× প্রচ্ছদ অনলাইনপ্রথম পাতাশেষের পাতাখেলাবিনোদনএক্সক্লুসিভভারতবিশ্বজমিনবাংলারজমিনদেশ বিদেশশিক্ষাঙ্গনরকমারিপ্রবাসীদের কথাবই থেকে নেয়া তথ্য প্রযুক্তি শরীর ও মন চলতে ফিরতে ষোলো আনা ইলেকশন কর্নার
ঢাকা, ২৪ আগস্ট ২০১৯, শনিবার

অনন্ত জলিলের ২৭ লাখ ৫০ হাজার টাকা উদ্ধার, গ্রেপ্তার ৪

বাংলারজমিন

স্টাফ রিপোর্টার, সাভার থেকে | ১৯ জুলাই ২০১৯, শুক্রবার, ৮:১৭

সাভার থেকে নায়ক অনন্ত জলিলের গাড়িচালক হেমায়েতপুর কারখানার ৫৫ লাখ টাকা নিয়ে পালিয়ে যাওয়ার ঘটনায় চার জনকে গ্রেপ্তার করেছে  গোয়েন্দা পুলিশ (ডিবি)। এ সময় তাদের কাছ থেকে ২৭ লাখ ৫০ হাজার টাকা উদ্ধার করা হয়েছে। তথ্য প্রযুক্তি সহায়তায় মঙ্গলবার বিকালে ঢাকা জেলা উত্তরের গোয়েন্দা পুলিশের একটি দল ভোলার দৌলতখান থানার জয়নগর গ্রাম থেকে তাদেরকে গ্রেপ্তার করে। পরে বুধবার দুপুরে গ্রেপ্তারকৃতদের রিমান্ড চেয়ে আদালতে পাঠানো হয়। গ্রেপ্তারকৃতরা হলো- ভোলা জেলার দৌলতখান থানার জয়নগর গ্রামের মৃত বারেক বিশ্বাসের ছেলে গাড়িচালক মো. শহিদ বিশ্বাস (৩৭), তার স্ত্রী আরজু বেগম (২৬), একই থানার মধ্যজয়নগর গ্রামের আবু তাহেরের ছেলে মো. জুয়েল (২১) ও কলাকোপা গ্রামের মৃত মান্নানের ছেলে মো. শাহাবুদ্দিন (৩৩)। ঢাকা জেলা উত্তর গোয়েন্দা পুলিশের ওসি মো. আবুল বাসার বলেন, ঢাকা জেলার পুলিশ সুপার শাহ মিজান শাফিউর রহমান, অতিরিক্ত পুলিশ সুপার (অপরাধ) মো. সাঈদুর রহমানের দিকনির্দেশনায় মামলার তদন্তকারী কর্মকর্তা এসআই মো. আশরাফুল আলম, এসআই মো. নজরুল ইসলাম, এএসআই জাহিদ ও এএসআই আজহারুলসহ একটি বিশেষ দল নিয়ে আমরা টাকা উদ্ধারে অভিযান পরিচালনা করি। এ সময় মামলার প্রধান আসামিসহ ভোলা জেলার দৌলতখান থানার জয়নগর গ্রাম থেকে চারজনকে গ্রেপ্তার করা হয়। পরে আসামিদের স্বীকারোক্তি অনুযায়ী গাড়িচালক শহীদের নির্মাণাধীন বাড়ির সামনে মাটির নিচ থেকে ২০ লাখ টাকা এবং তার স্ত্রী আরজুর কাছ থেকে ৭ লাখ  ৫০ হাজারসহ মোট ২৭ লাখ ৫০ হাজার  টাকা উদ্ধার করা হয়।
উদ্ধার কাজে সহায়তা করেন মামলার বাদী এজেআই গ্রুপের হেড অব এইচ আর অ্যাডমিন মো. জাহিদুল হাসান মীর। উল্লেখ্য, গত ৭ই এপ্রিল চিত্রনায়ক অনন্ত জলিলের গাড়িচালক শহিদ কারখানার  ৫৫ লাখ টাকা নিয়ে পালিয়ে যায়। এ ঘটনায় সাভার মডেল থানায় একটি মামলা দায়ের করা হলে টাকা উদ্ধারে কাজ শুরু করে পুলিশ।

অবশ্যই দিতে হবে *
অবশ্যই দিতে হবে *
অন্যান্য খবর