× প্রচ্ছদ অনলাইনপ্রথম পাতাশেষের পাতাখেলাবিনোদনএক্সক্লুসিভভারতবিশ্বজমিনবাংলারজমিনদেশ বিদেশশিক্ষাঙ্গনরকমারিপ্রবাসীদের কথাবই থেকে নেয়া তথ্য প্রযুক্তি শরীর ও মন চলতে ফিরতে ষোলো আনা ইলেকশন কর্নার
ঢাকা, ২০ জুলাই ২০১৯, শনিবার
বিশ্বমিডিয়ার চোখে

সাকিবের জন্য কোনো বিশেষণই যেন যথেষ্ট নয়

বিশ্বজমিন

মানবজমিন ডেস্ক | ২৫ জুন ২০১৯, মঙ্গলবার, ১০:৩৬

শুধু অলরাউন্ডারই নন তিনি। ‘স্পেশাল অলরাউন্ড পারফরমেন্স’ দেখিয়েছেন বাংলাদেশের সাকিব আল হাসান। তিনি বিশ্বকাপে আফগানিস্তানের স্বপ্নকে ডুবিয়ে দিয়েছেন। নিজের একদিনের ক্রিকেটে সর্বোত্তম বোলিং ক্যারিয়ার প্রদর্শন করে রেকর্ড গড়েছেন। ‘সুপার্ব’ ক্রিকেট প্রদর্শন করে এখন ভারতকে ‘আপসেট’ করার অপেক্ষায় সাকিব। বাংলাদেশ ক্রিকেট হতে পারে ইংল্যান্ডের কাঁধে গরম নিশ্বাস। আফগানিস্তান বধের পর ‘বাংলাদেশের বিস্ময়’ সাকিব আল হাসানকে নিয়ে এসব কথা লিখেছে আন্তর্জাতিক সংবাদ মাধ্যম। তারা সাকিবের প্রশংসা এমনভাবে করেছে, যাতে মনে হয় আর কোনো বিশেষণ বাকি নেই।
সাকিবের প্রশংসা করতে হলে নতুন বিশেষণ আবিষ্কার করতে হবে।

তাই ভারতের দ্য হিন্দুর বিজনেস লাইন সাকিবকে ‘সেনসেশনাল সাকিব’ হিসেবে আখ্যায়িত করেছে। তাদের শিরোনাম ‘সেনসেশনাল সাকিব বাংলাদেশের সেমিফাইনালের আশা জাগিয়ে রাখলেন’। এতে সাকিবকে শুধু অলরাউন্ডার হিসেবেই আখ্যায়িত করা হয় নি। তার আগে একটি ‘স্পেশাল’ শব্দ যোগ করা হয়েছে। বলা হয়েছে, স্পেশাল অল রাউন্ড পারফরমেন্স নিয়ে হাজির হয়েছেন সাকিব আল হাসান। সোমবার ৬২ রানে আফগানিস্তানকে বধ করে চালকের আসনে তিনিই ছিলেন বাংলাদেশে। মুশফিকুর রহিম ও সাকিব কঠিন অবস্থায় তাদের ‘ক্লাস’ বা জাত প্রদর্শন করেছেন। নিজে অর্ধশত রান করে টুর্নামেন্টে সর্বোচ্চ রানের রেকর্ড এখন ওই সাকিবের (৫১)। শুধু তাই-ই নয়। তিনি বল হাতেও ‘এক্সেপশনাল’ বা ব্যতিক্রমী। বাম হাতি এই স্পিনার পুরো ১০ ওভার বল করে মাত্র ২৯টি রান দিয়েছেন। আর তুলে নিয়েছেন ৫টি উইকেট। এটিই একদিনের ক্রিকেটে তার সেরা বোলিং।
 
এই পত্রিকাটি আরো লিখেছে, ‘অবিশ্বাস্য প্রচেষ্টায়’ সাকিব ভারতের যুবরাজ সিংয়ের পর নিজেকে আরো একটি উচ্চতায় তুলে ধরেছেন। বিশ্বকাপে এক ম্যাচে ৫০ রান করে ৫ উইকেট নিয়েছিলেন এর আগে যুবরাজ সিং। তারপরেই দ্বিতীয় নামটি সাকিবের। অস্ট্রেলিয়ার ডেভিড ওয়ার্নারের সবচেয়ে বেশি রানের রেকর্ডকেও টপকে গেছেন তিনি। সাকিব সম্পর্কে এই পত্রিকাটি ইংরেজিতে এভাবে লিখেছে- বিশ্বের ‘প্রিমিয়ার অল-রাউন্ডার’ এরই মধ্যে পর পর দুটি শত রান পূর্ণ করেছেন। করেছেন তিনটি অর্ধ শতক। অন্যদিকে তার দলকে সামনে এগিয়ে নিতে সাকিবের পাশাপাশি আরেক উদাহরণ সৃষ্টি করেছেন মুশফিকুর রহিম।
 
অনলাইন ফ্রান্স ২৪-এর শিরোনাম ‘বিশ্বকাপে বাংলাদেশ সেমিফাইনালে খেলার আশা জাগিয়ে তোলার পর ভারতকে আপসেট করতে চান সাকিব’। এতে বলা হয়, সেমি ফাইনালে দলকে খেলানোর যোগ্যতায় টিকিয়ে রাখতে সাকিব ‘সুপার্ব ডিসপ্লে’ প্রদর্শন করেছেন। এখন ভারতকে আপসেট করার দিকে দৃষ্টি তার। বাংলাদেশের সামনে এখন ভারত ও পাকিস্তান। ২০০৭ সালের বিশ্বকাপে বাংলাদেশ ‘ফেমাসলি’ হারিয়েছিল ভারতকে। তাই বিরাট কোহলির দলকে আগামী ২রা জুলাই বিপদে ফেলতে পারে বলে আস্থা রয়েছে সাকিবের। তিনি ভারতকে উদ্দেশ্য করে সাংবাদিকদের বলেছেন, তারা সেরা দল। তারা এমন একটি দল, যারা চ্যাম্পিয়ন হওয়ার আশা করছে। ফলে তাদের বিরুদ্ধে খেলাটা সহজ হবে না। কিন্তু এটা আমি বলছি, আমরা আমাদের সেরা খেলাটা দিতে চাই। এক্ষেত্রে অভিজ্ঞতা আমাদের সাহায্য করবে। ভারতকে হারানোর জন্য আমাদেরকে আমাদের সেরা ক্রিকেটটা খেলতে হবে। তাদের আছে বিশ্বমানের খেলোয়াড়। আমি বলছি আমাদেরকে সেরাটা দিতে হবে। আমি বিশ্বাস করি, আমাদের টিমও যথেষ্ট যোগ্যতাসম্পন্ন।
 
ফ্রান্স ২৪ আরো লিখেছে, বাংলাদেশের টেস্ট ও টি২০ দলের অধিনায়ক সাকিব। তিনি বলেছেন, বিশ্বমঞ্চে তার সফলতা সন্তোষজনক। এর অর্থ এই নয় যে, তিনি তা নিয়ে আত্মতুষ্টিতে থাকবেন। তার ভাষায়, খুবই সন্তোষজনক। এটা আমার জন্য প্রয়োজন ছিল। আমার জন্য এবং টিমের জন্য এটা খুবই গুরুত্বপূর্ণ। সৌভাগ্য যে, আমি এটা করতে পেরেছি। আমি খুবই খুশি এ জন্য যে, আমাদের টুর্নামেন্ট সামনে অগ্রসর হচ্ছে। এখনও আমাদের সামনে অত্যন্ত গুরুত্বপূর্ণ দুটি ম্যাচ বাকি আছে। আশা করি, এর পরেও থাকবে।

লন্ডনের অনলাইন গার্ডিয়ানের শিরোনাম ‘আফগানিস্তানকে ডুবিয়ে দিয়ে বাংলাদেশের আশাকে বাঁচিয়ে রাখলেন সাকিব আল হাসান’। যদি ইংল্যান্ডের সামনে এমন উদাহরণ প্রয়োজন হয় যে, কোনো ভঙ্গুর আশাকে কিভাবে জাগিয়ে তুলতে হয়, তাহলে বাংলাদেশ বর্তমানে তাদের কাঁধের ওপর নিশ্বাস ফেলছে, সেটাই হতে পারে সেই উদাহরণ। মাঠে গর্জনরত বাঘের পোশাক পরা ভক্ত। তাদের সেই গর্জনকে সামনে রেখে বাংলাদেশ যে পারফরমেন্স প্রদর্শন করেছে, তাতে তাদের মধ্যে জেনুইন আশা জেগে উঠেছে যে, টুর্নামেন্টের শেষ চারটি দলের মধ্যে পৌঁছে যেতে পারবে তারা। বাংলাদেশ বর্তমানে তালিকায় ৭ পয়েন্ট নিয়ে ৫ম অবস্থানে। ইংল্যান্ডের চেয়ে এক পয়েন্টে পিছিয়ে আছে তারা। তাদের এখনও দুটি ম্যাচ বাকি। একটি ভারত, অন্যটি পাকিস্তানের সঙ্গে। যদি এই দুটি ম্যাচেই বাংলাদেশ বিজয়ী হয়, তাহলে শেষ চারটি দলের মধ্যে মর্গানের ইংল্যান্ডের নাম লেখাতে হলে তাদেরকে অবশ্যই আরো তিনটি ম্যাচের মধ্যে কমপক্ষে দুটি ম্যাচে বিজয় অর্জন করতে হবে। মঙ্গলবার লর্ডসে অস্ট্রেলিয়ার মুখোমুখি হতে হবে তাদেরকে। এরপরে রয়েছে ভারত ও নিউজিল্যান্ডের সঙ্গে তাদের খেলা। এর কোনটির বিষয়েই নিশ্চিত করে কিছু বলা যায় না।

অন্যদিকে সাকিব আল হাসান যে ফর্মে আছেন তাতে বাংলাদেশ যেকোনো কিছুকে সম্ভব করে তুলতে পারে। তিনি বিশ্বের ‘বেস্ট অলরাউন্ডার’ এর পক্ষে যথেষ্ট তথ্যপ্রমাণ আছে। একই সঙ্গে একই ম্যাচে অর্ধশতক রান পূর্ণ করে, ৫টি উইকেট শিকারী হিসেবে তিনি দ্বিতীয় খেলোয়াড়। তাই অধিনায়ক মাশরাফি বলেছেন, পুরো টুর্নামেন্টে সাকিব ফ্যান্টাস্টিক পারফরমেন্স দেখাচ্ছে। তিনি বিস্ময়কর। পাকিস্তান ও ভারতের বিপক্ষে আমরা আমাদের সেরাটা দেয়ার চেষ্টা করবো। একই সুরে কথা বলেছেন, দলেকে এই মুহূর্তে সামনে এগিয়ে নেয়ার শক্তি সাকিব আল হাসান। তিনি বলেছেন, ইংল্যান্ডের এখনো তিনটি ম্যাচ বাকি। আমাদের আছে দুটি। ফলে গাণিতিক হিসাবটা অনেক জটিল। তবে, যেকোনো কিছু ঘটতে পারে। আমাদেরকে এটা বিশ্বাস করতে হবে।

বার্তা সংস্থা এএফপির শিরোনাম ‘বাংলাদেশের সাকিব বিশ্বকাপে রান রেকর্ডে শীর্ষে’। এতে এ বছর বিশ্বকাপ ক্রিকেটে সর্বোচ্চ রান করার কথা বলা হয়েছে। তিনি সবচেয়ে বেশি রান করে এবার এক নম্বরে অবস্থান করছেন।

অবশ্যই দিতে হবে *
অবশ্যই দিতে হবে *
অন্যান্য খবর