× প্রচ্ছদ অনলাইনপ্রথম পাতাশেষের পাতাখেলাবিনোদনএক্সক্লুসিভভারতবিশ্বজমিনবাংলারজমিনদেশ বিদেশশিক্ষাঙ্গনরকমারিপ্রবাসীদের কথাবই থেকে নেয়া তথ্য প্রযুক্তি শরীর ও মন চলতে ফিরতে ষোলো আনা ইলেকশন কর্নার
ঢাকা, ২৩ জুলাই ২০১৯, মঙ্গলবার
উপবন এক্সপ্রেস দুর্ঘটনা

দুই যাত্রীর খোঁজ পাননি স্বজনরা!

এক্সক্লুসিভ

কুলাউড়া (মৌলভীবাজার) প্রতিনিধি | ২৬ জুন ২০১৯, বুধবার, ৮:১৬

ঢাকাগামী আন্তঃনগর উপবন ট্রেন কুলাউড়ার বরমচাল এলাকায় রোববার রাতে দুর্ঘটনায় পতিত হওয়ার পর থেকে দুই যাত্রী এখনো নিখোঁজ রয়েছেন। তাদের সন্ধান পেতে হাসপাতাল ও দুর্ঘটনাস্থলে ছুটে যাচ্ছেন স্বজনরা।

নিখোঁজদের পরিবার সূত্রে জানা যায়, রোববার (২৩শে জুন) রাতে সিলেট থেকে ঢাকাগামী আন্তঃনগর উপবন এক্সপ্রেসের যাত্রী ছিলেন সিলেট সদর উপজেলার খাদিমনগর ইউনিয়নের পীরগাঁও বালিয়াকান্দি গ্রামের দুলাল আহমদ (৩৫) ও দক্ষিণ সুরমার বরইকান্দি

গ্রামের আবুল কালাম (৩৬)। এদিন রাতে মৌলভীবাজারের কুলাউড়ার বরমচালে  ট্রেন দুর্ঘটনার পর তাদের আর খোঁজ মিলেনি।

এদিকে সোমবার বিকালে তাদের সন্ধানে ওসমানী  মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে ছুটে আসেন তাদের স্বজনরা। কিন্তু হাসপাতালে তাদের পাওয়া যায়নি।

নিখোঁজ দু’জনের স্বজন জানান, দুলাল ও কালাম ওইদিন উপবনে ঢাকার উদ্দেশে যাত্রা করে।  সোমবার দুপুর পর্যন্ত তারা ঢাকায় পৌঁছায়নি। তাদের ব্যবহৃত মুঠোফোনও বন্ধ রয়েছে। ওসমানী হাসপাতাল ছাড়া মৌলভীবাজার ও কুলাউড়া  কোনো হাসপাতালে রয়েছে কিনা তারও সন্ধান করছেন স্বজনরা।

হাসপাতালে দুলাল আহমদের খোঁজ করতে আসা বাবা রশিদ আলী জানান, তার ছেলে ঢাকার একটি  পোশাক কারখানায় কাজ করে। এখন পর্যন্ত তার  কোনো সন্ধান পাননি।
অপরদিকে কালামের চাচাতো ভাই আব্দুল আলী জানান, কালাম ঢাকায় পরিবার নিয়ে বসবাস করে। ঢাকা থেকে কালামের স্ত্রী ফোন করে জানিয়েছেন, সোমবার দুপুর পর্যন্ত তিনি সেখানে পৌঁছাননি।

এ ছাড়াও সোমবার রাতে কুলাউড়া উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে কয়েকজন অভিভাবক তাদের নিখোঁজ স্বজনের সন্ধান করেছেন বলে স্থানীয়রা জানিয়েছেন।

অবশ্যই দিতে হবে *
অবশ্যই দিতে হবে *
অন্যান্য খবর