× প্রচ্ছদ অনলাইনপ্রথম পাতাশেষের পাতাখেলাবিনোদনএক্সক্লুসিভভারতবিশ্বজমিনবাংলারজমিনদেশ বিদেশশিক্ষাঙ্গনরকমারিপ্রবাসীদের কথাবই থেকে নেয়া তথ্য প্রযুক্তি শরীর ও মন চলতে ফিরতে ষোলো আনা ইলেকশন কর্নার
ঢাকা, ২৪ আগস্ট ২০১৯, শনিবার

বড় ভাইকে পিটিয়ে হত্যা করলো ছোট ভাই

অনলাইন

স্টাফ রিপোর্টার,মানিকগঞ্জ থেকে | ১৫ জুলাই ২০১৯, সোমবার, ১১:১৭

মানিকগঞ্জের সিংগাইরে আপন ছোট ভাই ও ভাতিজার হাতে খুন হলো বড় ভাই। জমিজমা সংক্রান্ত বিরোধের জের ধরে রোববার সন্ধ্যায় উপজেলার জামির্তা ইউনিয়নের বিন্নাডাঙ্গী বাসষ্ট্যান্ডে প্রকাশ্যে এই হত্যাকাণ্ডের ঘটনা ঘটে। নিহতের নাম আবদুর রহিম (৫৫)। হত্যাকারী নিহতের ছোট ভাই মজিবুর রহমান ও তার ছেলে সালাউদ্দিন পলাতক রয়েছে। এ ঘটনায় মজিবুর রহমানের স্ত্রী মনোয়ারা বেগমকে আটক করেছে পুলিশ।

সিংগাইর থানার এসআই আলমগীর হোসেন বলেন, আবদুর রহিমের সঙ্গে জমিজমা নিয়ে দীর্ঘদিন ধরে তার ছোট ভাই মুজিবুর রহমানের বিরোধ চলছিল। এ নিয়ে রোববার সন্ধ্যায় দুই ভাইয়ের মধ্যে বাকবিতন্ডা হয়। একপর্যায়ে ছোট ভাই মজিবুর রহমান ও তার ছেলে সালাউদ্দিন আবদুর রহিমকে লোহার রড দিয়ে মারধর করে।
পরে গুরুতর আহত অবস্থায় আবদুর রহিমকে সাভারের এনাম মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে ভর্তি করলে রাত ৯টার দিকে তিনি মারা যান।

নিহত আবদুর রহিমের লাশ ময়নাতদন্তের জন্য মানিকগঞ্জ ২৫০ শয্যা হাসপাতালে নেয়া হয়েছে। মামলার প্রস্তুতি চলছে বলে পুলিশ জানিয়েছে।

এদিকে নিহতের স্ত্রী খাদিজা বেগম বলেন, আমার স্বামী আবদুর রহিমসহ তিন ভাই ছিলেন। বছর দুই আগে ছোট ভাই মারা যায়। এরপর থেকে মেজো ভাই মজিবুর রহমান জমিজমা ও সহায় সম্পদ নিয়ে ঝামেলা সৃষ্টি করে আসছিল। বিন্নাডাঙ্গী বাজারে তাদের একটি স-মিল রয়েছে। সেটা ভাড়া দেয়া হলে সব টাকা মেজো ভাই মজিবুর নিয়ে যান। মৃত ছোট ভাইয়ের পরিবার ও তাদের পরিবারকে সেখান থেকে কোন ভাগ বাটোয়ারা দেন না। আমার স্বামী তার মৃত ছোট ভাইয়ের পরিবারকে দোকান ভাড়া থেকে অর্ধেক টাকা দিতে অনুরোধ করলেও মজিবুর তা দিতে অস্বীকৃতি জানায়। পরে এই ভাড়ার টাকা চাইতে গেলে আমার স্বামীকে মজিবুর ও তার ছেলে মিলে রড দিয়ে পিটিয়ে হত্যা করে।

অবশ্যই দিতে হবে *
অবশ্যই দিতে হবে *
অন্যান্য খবর