× প্রচ্ছদ অনলাইনপ্রথম পাতাশেষের পাতাখেলাবিনোদনএক্সক্লুসিভভারতবিশ্বজমিনবাংলারজমিনদেশ বিদেশশিক্ষাঙ্গনরকমারিপ্রবাসীদের কথাবই থেকে নেয়া তথ্য প্রযুক্তি শরীর ও মন চলতে ফিরতে ষোলো আনা ইলেকশন কর্নার
ঢাকা, ২৪ জুলাই ২০১৯, বুধবার

খরচ বাঁচাতে রাষ্ট্রদূতের বাসভবনে থাকবেন ইমরান খান

বিশ্বজমিন

মানবজমিন ডেস্ক | ৮ জুলাই ২০১৯, সোমবার, ২:০৭

যুক্তরাষ্ট্র সফরকালে কোনো হোটেলে উঠবেন না পাকিস্তানের প্রধানমন্ত্রী ইমরান খান। তিন দিনের সফরে খরচ কমানোর জন্য তিনি অবস্থান করবেন পাকিস্তানের রাষ্ট্রদূত আসাদ মাজিদ খানের বাসভবনে। এ খবর দিয়েছে ভারতের বার্তা সংস্থা ইন্দো-এশিয়ান নিউজ সার্ভিস (আইএএনএস)।

মিডিয়ার রিপোর্টে বলা হয়েছে, আগামী ২১শে জুলাই থেকে ইমরান খানের যুক্তরাষ্ট্র সফর শুরু হচ্ছে। পাকিস্তানের ডন নিউজ রিপোর্ট করেছে, এ সফরে খরচ উল্লেখযোগ্যভাবে কমাতে চান ইমরান খান। তাই তিনি ওই সিদ্ধান্ত নিয়েছেন। উল্লেখ্য, কোনো বিদেশী সরকার প্রধান যুক্তরাষ্ট্রে অবতরণ করার পরই তার নিরাপত্তা দেখাশোনা করে যুক্তরাষ্ট্রের সিক্রেট সার্ভিস। অন্যদিকে ওয়াশিংটনে যাতে যান চলাচল বিঘিœত না হয় তা নিশ্চিত করে সিটি প্রশাসন।
ওয়াশিংটন প্রতি বছর শতাধিক দেশের প্রেসিডেন্ট বা প্রধানমন্ত্রীকে স্বাগত জানায়। এ সময় শহরের স্বাভাবিক জীবনযাত্রা যাতে বিঘিœত না হয় তা নিশ্চিত করতে এক্ষেত্রে সিটি প্রশাসনের সঙ্গে যৌথভাবে কাজ করে কেন্দ্রীয় সরকার। পাকিস্তানি রাষ্ট্রদূতের বাসা ওয়াশিংটনে কূটনৈতিক পল্লীর একেবারে কেন্দ্রস্থলে। সেখানে ভারত, তুরস্ক ও জাপানসহ রয়েছে কমপক্ষে এক ডজন দেশের দূতাবাস।

যুক্তরাষ্ট্রে সফরকালে কোনো সরকার প্রধান অনেক বৈঠক করেন যুক্তরাষ্ট্রের কর্মকর্তা, আইনপ্রণেতা, মিডিয়া ও থিংক ট্যাংক প্রতিনিধিদের সঙ্গে। কিন্তু পাকিস্তানি রাষ্ট্রদূতের বাসভবনে এসব বৈঠকের জন্য পর্যাপ্ত জায়গার সংকুলান নেই। তাই ইমরান খান অতিথিদের সঙ্গে পাকিস্তান দূতাবাসে বৈঠক করবেন।

অবশ্যই দিতে হবে *
অবশ্যই দিতে হবে *
পাঠকের মতামত
**মন্তব্য সমূহ পাঠকের একান্ত ব্যক্তিগত। এর জন্য সম্পাদক দায়ী নন।
Syed Anwar Hossain
৯ জুলাই ২০১৯, মঙ্গলবার, ১:৫৫

যুক্তরাষ্ট্র সফরকালে কোনো হোটেলে উঠবেন না পাকিস্তানের প্রধানমন্ত্রী ইমরান খান। তিন দিনের সফরে খরচ কমানোর জন্য তিনি অবস্থান করবেন পাকিস্তানের রাষ্ট্রদূত আসাদ মাজিদ খানের বাসভবনে। == পাক প্রধানমন্ত্রীর এ সিদ্ধান্ত যেন সকল দেশের সরকারের জন্য অনুসরনীয় ও অনুকরনীয় হয়। যে সব নেতার দেশের জন্য দেশ প্রেম রয়েছে তাদের বিষয়টি বিবেচনা করা উচিত বিশেষ করে আমাদের মত গরীব দেশের জন্য একান্ত প্রযোজ্য।

Bangla khobor
৮ জুলাই ২০১৯, সোমবার, ৪:২২

দেশ প্রেমের এক অনন্য নজির স্থাপন করলেন ইমরান খান।

রিপন
৮ জুলাই ২০১৯, সোমবার, ৯:১২

চমৎকার সিদ্ধান্ত ইমরান খানের। নিজ দেশের বাহুল্য ব্যয় সাশ্রয় করতে একমাত্র খাঁটি দেশপ্রেমিকরাই এমন সিদ্ধান্ত নিতে পারে। ইমরান খানকে সালাম।

অন্যান্য খবর