× প্রচ্ছদ অনলাইনপ্রথম পাতাশেষের পাতাখেলাবিনোদনএক্সক্লুসিভভারতবিশ্বজমিনবাংলারজমিনদেশ বিদেশশিক্ষাঙ্গনরকমারিপ্রবাসীদের কথাবই থেকে নেয়া তথ্য প্রযুক্তি শরীর ও মন চলতে ফিরতে ষোলো আনা ইলেকশন কর্নার
ঢাকা, ২৩ জুলাই ২০১৯, মঙ্গলবার

ধোনির সমালোচনায় টেন্ডুলকার

খেলা

স্পোর্টস ডেস্ক | ২৪ জুন ২০১৯, সোমবার, ৯:৪৭

সচরাচর কোনো ক্রিকেটারকে নিয়ে সমালোচনা করতে দেখা যায় না শচীন টেন্ডুলকারকে। কিন্তু গতকাল আফগানিস্তানের বিপক্ষে দলের মিডল-অর্ডার ব্যাটসম্যানদের ব্যাটিং দেখে যেন আর চুপ করে থাকতে পারলেন না ভারতের কিংবদন্তি ক্রিকেটার। সমালোচনা করলেন মহেন্দ্র সিং ধোনির মতো অভিজ্ঞ ব্যাটসম্যানের ব্যাটিং নিয়েও। আফগানিস্তানের বিপক্ষে ১১ রানে ম্যাচ জিতলেও, গতকাল জয় পেতে ঘাম ছুটে যায় ভারতীয়দের। তুলনামূলক দুর্বল প্রতিপক্ষ হলেও, ভারতের জন্য কাল হয়ে দাঁড়ায় দলের ব্যাটিং ব্যর্থতা। বিশেষ করে মিডল অর্ডার ব্যাটসম্যানদের মন্থর গতির ব্যাটিং। ইংল্যান্ডের উইকেটে যা দেখতে বেশ বেমানান।
পাঁচে ব্যাটিং করতে নামা ধোনি শনিবার ৫২ বলে করেন মাত্র ২৮ রান। স্ট্রাইকরেট মাত্র ৫৩.৫৮! বিশ্বের অন্যতম সেরা ফিনিশার যেন টেস্ট খেলছিলেন।
কেদার যাদব ফিফটি তুলে নিলেও তিনিও খেলেন কচ্ছপ গতির ইনিংস। আর দলের এরকম পারফরম্যান্সে চিন্তিত ভারতের ব্যাটিং ইশ্বর। বিশ্বকাপের সর্বাধিক রানের মালিক শচীন টেন্ডুলকার ইন্ডিয়া টুডেকে বলেন, ‘আমি কিছুটা আশাহত। আমাদের ব্যাটিং আরো ভালো হতে পারতো। কেদার আর ধোনির জুটি দেখে আমি মোটেও খুশি নই। তারা কচ্ছপ গতিতে ব্যাট করেছে। আমরা তাদের স্পিনের বিরুদ্ধে ৩৪ ওভার ব্যাটিং করে মাত্র ১১৯ রান করেছি। দেখাই যাচ্ছে আমরা স্পিনে বেশ দুর্বল। আর এতে ইতিবাচক কোনো কিছুও আমার চোখে পড়ছে না।’
ভারতের হয়ে ম্যাচে দ্বিতীয় সর্বোচ্চ ৫২ রান করা যাদবকে নিয়ে শচীন আরো বলেন, কেদার যাদব অনেক চাপে ছিল। সে এখনো তার নিজের খোলস ছেড়ে বের হয়ে আসতে পারেনি। সে যখন উইকেটে নামে তখন কারও (ধোনি) উচিত ছিল তার ওপর থেকে বোঝাটা হালকা করে দেয়া। কিন্তু তা হয়নি। তবে ধোনি-যাদব কেউ-ই প্রয়োজনীয় স্ট্রাইকরেট নিয়ে খেলতে পারেনি। মাঝের ওভারগুলোতে আরো ভালো ব্যাটিং করা যেত।

অবশ্যই দিতে হবে *
অবশ্যই দিতে হবে *
অন্যান্য খবর