× প্রচ্ছদ অনলাইনপ্রথম পাতাশেষের পাতাখেলাবিনোদনএক্সক্লুসিভভারতবিশ্বজমিনবাংলারজমিনদেশ বিদেশশিক্ষাঙ্গনরকমারিপ্রবাসীদের কথাবই থেকে নেয়া তথ্য প্রযুক্তি শরীর ও মন চলতে ফিরতে ষোলো আনা ইলেকশন কর্নার
ঢাকা, ১৯ জুলাই ২০১৯, শুক্রবার

সেমিফাইনাল অনিশ্চিত খাজা-স্টইনিসের

খেলা

স্পোর্টস ডেস্ক | ৮ জুলাই ২০১৯, সোমবার, ৯:১১

সেমিফাইনালের আগে দুঃসংবাদ ধেয়ে আসলো অস্ট্রেলিয়ান শিবিরে। সেমিফাইনালে ইংল্যান্ডের বিপক্ষে হাইভোল্টেজ ম্যাচে উসমান খাজা ও মার্কাস স্টইনিসের খেলা নিয়ে শঙ্কায় অস্ট্রেলিয়া। দক্ষিণ আফ্রিকার বিপক্ষে ম্যাচে একসঙ্গে ইনজুরিতে পড়েছেন এ দুই অজি তারকা। তাদের পরিবর্ততে দলে ডাকা হয়েছে ম্যাথিউ ওয়েড ও মিচেল মার্শ।
ম্যানচেস্টারের ওল্ড ট্রাফোর্ডে দক্ষিণ আফ্রিকার বিপক্ষে ব্যাটিং করার সময় হ্যামস্ট্রিংয়ে চোট পান উসমান খাজা। মাত্র ৫ বল খেলেই রিটায়ার্ড হার্ট হয়ে মাঠ ছাড়েন খাজা। যদিও শেষে ফের ব্যাট করতে নামেন তিনি। শেষ পর্যন্ত ১৪ বলে ১৮ রান করে রাবাদার বলে বোল্ড হয়ে সাজঘরে ফেরেন খাজা।
পরে ম্যাচ শেষে খাজার ইনজুরির ব্যাপারে অজি অধিনায়ক অ্যারন ফিঞ্চ বলেন, ‘এই মুহূর্তে খাজার অবস্থা ভালো নয়। স্ক্যানিং করার পর বোঝা যাবে। এর আগেও এমন চোটে পড়েছে সে। খাজা মনে করছেন আগের চোটগুলোর মতোই কিছু হয়েছে। যদি বদলির প্রয়োজন হয় তার জন্য ম্যাথিউ ওয়েডকে প্রস্তুত রাখছি। তবে রিপোর্ট না আসা পর্যন্ত কিছু বলা যাচ্ছে না।’ একই ম্যাচে ইনজুরিতে পড়েছেন অজি অলরাউন্ডার স্টইনিস। ফিল্ডিংয়ের সময় ডান পাশের পেশিতে টান লাগে স্টইনিসের।
তিনিও চোট নিয়ে মাঠ ছাড়েন। ম্যাচে বল করেছেন মাত্র ৩ ওভার। ব্যাটিংয়ের সময়ও অস্বস্তি ছিল তার। তার চোট নিয়ে ফিঞ্চ বলেন, ‘মার্কাসের (স্টইনিস) ব্যথা রয়ে গেছে। স্ক্যান করার পরেই বলা যাবে তার অবস্থা।’ এর আগেও ইনজুরিতে পড়েছিলেন স্টইনিস। তখন তাড়াহুড়ো করে ইংল্যান্ডে উড়িয়ে আনা হয় মিচেল মার্শকে। কিন্তু স্টইনিস ফিট হয়ে ওঠায় মিচেল মার্শকে অস্ট্রেলিয়া ফেরত পাঠানো হয়। এবার স্টইনিসের ইনজুরির কারণে ফের মিচেল মার্শকে ইংল্যান্ডে উড়িয়ে আনলো অস্ট্রেলিয়া। দক্ষিণ আফ্রিকার বিপক্ষে ম্যাচের আগে ইনজুরি নিয়ে ছিটকে পড়েন মিচেলের বড় ভাই শন মার্শ। তার বদলি হিসেবে দলে ডাকা হয়েছে পিটার হ্যান্ডসকম্বকে।

অবশ্যই দিতে হবে *
অবশ্যই দিতে হবে *
অন্যান্য খবর