× প্রচ্ছদ অনলাইনপ্রথম পাতাশেষের পাতাখেলাবিনোদনএক্সক্লুসিভভারতবিশ্বজমিনবাংলারজমিনদেশ বিদেশশিক্ষাঙ্গনরকমারিপ্রবাসীদের কথাবই থেকে নেয়া তথ্য প্রযুক্তি শরীর ও মন চলতে ফিরতে ষোলো আনা ইলেকশন কর্নার
ঢাকা, ২০ আগস্ট ২০১৯, মঙ্গলবার

সরল বিশ্বাসে ভুল অপরাধ নয়- দুদক চেয়ারম্যান

শেষের পাতা

স্টাফ রিপোর্টার | ১৯ জুলাই ২০১৯, শুক্রবার, ৯:৪০

দুর্নীতি দমন কমিশনের (দুদক) চেয়ারম্যান ইকবাল মাহমুদ বলেছেন, সরকারি কর্মচারীদের সরল বিশ্বাসে বড় ভুলও অপরাধ নয়। গতকাল সচিবালয়ে মন্ত্রিপরিষদ সম্মেলন কক্ষে আয়োজিত জেলা প্রশাসক (ডিসি) সম্মেলনের পঞ্চম দিনের তৃতীয় কার্য অধিবেশনে সাংবাদিকদের  প্রশ্নের জবাবে এসব কথা বলেন ইকবাল মাহমুদ। পাবলিক সার্ভিস অ্যাক্টে বলা হয়েছিল যে, সরল বিশ্বাসে সরকারি কর্মকর্তা-কর্মচারীরা যদি ভুল করে তাহলে সেটা অপরাধ হবে না এমন প্রশ্নে তিনি বলেন, ইট ইজ ভেরি ক্লিয়ার। যে এটা কোনো অপরাধ নয়, সরল বিশ্বাসে আপনি যদি কোনো কাজ করেন। একটু পরিষ্কার করতে বললে তিনি বলেন, পেনাল কোডেই বলা আছে যে, সরল বিশ্বাসে কৃত কর্ম অপরাধ নয়। কিন্তু এখানে শর্ত আছে যে আপনাকে প্রমাণ করতে হবে যে কাজটা সরল বিশ্বাসেই করা হয়েছে। এবারের ডিসি সম্মেলনে দুদক চেয়ারম্যানের বৈঠক নির্ধারিত ছিলো না।

তবে পরে এ বৈঠক চূড়ান্ত করা হয়।
সাংবাদিকদের অপর এক প্রশ্নের জবাবে দুদক চেয়ারম্যান বলেন, দুর্নীতি প্রতিরোধে প্রাথমিক ও মাধ্যমিক শিক্ষা প্রতিষ্ঠানে মানসম্মত শিক্ষার পাশাপাশি মূল্যবোধ শিক্ষাদানের আহ্বান জানানো হয়েছে জেলা প্রশাসকদের। তারা যেন এ বিষয়ে স্থানীয় শিক্ষা কর্মকর্তা এবং শিক্ষক এবং অভিভাবকদের সাথে আলোচনা করে পদক্ষেপ নেয়, সজন্য একটি গাইড লাইন দেয়া হয়েছে। ইকবাল মাহমুদ বলেন, স্থানীয় পর্যায়ে দুদকের দুর্নীতি বিরোধী কার্যক্রমে ডিসিদের সহযোগিতা চাওয়া হয়েছে। আমাদের কার্যক্রমে যদি কোথাও অনিয়ম থেকে থাকে সেটাও আমার নজরে আনতে বলেছি। দুদক চেয়ারম্যন বলেন, সার্বিক উন্নয়নে আগামী প্রজন্ম উন্নত মূল্যবোধ আর সুশিক্ষায় সুশিক্ষিত না হলে জাতি হিসেবে আমাদের মান উন্নয়ন হবে না।

অবশ্যই দিতে হবে *
অবশ্যই দিতে হবে *
পাঠকের মতামত
**মন্তব্য সমূহ পাঠকের একান্ত ব্যক্তিগত। এর জন্য সম্পাদক দায়ী নন।
Rose
১৮ জুলাই ২০১৯, বৃহস্পতিবার, ২:১৬

দেখলে মসকরা না দেখলে চুরি এই রকম । এক জন দুদক চেয়ারম্যানের ভাষা চিন্তা যদি এই হয় কোন দিনই দেশ দুনীতি মুক্ত হবে না । অপরাধ করার জন্য সরকারি কর্মকর্তাদের আরো উৎসাহিত করলেন ওনি । সরকারি কর্মকর্তা পার পাবে বাকিরা হয়রানি হবে বিনা দোষে জাহলামের মত মানুষ জেল কাটবে যাদের দোষে তার জীবনের এত সময় জেলেই চলে গেল তাদের কোন বিচার নাই । এই কি বাংলাদেশের আইন? ওসব মানুষ এর কাছ থেকে কি আনন্দটাই আশা করতে পারে দেশ ?

Riaz
১৮ জুলাই ২০১৯, বৃহস্পতিবার, ১:০৮

হালা একটা বলদ,, দুরনিতি দমন কমিশন না ছাগল পালন কমিশন,,

অন্যান্য খবর