষা ও কর্মসংস্থান খাতে বাজেট কমানো হয়েছে। আমরা সুষম বাজেটের দেখতে চাই। অনুষ্ঠানে আরো বক্তব্য রাখেন জগলুল হায়দার আফরিক, অ্যাডভোকেট মোহসিন রশিদ, মোস্তাক আহমেদ, লতিফুল বারী হামিম, মাহমুদুল্লাহ মধু, শাহ নূরুজ্জামান, মিজানুর রহমান, অ্যাডভোকেট একেএম রায়হান উদ্দিন, নোমানূর রশিদ নোমান, মো. মুন্‌জুরুল হক মুন্‌জু প্রমুখ। অনুষ্ঠান পরিচালনা করেন জেলা গণফোরাম সাধারণ আবুল হাসনাত।





অবশ্যই দিতে হবে *
অবশ্যই দিতে হবে *
অন্যান্য খবর