× প্রচ্ছদ অনলাইনপ্রথম পাতাশেষের পাতাখেলাবিনোদনএক্সক্লুসিভভারতবিশ্বজমিনবাংলারজমিনদেশ বিদেশশিক্ষাঙ্গনরকমারিপ্রবাসীদের কথাবই থেকে নেয়া তথ্য প্রযুক্তি শরীর ও মন চলতে ফিরতে ষোলো আনা ইলেকশন কর্নার
ঢাকা, ২৩ জুলাই ২০১৯, মঙ্গলবার

নাঙ্গলকোটে গৃহবধূকে নির্যাতন

বাংলারজমিন

নাঙ্গলকোট (কুমিল্লা) প্রতিনিধি | ২৫ জুন ২০১৯, মঙ্গলবার, ৮:৩৬

কুমিল্লার নাঙ্গলকোটে মাহমুদা আক্তার নামের এক গৃহবধূকে শ্বশুর, জা ও প্রতিবেশী কর্তৃক নির্যাতন করে জোরপূর্বক বাড়ি থেকে উচ্ছেদ করার অভিযোগ পাওয়া গেছে। গত রোববার গভীর রাতে উপজেলার রায়কোট উত্তর ইউপির কুকুরীখিল গ্রামের উত্তরপাড়া আবুল খায়েরের বাড়িতে এ ঘটনা ঘটে। ওই রাতে খবর পেয়ে থানা পুলিশ ঘটনাস্থলে গিয়ে গৃহবধূকে উদ্ধার করে তার বাবার বাড়িতে পাঠায়। এ ঘটনায় গতকাল সোমবার গৃহবধূ বাদী হয়ে নাঙ্গলকোট থানায় একটি সাধারণ ডায়েরি করেন। অভিযোগ সূত্রে জানা যায়, কুকুরীখিল গ্রামের আবুল খায়েরের বড় ছেলে হুমায়ুন কবিরের সঙ্গে গত ১৪ বছর আগে পার্শ্ববর্তী উত্তর মাহিনী গ্রামের মাহবুবুল হকের মেয়ে মাহমুদা আক্তারের বিয়ে হয়। বিয়ের পর থেকে তাদের সংসার ভালোই চলছিল। এর মধ্যে মাহমুদা আক্তারের স্বামী হুমায়ুন কবির বাড়িতে দালানঘর নির্মাণ করে বসবাস করে আসছিল। গত ৫ বছর থেকে মাহমুদা আক্তারকে তার শ্বশুর আবুল খায়ের ও জা শহিদা বেগম বাড়ি থেকে উচ্ছেদ করার জন্য বিভিন্নভাবে নির্যাতন চালায়।
রোববার রাতে শ্বশুর আবুল খায়ের, জা শহিদা ও প্রতিবেশী মানিক, মিন্টু, আব্দুল হান্নান, ফরিদ মাহমুদা আক্তারকে নির্যাতন করে বাড়ি থেকে বের করে দেয়। খবর পেয়ে পুলিশ গিয়ে তাকে উদ্ধার করে। এ বিষয়ে নাঙ্গলকোট থানার ওসি (তদন্ত) আশ্রাফুল ইসলাম বলেন, গৃহবধূ মাহমুদা আক্তার নিরাপত্তাহীনতায় থাকার কারণে পুলিশ গিয়ে তাকে উদ্ধার করে তার পিতার নিকট হস্তান্তর করে।

অবশ্যই দিতে হবে *
অবশ্যই দিতে হবে *
অন্যান্য খবর