× প্রচ্ছদ অনলাইনপ্রথম পাতাশেষের পাতাখেলাবিনোদনএক্সক্লুসিভভারতবিশ্বজমিনবাংলারজমিনদেশ বিদেশশিক্ষাঙ্গনরকমারিপ্রবাসীদের কথাবই থেকে নেয়া তথ্য প্রযুক্তি শরীর ও মন চলতে ফিরতে ষোলো আনা ইলেকশন কর্নার
ঢাকা, ২৪ জুলাই ২০১৯, বুধবার

সাভারে ধর্ষণ চেষ্টার অভিযোগে শিক্ষক আটক

বাংলারজমিন

স্টাফ রিপোর্টার, সাভার থেকে | ২৬ জুন ২০১৯, বুধবার, ৮:৪১

সাভারে শিশু শিক্ষার্থীকে ধর্ষণ চেষ্টার অভিযোগে মাদ্রাসার শিক্ষক ইদ্রিস আলী (৩৮)কে আটক করেছে পুলিশ। এ ঘটনায় ভুক্তভোগী শিশুটির বাবা বাদীয় হয়ে গতকাল সাভার মডেল থানায় একটি মামলা দায়ের করেছেন। এর আগে সোমবার বিকালে সাভার পৌর এলাকার আনন্দপুর মহল্লার সমশের হাউজে অবস্থিত মাদানীয়া তা’লীমুল কুরআন বালিকা মাদ্রাসায় এ ধর্ষণের ঘটনা ঘটেছে। আটক ইদ্রিস আলী মাদারীপুর জেলার কালকিনী থানার কানাই সরদারের চর এলাকার আবদুর রহমানের ছেলে। সে আনন্দপুর মহল্লার শাহাদাৎ মিয়ার বাসায় ভাড়া থেকে স্থানীয় মাদানীয়া তা’লীমুল কুরআন বালিকা মাদ্রাসায় শিক্ষকতা করতেন। মামলার এজাহার থেকে জানা যায়, প্রতিদিনের মতো সোমবার সকাল সাড়ে ৮টায় শিশুটির বাবা তার মেয়েকে ওই মাদ্রাসায় পড়তে দিয়ে স্থানীয় একটি টেইলারের দোকানে কাজে চলে যান। দুপুর ১২টার দিকে বিরতির সময় অন্যান্য ছাত্রীরা বিশ্রাম নেয়ার সময় অভিযুক্ত মাদ্রাসা শিক্ষক কৌশলে ভুক্তভোগী শিশুটিকে তার কক্ষে নিয়ে ধর্ষণের চেষ্টা চালায়। এ সময় শিশুটি কান্নাকাটি করলে বিষয়টি কাউকে না জানানোর জন্য ভয়ভীতি দেখায়।
পরে বিকাল ৫টার দিকে টেইলারের দোকানে কাজ শেষ করে মেয়েকে মাদ্রাসা থেকে আনতে গেলে মেয়ে কান্নাকাটি করে বাবার কাছে পুরো বিষয়টি খুলে বলে। বিষয়টি জানাজানি হলে স্থানীয়রা মাদ্রাসা শিক্ষক ইদ্রিস আলীকে আটক করে গণধোলাই দিয়ে পুলিশে সোপর্দ করেন। সাভার মডেল থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) এএফএম সায়েদ বলেন, ধর্ষণ চেষ্টার ঘটনায় থানায় মামলা দায়ের করা হয়েছে। এ ঘটনায় অভিযুক্ত মাদ্রাসা শিক্ষক ইদ্রিস আলীকে আটক করে আদালতে পাঠানো হয়েছে।

অবশ্যই দিতে হবে *
অবশ্যই দিতে হবে *
অন্যান্য খবর