× প্রচ্ছদ অনলাইনপ্রথম পাতাশেষের পাতাখেলাবিনোদনএক্সক্লুসিভভারতবিশ্বজমিনবাংলারজমিনদেশ বিদেশশিক্ষাঙ্গনরকমারিপ্রবাসীদের কথাবই থেকে নেয়া তথ্য প্রযুক্তি শরীর ও মন চলতে ফিরতে ষোলো আনা ইলেকশন কর্নার
ঢাকা, ২৩ জুলাই ২০১৯, মঙ্গলবার

সুদের টাকা দিতে না পারায় যুবককে বেঁধে নির্যাতন

বাংলারজমিন

মির্জাগঞ্জ (পটুয়াখালী) প্রতিনিধি | ২৪ জুন ২০১৯, সোমবার, ৯:১০

মির্জাগঞ্জে সুদের পাওনা টাকা দিতে বিলম্ব হওয়ায় শিপণ ঋষি (২৫) নামে এক যুবকে হাত-পা বেঁধে নির্মমভাবে নির্যাতন করে ফেলে রাখার অভিযোগ পাওয়া গেছে। ঘটনাটি ঘটেছে বৃহস্পতিবার রাতে উপজেলার মির্জাগঞ্জ ইউনিয়নের মির্জাগঞ্জ গ্রামে। ওই যুবক উপজেলার মির্জাগঞ্জ মাজার এলাকার নিতাই ঋষির ছেলে। তাকে বরিশাল মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে ভর্তি করা হয়েছে। শিপনের ছোট ভাই বিশ্বজিৎ জানান, মাজার মোড়ে সেলুনের দোকান দেয় দুই ভাই শিপন ও বিশ্বজিৎ। অভাবের সংসার মাঝে মধ্যে এলাকার সুদ ব্যবসায়ী মো. জুয়েল হাওলাদারের কাছ থেকে টাকা-পয়সা ধার নেন তারা এবং সময়মতো পরিশোধও করেন। তবে আমার ভাইয়ের কাছে ৩ হাজারের মতো টাকা পাওনা ছিল। পাওনা টাকা সময়মতো দিতে না পারায় গত বৃহস্পতিবার রাতে দোকান থেকে বাড়ি ফেরার পথে একা পেয়ে আমার ভাইকে হাত-পা ও মুখ বেঁধে মারধর করে মাজারের মাঠে ফেলে রাখে জুয়েল।
অনেক খোঁজাখুঁজির পরে মাজারের পাহারাদার অচেতন অবস্থায় পেয়ে আমার ভাইকে বাড়ি পৌঁছে দেয়। পরে তাকে চিকিৎসার জন্য বরিশাল শেবাচিমে নিয়ে যাওয়া হয়। আমরা এর ন্যায্য বিচার চাই। মির্জাগঞ্জ থানার অফিসার ইনচার্জ মো. মাসুমুর রহমান বিশ্বাস জানান, এ ব্যাপারে কোনো অভিযোগ পাইনি,  অভিযোগ পেলে আইনি ব্যবস্থা গ্রহণ করা হবে।

অবশ্যই দিতে হবে *
অবশ্যই দিতে হবে *
অন্যান্য খবর