× প্রচ্ছদ অনলাইনপ্রথম পাতাশেষের পাতাখেলাবিনোদনএক্সক্লুসিভভারতবিশ্বজমিনবাংলারজমিনদেশ বিদেশশিক্ষাঙ্গনরকমারিপ্রবাসীদের কথাবই থেকে নেয়া তথ্য প্রযুক্তি শরীর ও মন চলতে ফিরতে ষোলো আনা ইলেকশন কর্নার
ঢাকা, ২০ জুলাই ২০১৯, শনিবার

ভয় পেয়েছিলেন কোহলিরা

খেলা

স্পোর্টস ডেস্ক | ২৪ জুন ২০১৯, সোমবার, ৯:৪৬

আফগানিস্তানের বিপক্ষে ১১ রানে জয় পেয়েছে ভারত। এ জয়কে ‘স্মরণীয় জয়’ বলছেন ভারত অধিনায়ক বিরাট কোহলি। ম্যাচের শেষ ওভারে মোহাম্মদ শামির হ্যাটট্রিকে ২২৪ রানের মত অল্প রানের পুঁজি নিয়েও দলের জয়ে আশ্বস্ত অধিনায়ক বিরাট কোহলি। তবে আফগানদের বিপক্ষে টুর্নামেন্টে প্রথমবার হারের ভীতি অনুভব হয়েছে কোহলির দলের। তাই তো ম্যাচ শেষে কোহলি বলেন, ‘অবশ্য একটা সময় জয় নিয়ে সন্দীহান হয়ে পড়েছিলাম। তবে আমাদের আত্মবিশ্বাস ছিল নিজেদের উপর। পিচে যখন যাই তখন বুঝতে পারছিলাম পিচের কি অবস্থা।’
টস জিতে প্রথমে ব্যাট করতে নেমে অস্বস্তিতে পড়ে ভারত। ব্যাটিং বিপর্যয়ের পর শেষ পর্যন্ত ২২৪ রান তুলতে পারে আসরের অন্যতম ফেবারিটরা।
জবাবে বল হাতে শেষ ওভারের থ্রিলারের জয় তুলে নেয় ভারত। এ জয় নিয়ে কোহলি বলেন, ‘এমনটা প্রত্যাশিত ছিল। টস জিতে ব্যাটিং করতে নেমে মন্থর উইকেট দেখেই মনে হয়েছিল ২৬০-২৭০ রান খুব ভালো স্কোর হবে।’ এদিন বল হাতে দুর্দান্ত ছিলেন বুমরাহ ও শামি। বুমরাহ ১০ ওভার বল করে ৩৯ রানে ২ উইকেট তুলে নেন। এবং শামি ৯.৫ ওভারে ৪০ রান খরচে ৪ উইকেট শিকার করেন।
ভারতের বোলিং নিয়ে কোহলি বলেন, ‘আমরা বুমরাহকে স্মার্টলি ব্যবহার করতে চেয়েছি। দুই উইকেট পেয়েছে সে। শামি আজ দুর্দান্ত বোলিং করেছে। সবার চেয়ে বেশি বল মুভ করাতে পেরেছে শামি। এ ম্যাচটা আমাদের জন্য গুরুত্বপূর্ণ ছিল। ম্যাচ আমাদের পরিকল্পনা অনুযায়ী হয়নি। তবে দারুণ ভাবে ঘুরে দাঁড়িয়েছি।’ পাশাপাশি আফগান স্পিনারদের বিরুদ্ধে ভারতীয় দলের ব্যাটিং নিয়ে বলতে গিয়ে টানা তিন ম্যাচে অর্ধশতরানকারী বিরাট কোহলি জানান, ‘মাঠে প্রবেশ করেই পিচের চরিত্র বুঝতে পেরেছিলাম। ক্রস ব্যাট নয় বরং এই পিচে সোজা ব্যাটে অনেক বেশি মাটি ঘেঁষা শট নেয়া প্রয়োজন ছিল। সেইসঙ্গে আফগানিস্তান দলে প্রথম সারির তিন রিস্ট-স্পিনারের উপস্থিতি ব্যাটসম্যানদের কাজটা অনেক কঠিন করে তুলেছিল।’

অবশ্যই দিতে হবে *
অবশ্যই দিতে হবে *
অন্যান্য খবর