× প্রচ্ছদ অনলাইনপ্রথম পাতাশেষের পাতাখেলাবিনোদনএক্সক্লুসিভভারতবিশ্বজমিনবাংলারজমিনদেশ বিদেশশিক্ষাঙ্গনরকমারিপ্রবাসীদের কথাবই থেকে নেয়া তথ্য প্রযুক্তি শরীর ও মন চলতে ফিরতে ষোলো আনা ইলেকশন কর্নার
ঢাকা, ২০ জুলাই ২০১৯, শনিবার

ভারতে পিটিয়ে মুসলিম যুবক হত্যায় গ্রেপ্তার ৫

বিশ্বজমিন

মানবজমিন ডেস্ক | ২৫ জুন ২০১৯, মঙ্গলবার, ১১:২৫

ভারতের ঝাড়খন্ডে পিটিয়ে একজন মুসলিম যুবককে হত্যার অভিযোগে পুলিশ ৫ জনকে গ্রেপ্তার করেছে। তাবরেজ আনসারি (২৪) নামের ওই যুবককে একটি মোটরসাইকেল চুরির সন্দেহে স্থানীয়রা বেদম মারপিট করে। এ সময় তাকে হিন্দু দেবদেবীর প্রশংসামুলক মন্ত্র পাঠ করতে বাধ্য করা হয়। বার বার তাকে দিয়ে ‘জয় শ্রীরাম’ ও ‘জয় হনুমান’ স্লোগান দিতে বাধ্য করা হয়। এর চার দিন পরে তাকে হাসপাতালে ভর্তি করা হয়। সেখানে মারা যান তাবরেজ আনসারি। এ ঘটনার একটি ভিডিও ছড়িয়ে পড়েছে সামাজিক ওয়েবসাইটগুলোতে। তাতে দেখা যায়, তাবরেজকে যখন প্রহার করা হচ্ছে, তখন তিনি জীবন ভিক্ষা চাইছেন।
কিন্তু তার কথায় কর্ণপাত না করে তাকে হিন্দু ধর্মের ওই স্লোগান দিতে বাধ্য করা হয়। তার পরিবারের অভিযোগ, ঘটনাস্থলে পুলিশ থাকলেও তারা ছিল নীরব দর্শক। তাবরেজ আহত হলেও তাকে চিকিৎসা করাতে দেয় নি তারা।

তাবরেজের স্ত্রী শাহিস্তা পারভিন বিবিসি’কে বলেছেন, তাবরেজকে শক্ত করে রাতভর একটি বিদ্যুতের খুঁটির সঙ্গে বেঁধে রাখা হয়েছিল। পরের দিন তাকে পুলিশে সোপর্দ করা হয়েছে। সেদিনই তাকে চুরির সন্দেহে গ্রেপ্তার দেখানো হয়। চারদিন পরে তাবরেজকে একটি হাসপাতালে পাঠানো হয়। পারভিনের অভিযোগ, তাবরেজ হিন্দুদের দেবদেবীর নামে প্রশংসামুলক স্লোগান দিতে রাজি না হওয়ার কারণেই শুধু তাকে প্রহার করা হয়। তবে কোনো অন্যায় হওয়ার কথা পুলিশ প্রত্যাখ্যান করেছে। উল্লেখ্য, ভারতের বিভিন্ন স্থানে সম্প্রতি এভাবে পিটিয়ে বেশ কিছু মানুষকে হত্যা করা হয়েছে।

অবশ্যই দিতে হবে *
অবশ্যই দিতে হবে *
অন্যান্য খবর