× প্রচ্ছদ অনলাইনপ্রথম পাতাশেষের পাতাখেলাবিনোদনএক্সক্লুসিভভারতবিশ্বজমিনবাংলারজমিনদেশ বিদেশশিক্ষাঙ্গনরকমারিপ্রবাসীদের কথাবই থেকে নেয়া তথ্য প্রযুক্তি শরীর ও মন চলতে ফিরতে ষোলো আনা ইলেকশন কর্নার
ঢাকা, ১৮ জুলাই ২০১৯, বৃহস্পতিবার

দুর্নীতিবাজদের খুঁটির জোর কতটুকু তা তোয়াক্কা করে না সরকার

দেশ বিদেশ

স্টাফ রিপোর্টার | ১০ জুলাই ২০১৯, বুধবার, ৮:৪০

দুর্নীতিবাজদের খুঁটির জোর কার কতটুকু সরকার তার তোয়াক্কা না করে তাদের আইনের আওতায় আনা হচ্ছে বলে জানিয়েছেন, ডেপুটি স্পিকার ফজলে রাব্বি মিয়া। তিনি বলেন,দুর্নীতি অবশ্যই বন্ধ হতে হবে। দুর্নীতি দমনে সরকার জিরো টলারেন্স নীতি গ্রহণ করেছে। গতকাল মিরপুরে বাংলাদেশ ইউনিভার্সিটি অব বিজনেস এন্ড টেকনোলজি (বিইউবিটি)’র ডিবেটিং ক্লাবে ৩ দিন ব্যাপী বিতর্ক প্রতিযোগিতার চূড়ান্ত  পর্বের অনুষ্ঠানে তিনি এসব কথা বলেন। এর আগে বর্তমান সরকার দুর্নীতি দমনে অনমনীয়’ বিষয়ের উপর অনুষ্ঠিত বিতর্কে বিজয়ীদের হাতে ট্রফি তুলে দেন। এসময় তিনি শিক্ষার্থীদের দেশপ্রেমিক ও সুনাগরিক হিসেবে গড়ে উঠার পরামর্শ দেন। তিনি বলেন, উচ্চশিক্ষা প্রসারে এবং জঙ্গিবাদ, সন্ত্রাস ও মাদক ঠেকাতে দেশের বেসরকারি বিশ্ববিদ্যালয়সমূহ গুরুত্বপূর্ণ ভূমিকা রাখছে। তিনি আরো বলেন, দেশ চালাতে যোগ্য লোকবলের প্রয়োজন।
আর তাই যোগ্য লোকবল তৈরি করতে হলে মানসম্মত উচ্চশিক্ষাব্যবস্থার অবশ্যই প্রয়োজন, যারা দুর্নীতিমুক্ত দেশ গড়ে তুলবে। তার মতে, বর্তমান সরকার দুর্নীতি দমনে আন্তরিক। অনুষ্ঠানে বিশেষ অতিথির বক্তব্য রাখেন, বিইউবিটি ট্রাস্টের চেয়ারম্যান প্রফেসর ড. সফিক আহমেদ সিদ্দিক। তিনি বলেন, কালো টাকা কখনোই সাদা করা যায় না। ডাকাতির টাকা ট্যাক্স দিলেও সাদা হয় না। সরকারের উচিত এক্ষেত্রে ‘অপ্রদর্শিত অর্থ’ শব্দটি ব্যবহার করা। সভাপতিত্ব করেন বিইউবিটি’র উপাচার্য প্রফেসর মো. আবু সালেহ। তিনি তারুণ্যের উদ্দীপনা ফিরিয়ে আনার পরামর্শ দেন শিক্ষার্থীদের। তিনি বলেন, তারুণ্যের শক্তির কাছে জঙ্গিবাদ ও মাদক, সন্ত্রাস ও দুর্নীতি কিছুই টিকতে পারে না। শুধু পুঁথিগত বিদ্যা দিয়ে সব কিছু অর্জন করা যায় না। স্বাগত বক্তব্য রাখেন বিইউবিটি’র ছাত্রবিষয়ক উপদেষ্টা প্রফেসর মিঞা লুৎফার রহমান। গত ৬ই জুলাই বিতর্ক প্রতিযোগিতার উদ্বোধন করেন বিইউবিটি ট্রাস্টের সদস্য এ এফ এম সরওয়ার কামাল। উদ্বোধনের পর বিইউবিটি’র ১১ বিভাগের মোট ২০০ শিক্ষার্থীর অংশগ্রহণে বিতর্ক কর্মশালা হয় এবং বিতর্ক প্রতিযোগিতাসমূহ অনুষ্ঠিত হয়। কর্মশালা পরিচালনা করেন, ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয় ডিবেটিং সোসাইটির সাবেক সাধারণ সম্পাদক ও সুপ্রিম কোর্টের বর্তমান আইনজীবী অমিত দাশ গুপ্ত। বিতর্ক প্রতিযোগিতায় বিজয়ী হয় বিইউবিটি’র আইন বিভাগের শিক্ষার্থীরা। রানার আপ হয় বিবিএ’র শিক্ষার্থীরা। সেরা বিতার্কিক নির্বাচিত হয় আইন বিভাগের কথামিত্র।

অবশ্যই দিতে হবে *
অবশ্যই দিতে হবে *
অন্যান্য খবর