× প্রচ্ছদ অনলাইনপ্রথম পাতাশেষের পাতাখেলাবিনোদনএক্সক্লুসিভভারতবিশ্বজমিনবাংলারজমিনদেশ বিদেশশিক্ষাঙ্গনরকমারিপ্রবাসীদের কথাবই থেকে নেয়া তথ্য প্রযুক্তি শরীর ও মন চলতে ফিরতে ষোলো আনা ইলেকশন কর্নার
ঢাকা, ২০ আগস্ট ২০১৯, মঙ্গলবার

কাতারকে পেয়ে খুশি জেমি ডে

খেলা

স্পোর্টস রিপোর্টার | ১৮ জুলাই ২০১৯, বৃহস্পতিবার, ৮:৩৭

এশিয়া কাপের চ্যাম্পিয়ন কাতার। ২০২২ বিশ্বকাপের আয়োজকও তারা। এমন একটি বিশ্বকাপের বাছাই পর্বে পড়ায় বেশ খুশি বাংলাদেশ ফুটবলের ইংলিশ কোচ জেমি ডে। বাংলাদেশকে এশিয়ান গেমস ফুটবলের এবং বিশ্বকাপ বাছাইয়ের দ্বিতীয় পর্বে তোলা এই কোচ এখন ছুটিতে।
ড্রয়ের পরপরই প্রতিক্রিয়ায় বাংলাদেশ কোচ বলেন, ‘আমি খুবই খুশি। কারণ, ২০২২ বিশ্বকাপের আয়োজক দেশ আমাদের গ্রুপে পড়েছে। দারুণ একটা অভিজ্ঞতা হবে আমাদের বিশ্বকাপ বাছাইয়ের ম্যাচগুলোতে। কাতারের পাশাপাশি ভারতের বিরুদ্ধে ম্যাচটিও হবে আমার জন্য দারুণ এক অভিজ্ঞতা।’ রাশিয়া বিশ্বকাপের বাছাইয়ে অস্ট্রেলিয়া, জর্ডান ও কিরগিজস্তানের মতো দল পড়েছিল বাংলাদেশের গ্রুপে। সে তুলনায় এবারের প্রতিপক্ষ কাতার, ভারত, ওমান ও আফগানিস্তান অনেকটাই সহনীয়।
সবচেয়ে বড় কথা এ দলগুলোর সঙ্গে বাংলাদেশের ফুটবলের পরিচয়টা বেশি। খেলাও হয়েছে অনেক। পরিচিত দলগুলোই এবার প্রতিপক্ষ হিসেবে পেয়েছে লাল-সবুজ জার্সিধারীরা। প্রতিপক্ষ নিয়ে জেমি ডে বলেন,  ‘গ্রুপপর্বে যাদের আমরা মোকাবিলা করতে যাচ্ছি তারা সবাই কঠিন প্রতিপক্ষ। এই চার দলকে টপকে পরের রাউন্ডে ওঠার আশা আমরা করছি না। কারণ সবাই আমাদের চেয়ে র‌্যাঙ্কিংয়ে, মানে ও অভিজ্ঞতায় অনেক এগিয়ে। আমরা নিজেদের সেরা খেলাটাই খেলার চেষ্টা করবো। গ্রুপ পর্বের ম্যাচগুলোর অভিজ্ঞতা থেকে আমাদের খেলোয়াড়রা নিজেদের আরো ভালো খেলোয়াড় হিসেবে তৈরি করতে পারবে।’ বাংলাদেশের তো দক্ষিণ কোরিয়া, জাপান ও দক্ষিণ কোরিয়ার মতো দলের বিপক্ষে খেলতে হচ্ছে না। সে হিসেবে কি প্রতিপক্ষ একটু সহজ কিনা এমন এমন প্রশ্নের জবাবে জাতীয় দলের এই কোচ বলেন, ‘কাতার এশিয়ার চ্যাম্পিয়ন। তারা এশিয়া কাপের ফাইনালে জাপানকে ৩-১ গোলে হারিয়েছে। সুতরাং সব কিছু মিলিয়ে শক্ত গ্রুপেই পড়েছি আমরা।’

অবশ্যই দিতে হবে *
অবশ্যই দিতে হবে *
অন্যান্য খবর