× প্রচ্ছদ অনলাইনপ্রথম পাতাশেষের পাতাখেলাবিনোদনএক্সক্লুসিভভারতবিশ্বজমিনবাংলারজমিনদেশ বিদেশশিক্ষাঙ্গনরকমারিপ্রবাসীদের কথাবই থেকে নেয়া তথ্য প্রযুক্তি শরীর ও মন চলতে ফিরতে ষোলো আনা ইলেকশন কর্নার
ঢাকা, ২৫ আগস্ট ২০১৯, রবিবার

ফেসঅ্যাপের বিরুদ্ধে এফবিআই তদন্তের আহ্বান জানালেন চাক শুমার

এক্সক্লুসিভ

মানবজমিন ডেস্ক | ১৯ জুলাই ২০১৯, শুক্রবার, ৮:৩৯

মোবাইল অ্যাপ ফেসঅ্যাপের বিরুদ্ধে তদন্তের আহ্বান জানিয়েছেন যুক্তরাষ্ট্রের পার্লামেন্টের উচ্চকক্ষ সিনেটের ডেমোক্র্যাট নেতা চাক শুমার। টুইটারে এক পোস্টে ফেসঅ্যাপকে অত্যন্ত ‘উদ্বেগজনক’ হিসেবে বর্ণনা করে বলেন, অ্যাপটির মাধ্যমে যুক্তরাষ্ট্রের নাগরিকদের ব্যক্তিগত তথ্য আক্রমণাত্মক বিদেশি শক্তির হাতে চলে যেতে পারে। এ খবর দিয়েছে বিবিসি। খবরে বলা হয়, ফেসঅ্যাপ অ্যাপটি ব্যবহারকারীদের ছবি নিয়ে সেগুলোকে ব্যবহারকারীদের সম্ভাব্য বৃদ্ধ বা তরুণ বয়সের একটি রূপ দেয়। ফোর্বস ম্যাগাজিন জানিয়েছে, ইতিমধ্যে বিশ্বজুড়ে অ্যাপটি ব্যবহার করেছেন প্রায় ১ কোটি ৫০ লাখ মানুষ। বহুল ব্যবহৃত হওয়ায় অ্যাপটির নিরাপত্তা নিয়ে উদ্বেগ প্রকাশ করেছেন অনেকে। অ্যাপটি তৈরি করেছে রুশ প্রতিষ্ঠান ওয়ারলেস ল্যাব। তবে নিরাপত্তা সংশ্লিষ্ট সকল অভিযোগ অস্বীকার করেছে ফেসঅ্যাপ।
রাশিয়ার সেইন্ট পিটার্সবার্গ-ভিত্তিক ওয়ারলেস ল্যাব জানিয়েছে, অ্যাপটি কোনো ব্যবহারকারীর ছবি স্থায়ীভাবে জমা করে রাখে না ও গোপনীয় কোনো তথ্য সংগ্রহ করে না। এটি কেবল আপলোড করা ছবিটির সম্পাদনা করে থাকে। এক বিবৃতিতে প্রতিষ্ঠানটি জানায়, অ্যাপটির প্রধান গবেষণা ও উন্নয়ন বিষয়ক টিম রাশিয়ায় অবস্থিত হলেও, এর ব্যবহারকারীদের তথ্য রাশিয়ায় হস্তান্তরিত হয় না। তবে ওয়্যারলেস ল্যাবের বিবৃতিতে তুষ্ট হননি শুমার। তিনি এফবিআই ও ফেডারেল ট্রেড কমিশনকে (এফটিসি) অ্যাপটি খতিয়ে দেখতে আহ্বান জানিয়েছেন। তিনি টুইটে লিখেন, ফেসঅ্যাপের সংগৃহীত তথ্যের সুরক্ষা ও এসব তথ্য কারা দেখতে পারবে সে বিষয়ে ব্যবহারকারীদের সচেতনতা নিয়ে আমার গুরুতর উদ্বেগ রয়েছে। উল্লেখ্য, সম্প্রতি ২০২০ সালে অনুষ্ঠেয় মার্কিন প্রেসিডেন্ট নির্বাচনের ডেমোক্র্যাটিক প্রার্থীদের অ্যাপটি ব্যবহার করতে নিষেধ করেছে ডেমোক্র্যাটিক ন্যাশনাল কমিটি। এরপরই এর বিরুদ্ধে তদন্তের আহ্বান জানিয়েছেন শুমার। ফেসঅ্যাপের নিরাপত্তা বিষয়ে মার্কিন সাইবার নিরাপত্তাকর্মী বব লর্ড বলেন, এই মুহূর্তে অ্যাপটি ব্যবহারে কী ঝুঁকি রয়েছে সে বিষয়ে সপষ্ট করে কিছু বলা যাচ্ছে না। তবে এটা পরিষ্কার যে, অ্যাপটি ব্যবহার না করাই উত্তম। ফেসঅ্যাপ জানিয়েছে, বর্তমানে তাদের প্রায় ৮ কোটি সক্রিয় ব্যবহারকারী রয়েছে।

অবশ্যই দিতে হবে *
অবশ্যই দিতে হবে *
অন্যান্য খবর