× প্রচ্ছদ অনলাইনপ্রথম পাতাশেষের পাতাখেলাবিনোদনএক্সক্লুসিভভারতবিশ্বজমিনবাংলারজমিনদেশ বিদেশশিক্ষাঙ্গনরকমারিপ্রবাসীদের কথাবই থেকে নেয়া তথ্য প্রযুক্তি শরীর ও মন চলতে ফিরতে ষোলো আনা ইলেকশন কর্নার
ঢাকা, ১৮ জুলাই ২০১৯, বৃহস্পতিবার
বেনার নিউজকে সিনহা

প্রধান বিচারপতি থাকতেই ন্যায়বিচার পাইনি, এখন কীভাবে আশা করি

প্রথম পাতা

মানবজমিন ডেস্ক | ১৩ জুলাই ২০১৯, শনিবার, ৮:৫৭

বর্তমানে বাংলাদেশে ন্যায়বিচার আশা করা যায় না বলে মন্তব্য করেছেন সাবেক প্রধান বিচারপতি সুরেন্দ্র কুমার সিনহা। ঢাকায় তার বিরুদ্ধে দুর্নীতির মামলা হওয়ার একদিন পর ওই মামলা সম্পর্কে মন্তব্য করতে গিয়ে বৃহস্পতিবার বেনার নিউজকে তিনি এ কথা বলেন। তার সঙ্গে কথা বলেছেন বেনারের  ওয়াশিংটন প্রতিনিধি রনি টলডেন্স।

তাকে সাবেক বিচারপতি এসকে সিনহা বলেন, এটি অনৈতিক, অন্যায়। তারা আমাকে জনসম্মুখে হেয় প্রতিপন্ন করতে চায়। বেনার নিউজ জানায়, সংবিধানের ষোড়শ সংশোধনী বাতিলের রায় ও কিছু পর্যবেক্ষণকে কেন্দ্র করে সরকারের সঙ্গে মতবিরোধ সৃষ্টি হয় এসকে সিনহার। এরই জের ধরে ২০১৭ সালের ১৩ই অক্টোবর প্রথমে ছুটি নিয়ে বিদেশ যান তিনি। পরে সেখান থেকেই প্রেসিডেন্টের কাছে পদত্যাগপত্র পাঠান। বর্তমানে যুক্তরাষ্ট্রে নির্বাসিত রয়েছেন তিনি।
তবে বিচারপতি সিনহা গত কয়েকদিন ধরে নিজের ছোট মেয়েকে দেখতে স্ত্রীসহ কানাডায় রয়েছেন। সেখান থেকে টেলিফোনে বেনারের সঙ্গে কথা বলেন তিনি।

এসকে সিনহা জানান, দুর্নীতি মামলা হওয়ার সংবাদটি আমার স্ত্রী সামাজিক যোগাযোগমাধ্যমে দেখে। তখন সে বিষয়টি আমাকে জানায়, আমি এখন হাসব না কাঁদব, সেটাই ভাবছি! ফারমার্স ব্যাংকের কিছু কর্মকর্তার যোগসাজশে জালিয়াতির মাধ্যমে চার কোটি টাকা আত্মসাৎ ও পাচারের অভিযোগে বিচারপতি সিনহার বিরুদ্ধে এই মামলা করেছে দুর্নীতি দমন কমিশন। বুধবার সংস্থাটির জেলা সমন্বিত কার্যালয় ঢাকা-১ এ সিনহাসহ ১১ জনের বিরুদ্ধে সংস্থাটির পরিচালক সৈয়দ ইকবাল হোসেন বাদী হয়ে মামলাটি করেন। বাংলাদেশে সাবেক কোনো প্রধান বিচারপতির বিরুদ্ধে মামলার ঘটনা এটাই প্রথম। টেলিফোনে তাকে জিজ্ঞেস করা হয় যে, তিনি কি ন্যায়বিচার পাবেন বলে মনে করেন কি না। বেনারের এমন প্রশ্নে সাবেক এই প্রধান বিচারপতি বলেন, যখন আমি কর্মরত প্রধান বিচারপতি ছিলাম, তখনই ন্যায়বিচার পাইনি। এখন কীভাবে ন্যায়বিচার আশা করব?

অবশ্যই দিতে হবে *
অবশ্যই দিতে হবে *
পাঠকের মতামত
**মন্তব্য সমূহ পাঠকের একান্ত ব্যক্তিগত। এর জন্য সম্পাদক দায়ী নন।
Md Ali
১৩ জুলাই ২০১৯, শনিবার, ৮:৫৪

Are the charges true or false? Yes or no - Mr Sinha?

Md.Nayyer Afroze
১৩ জুলাই ২০১৯, শনিবার, ৪:১৪

আপনি কি ন্যায় বিচার করেছিলেন মিঃ চিফ জাস্টিস??

shishir
১২ জুলাই ২০১৯, শুক্রবার, ১১:০৮

Father of iblis!

অন্যান্য খবর